মিয়ানমারের সাথে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

momen
❏ বুধবার, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২১ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- মিয়ানমারের সাম্প্রতিক অভ্যুত্থানের ফলে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে তাদের সাথে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না। এ অবস্থায় ঝুলে গেছে ৪ ফেব্রুয়ারি জয়েন্ট ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকও। বিকল্প উপায় হিসেবে চীনের সাথে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ।

বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, নিরাপত্তা পরিষদে ভেটো দেওয়ার পরও এখন রোহিঙ্গা সংকটে চীনের ওপর আস্থায় রাখছে বাংলাদেশ।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, চীনের মাধ্যমে মিয়ানমারের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করছে বাংলাদেশ। কারণ দেশটির সাথে সরাসরি যোগাযোগ করা যাচ্ছে না। আশা করা হচ্ছে মিয়ানমারের বন্ধু চীন একটি উপায় খুঁজে বের করবে।

ভিন্ন এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের বন্ধু রাষ্ট্র বিশেষ করে পশ্চিমা অনেক দেশ শঙ্কা করছে মিয়ানমারের বর্তমান পরিস্থিতিতে ওপর থেকে আবারও নতুন করে আসতে পারে রোহিঙ্গারা। কিন্তু তাদের গ্রহণ করবে না বাংলাদেশের জনগণ। এ জন্য সীমান্তে কড়াকড়ি বাড়ানো হয়েছে৷

ড. মোমেন জানান, মিয়ানমারের সামরিক শাসন থাকলেও আমরা রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে আলোচনা চালিয়ে যাবো। আমরা এখনো রোহিঙ্গা সংকটে চীনের উপর আস্থা রাখছি।

এসময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আল–জাজিরার সম্প্রচার বন্ধ করার কোনো পরিকল্পনা সরকারের নেই। তিনি বলেন, আল-জাজিরা যে প্রতিবেদন সম্প্রচার করেছে, তা একটি মিথ্যা প্রতিবেদন। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি বিবেচনা করা হচ্ছে।