কেন সকালে খালি পেটে গরম পানি পান করবেন?

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ

পানি পানের উপকারিতা আমরা সবাই জানি। কিন্তু সেই পানি ঠাণ্ডা না হয়ে হালকা গরম হলে তা আমাদের শরীরের জন্য বেশি উপকারি। খাদ্য গ্রহণের পর ঠাণ্ডা পানি পান করলে খাদ্যের সাথে থাকা চর্বিগুলো জমিয়ে ফেলে। পৃথিবীর সবথেকে প্রচীন দুই চিকিৎসাশাস্ত্র, ভারতের আয়ুর্বেদ এবং চীনা ইউনানি চিকিৎসাবিদ্যা অনুসারে আমাদের শরীরের ভালো-মন্দ অনেকাংশেই নির্ভর করে কী ধরনের পানি খাওয়া হচ্ছে এবং কতটা পরিমাণে খাওয়া হচ্ছে তার ওপর। কারণ খেয়াল করে যদি দেখেন, তাহলে বুঝতে পারবেন আমাদের শরীরের সিংহভাগই পানি দিয়ে তৈরি। তাই তো পর্যাপ্ত পানি পান করা জরুরি।

তবে বিষয়টা এখানেই থেমে থাকে না। প্রাচীন এবং আধুনিক, উভয় চিকিৎসা বিজ্ঞানই মেনে নিয়েছে ঠাণ্ডা পানির পরিবর্তে গরম পানি পান করলে শরীরের অনেক উপকার হয়, বিশেষত সকালবেলা খালি পেটে। এ ক্ষেত্রে যে যে উপকারগুলো পাওয়া যায়।

১. কোষ্ঠকাঠিন্যের প্রকোপ কমে
আপনার কাছে সকাল মানেই কি যন্ত্রণা এবং কষ্ট? তাহলে তো খালি পেটে গরম পানি পান করা মাস্ট! কারণ এমনটা করলে বাওয়েল মুভমেন্টের উন্নতি ঘটে। সেই সঙ্গে শরীরের অন্দরে জমে থাকা ময়লা সব বেরিয়ে যায়। ফলে স্বাভাবিকভাবেই কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা কমে যেতে বাধ্য হয়। সেই সঙ্গে তলপেটে যন্ত্রণা, বদহজম এবং অন্যান্য পেটের রোগের প্রকোপও কমে।

২. ত্বকের সৌন্দর্য বাড়ে
একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, সকাল সকাল গরম পানি খেলে শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যায়। ফলে রক্তের সঙ্গে মিশে থাকা বিষাক্ত টক্সিক উপদান ঘামের সঙ্গে বেরিয়ে যেতে শুরু করে।

এমনটা হওয়া মাত্র ত্বকের ঔজ্জ্বল্য যেমন বাড়ে, তেমনি শরীরও রোগমুক্তির পথে কয়েকধাপ সামনের দিকে এগিয়ে যায়।

৩. হজমক্ষমতার উন্নতি ঘটে
যেমনটা আগেও আলোচনা করা হয়েছে যে খালি পেটে গরম পানি পান করলে দেহের তাপমাত্র বেড়ে যায়। ফলে শরীরকে অতিরিক্ত মাত্রায় কাজ করে তাপমাত্রকে স্বাভাবিক পর্যায়ে নিয়ে আসতে হয়। এমনটা হওয়ার কারণে স্বাভাবিকভাবেই হজমক্ষমতার উন্নতি ঘটে। সেই কারণেই তো আয়ুর্বেদ চিকিৎসকরা বেশি ঝাল-মশলা দেওয়া খাবার খাওয়ার পর এক কাপ গরম পানি খাওয়া পরামর্শ দিয়ে থাকেন। কারণ এমনটা করলে খাবার হজম হতে কোনো সমস্যা হয় না।

৪. লিভার এবং কিডনি ফাংশনের উন্নতি ঘটে
বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, খালি পেটে গরম পানি পান করলে লিভার এবং কিডনির কর্মক্ষমতা বাড়তে শুরু করে। ফলে একদিকে যেমন মেটাবলিজম সিস্টেমের উন্নতি ঘটে, তেমনি সার্বিকভাবে শরীরও চাঙা হয়ে ওঠে। আসলে হার্টের পর কিডনি এবং লিভারই হলো শরীরের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। তাই লিভার এবং কিডনি যদি ঠিক থাকে, তাহলে শরীরকে নিয়ে আর কোনো চিন্তাই থাকে না।

৫. পিরিয়ডের কষ্ট কমায়
এ কথা তথ্যভিত্তিক গবেষাণায় ইতিমধ্যেই প্রমাণিত হয়ে গেছে যে মাসের বিশেষ সময়ে যদি নিয়মিত খালি পেটে গরম পানি পান করা যায়, তাহলে দারুণ উপকার মেলে। আসলে গরম পানি খাওয়া মাত্র সারা শরীরে অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্তের সরবরাহ বেড়ে যায়। ফলে স্বাভাবিকভাবেই পিরিয়ডের কষ্ট কমতে শুরু করে।

৬. ত্বকের বয়স কমায়
বয়স বাড়লেও ত্বকে থাকবে যৌবনের ছোঁয়া, এমনটাই কি আপনার স্বপ্ন? তাহলে কাল সকাল থেকেই খালি পেটে গরম পানি খাওয়া শুরু করুন। দেখবেন স্বপ্ন পূরণ হতে সময় লাগবে না। কারণ এমনটা করলে নানাভাবে শরীর থেকে ক্ষতিকর টক্সিক উপাদান বেরিয়ে যেতে শুরু করে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই ত্বক সুন্দর এবং তরতাজা হয়ে ওঠে।

সূত্র : বোল্ডস্কাই