🕓 সংবাদ শিরোনাম

নজরদারির অভাব: শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধ এলাকায় অপরাধীদের আনাগোনা * মুখ ফসকে অনাকাঙ্ক্ষিত শব্দ বেরিয়ে গেছে: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী * মাধবপুরে নিখোঁজের ৩ দিন পর গাছে মিলল ঝুলন্ত দেহ * জিয়া কখনই প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন না: হানিফ * প্রতিরোধ নারায়ণগঞ্জ থেকে শুরু হবে, খেলায় আমরাই জিতব: শামীম ওসমান * সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত * স্কুলছাত্রের ঘরে ঢুকে দরজা আটকালেন কলেজছাত্রী, রাত গভীরে গ্রাম্য সালিসে হলো বিয়ে * সালথায় আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘরে চাঁদাবাজি, আটক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের স্বামী * বুড়িগঙ্গা নদীতে নৌকা চলে, মাঝিদের জীবন চলে না * চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডে ও উত্তরায় গার্ডার পড়ে প্রাণহানিতে প্রধানমন্ত্রীর শোক *

  • আজ মঙ্গলবার, ১ ভাদ্র, ১৪২৯ ৷ ১৬ আগস্ট, ২০২২ ৷

কুড়িগ্রামে নন-এমপিও ভুক্ত কলেজকে জাতীয়করণ করার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও স্বারক লিপি প্রদান


❏ শনিবার, জুলাই ১৬, ২০১৬ দেশের খবর, রংপুর

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় নন-এমপিও মহাবিদ্যালয় জাতীয় করণের প্রতিবাদ এবং ফুলবাড়ী ডিগ্রি কলেজকে জাতীয় করণের দাবীতে মানববন্ধন ও প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে শিক্ষার্থী, অভিভাবক, শিক্ষক, কর্মচারী, এলাকাবাসী। আজ শনিবার দুপুরে উপজেলা শহরের তিন মাথা মোড়ে মানববন্ধনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, ফুলবাড়ী ডিগ্রি কলেজনহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সর্বস্তরের মানুষ এতে অংশ নেন।

fulbari

মানববন্ধনে ফুলবাড়ী ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আমিনুল ইসলাম রিজুর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, পরিচালনা কমিটির সভাপতি আজিজার রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি শাহজাহান আলী বাদশা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম রব্বানী, ডাঃ শাহাদত হোসেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক গোলাম ফারুক সরকার টুকু, উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম প্রমূখ।

মানববন্ধনে বক্তারা অভিযোগ করেন, সরকারী শর্ত পূরণ না করে একটি কুচক্রীমহল ষড়যন্ত্র করে সাইফুর রহমান মহাবিদ্যালয়কে জাতীয়করণের চক্রান্ত করছে। বক্তারা বলেন, ১৯৭৩ সালে সাড়ে ৫ একরের বেশি জমিতে স্থাপিত হয় ফুলবাড়ি ডিগ্রি কলেজ। বর্তমানে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার ছাত্রছাত্রী পড়াশুনা করছে। এই কলেজে ৭৫ জন শিক্ষক-কর্মচারী মন্ডলি কর্মরত আছেন। এই প্রতিষ্ঠানকে বাদ দিয়ে শহর থেকে ৮ কিঃ মিঃ দূরে ২০০০ সালে টিনসেডের ঘড়ে স্থাপিত নন-এমপিও ভুক্ত সাইফুর রহমান মহাবিদ্যালাটকে জাতীয়করন করা হয়েছে। যাহা কোন ভাবেই গ্রহনযোগ্য নয়। সাইফুর রহমান মহাবিদ্যালটিতে দুই থেকে আড়াইশ ছাত্রছাত্রীর জন্য প্রায় ১০ জন শিক্ষক-কর্মচারী কর্মরত আছেন।

এছাড়াও বক্তারা সাইফুর রহমান মহাবিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ রফিকুল ইসলাম বর্তমানে ফুলবাড়ি ডিগ্রি কলেজের বাংলা বিভাগের সহকারি অধ্যাপক হিসেবে পাঠদান দিয়ে আসছেন বলে জানান। সাইফুর রহমান মহাবিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করায় শিক্ষা নিয়ে সরকারের মহৎ উদ্দেশ্যে বাঁধা গ্রস্থ হবে বলে বক্তারা বলেন। দ্রুত ফুলবাড়ি ডিগ্রি কলেজকে জাতীয় করণে সরকারকে পদক্ষেপ নেবার দাবী জানান।

মানববন্ধন শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দেবেন্দ্রনাথ উরাঁও এর মাধ্যমে সরকারী নীতিমালার আলোকে ফুলবাড়ী ডিগ্রি কলেজ জাতীয়করণের দাবীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন কলেজ কর্তৃপক্ষ।