🕓 সংবাদ শিরোনাম

যে নেতার নিজের মা মরে মরে, তাকে দেখতে আসে না আর আপনার জন্য আসবে কোন দুঃখে: শামীম ওসমান * কেরানীগঞ্জে প্যাকেজিং কারখানায় আগুন, ৩ ঘন্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে * পুলিশের উদ্ধার করা মাদক ছিনিয়ে নিয়ে প্রকাশ্যে খেল মাদকসেবীরা! * চাঁদা না দেয়ায় দোকানে হামলা ভাংচুর, ব্যবসায়ীকে মারধর * ধরাছোঁয়ার বাইরে মূল আসামিরা, মামলা তুলে নিতে হত্যার হুমকি * ভারতকে অনুরোধ করার দায়িত্ব কাউকে দেয়া হয়নি : ওবায়দুল কাদের * বঙ্গবন্ধু ভ্রাম্যমাণ রেলওয়ে জাদুঘর এখন ফরিদপুরে * কোটালীপাড়ায় একদিনে দু’জনের আত্মহত্যা * রাজবাড়ীতে মারামারি মামলায় সাংবাদিকসহ ২জন গ্রেফতার * নারায়ণগঞ্জে প্রাইভেটকারচাপায় পথচারীর মৃত্যু *

  • আজ শনিবার, ৫ ভাদ্র, ১৪২৯ ৷ ২০ আগস্ট, ২০২২ ৷

সিনিয়র সচিব কে এম আলী আজমকে বই উপহার দিলেন আজিজুর রহমান আজিজ


❏ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৭, ২০২২ শিল্প-সাহিত্য

নিজস্ব প্রতিবেদক, সময়ের কণ্ঠস্বর: বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের গৌরবজনক ভূমিকা আমাদের ইতিহাসের অংশ। ১৯৭১ এ ত্রিপুরাবাসীর সাথে সাথে সেখানকার গণমাধ্যমগুলোও আমাদের স্বাধীনতা যুদ্ধে অবদান রেখেছিল। যুদ্ধ ক্ষেত্রের তথ্য বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরে মুক্তিযুদ্ধে আমাদের স্বপক্ষে অবস্থান নেওয়ার কাজটিকে যারা ত্বরান্বিত করেছে, এমনই একটি গণমাধ্যম ‘দৈনিক সংবাদ’।

৭১’র মার্চ থেকে শুরু করে ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিনই পত্রিকাটি মুক্তিযু্দ্ধের খবর প্রকাশ করেছিল। যা আমাদের মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপট বিশ্ব দরবারে উঠে আসে। সেই সময়কার প্রকাশিত মুক্তিযুদ্ধের খবর ও লেখাগুলো বাছাই করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে তিন খণ্ডে বই আকারে নিয়ে আসা হয়েছে।

‘ত্রিপুরার ‘সংবাদ’-এ বাংলাদেশ একাত্তর’ শিরোনামের এই বইটি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কে এম আলী আজমকে উপহার দিয়েছেন সম্পাদনা পর্ষদের সভাপতি, সাবেক সচিব ও বাংলাদেশের প্রথম প্রধান তথ্যকমিশনার আজিজুর রহমান আজিজ।

বুধবার (০৬ এপ্রিল) দুপুরে মন্ত্রণালয়ে কে এম আলী আজমের হাতে তিন খণ্ডের বইটি  হস্তান্তর করেন তিনি। এ সময় সিনিয়র সচিব ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, আমি তিন খণ্ডের বইটি উপহার পেয়ে আবেগাপ্লুত ও ভীষণ খুশি হয়েছি। পৃথিবীজুড়ে অনেক পত্রিকা এসেছে কিন্তু এরকমভাবে একই জায়গায় একই পত্রিকায় প্রকাশিত লেখাগুলো যাদের দীর্ঘদিনের চেষ্টায় এই বইয়ে তুলে ধরা হয়েছে এটি নিঃসন্দেহে ঐতিহাসিক দলিল।