🕓 সংবাদ শিরোনাম

যে নেতার নিজের মা মরে মরে, তাকে দেখতে আসে না আর আপনার জন্য আসবে কোন দুঃখে: শামীম ওসমান * কেরানীগঞ্জে প্যাকেজিং কারখানায় আগুন, ৩ ঘন্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে * পুলিশের উদ্ধার করা মাদক ছিনিয়ে নিয়ে প্রকাশ্যে খেল মাদকসেবীরা! * চাঁদা না দেয়ায় দোকানে হামলা ভাংচুর, ব্যবসায়ীকে মারধর * ধরাছোঁয়ার বাইরে মূল আসামিরা, মামলা তুলে নিতে হত্যার হুমকি * ভারতকে অনুরোধ করার দায়িত্ব কাউকে দেয়া হয়নি : ওবায়দুল কাদের * বঙ্গবন্ধু ভ্রাম্যমাণ রেলওয়ে জাদুঘর এখন ফরিদপুরে * কোটালীপাড়ায় একদিনে দু’জনের আত্মহত্যা * রাজবাড়ীতে মারামারি মামলায় সাংবাদিকসহ ২জন গ্রেফতার * নারায়ণগঞ্জে প্রাইভেটকারচাপায় পথচারীর মৃত্যু *

  • আজ শনিবার, ৫ ভাদ্র, ১৪২৯ ৷ ২০ আগস্ট, ২০২২ ৷

চিতাবাঘকে মেরে মাংস খেয়ে বনভোজন করেছে পুরো গ্রামবাসী!

চিতাবাঘকে মেরে
❏ রবিবার, মার্চ ১৩, ২০২২ চিত্র বিচিত্র

চিত্র-বিচিত্র ডেস্ক: বনের হিংস্র চিতাবাঘ লোকালয়ে এসে ফেঁসে গিয়েছিলো গ্রামবাসির হাতে। এলাকার সবাই মিলে চিতাবাঘটিকে মেরেই ক্ষ্যান্ত হননি বরং রীতিমতো পিকনিকের আয়োজন করেছেন চিতাবাঘের মাংস রান্না করে খেয়ে।

তবে বাঘটিকে মেরে তিন যুবক বাঘের পাশে দাঁড়িয়ে সেলফি তুলে সামাজিক মাধ্যমে দিতেই বেরিয়ে আসে ঘটনা । নড়ে চড়ে বসে প্রশাসন।এ হৈ হুল্লোড় পড়ে গেলে ভারতের শিলিগুড়িতে চিতাবাঘ মেরে মাংস খাওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় তিনজনকে।

শনিবার (১২ মার্চ) ভারতের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, শিলিগুড়ির ফাঁসিদেওয়ায় চিতাবাঘের মাংস রান্না করে খাওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত অনেকেই। প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, পুরো গ্রামের বাসিন্দারা চিতাবাঘের মাংস খেয়েছেন। তবে তাকে মারা হয়েছিল কিনা তা এখনো স্পষ্ট নয়। ইতোমধ্যে চিতাবাঘের চামড়া ও পা পরীক্ষার জন্য নিউ আলিপুর জিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়ায় পাঠানো হয়েছে।

এর আগে সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া একটি পোস্ট থেকে বিষয়টি জানতে পারেন বনদফতরের কর্মকর্তারা। তাতে দেখা যায়, মৃত চিতাবাঘের পাশে দাঁড়িয়ে কয়েকজন যুবক। ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয় ওই পোস্ট। আর এর সূত্র ধরেই চিতাবাঘের ছালসহ গ্রেফতার করা হয় দুজনকে। জিজ্ঞাসাবাদে আরো একজনের নাম জানতে পারে পুলিশ। তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে চিতাবাঘের পা।

বন দফতর জানিয়েছে, ওই ঘটনার পর ফাঁসিদেওয়ার কমলা চা বাগানের রায় লাইনে রীতিমতো ভোজের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। পুরো গ্রামের বাসিন্দারা সেই চিতাবাঘের মাংস খেয়েছেন। এ সময় বেশ কয়েকজন বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন। তাদের রীতিমতো প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ রয়েছে।

গ্রেফতার তাপস খুড়া (২০), মুকেশ খেড়কাট্টা (১৮) ও পিতালুস খেড়কাট্টাকে (২৪) শনিবার আদালতে তোলা হয়েছিল। তাদের দাবি চিতাবাঘটি মৃত ছিল। আর চিতাবাঘটি ‍মৃত হলে বন দফতরে খবর দেওয়া হলো না কেন? কোনোকিছুই এখনো স্পষ্ট নয়।

এর আগে চিতাবাঘের চামড়া ৮০ হাজার টাকায় নেপালে পাচারের আগে বনদফতর ও সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনী অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে।