• আজ সোমবার, ৩১ শ্রাবণ, ১৪২৯ ৷ ১৫ আগস্ট, ২০২২ ৷

কাল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেবে ‘আসানি’

jhor
❏ শনিবার, মে ৭, ২০২২ আলোচিত

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক: সুনির্দিষ্ট লঘুচাপ থেকে নিম্নচাপ এবং পরে গভীর নিম্নচাপ থেকে রোববার (৮ মে) বিকেল নাগাদ দক্ষিণ আন্দামান সাগরে অবস্থানরত সুনির্দিষ্ট লঘুচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেবে। বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর ধারণা করছে, এটি ঘূর্ণিঝড় আসানিতে রূপ নেওয়ার পর উড়িষ্যা, পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের খুলনা ও সাতক্ষীরা উপকূলে আঘাত হানতে পারে।

শনিবার (৭ মে) বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. তরিফুল নেওয়াজ কবির এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, ‘এখন পর্যন্ত এটি সুস্পষ্ট লঘুচাপেই আছে। লঘুচাপটি এখন দক্ষিণ আন্দামান সাগরের আশপাশেই অবস্থান করছে এবং সেখানে অবস্থান করেই আরও ঘণীভূত হচ্ছে। এখনও বঙ্গোপসাগরে আসেনি। বিষয়টি সার্বক্ষণিক আমাদের নজরদারিতে আছে।’

এক প্রশ্নের জবাবে তরিফুল নেওয়াজ কবির বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড়টি নিয়ে ভারত, শ্রীলঙ্কাসহ অন্যান্য দেশের আবহাওয়া অফিসের দেওয়া সব তথ্যগুলোই ধারণা। এটা আমরা নিবিড়ভাবে মনিটরিং করছি। নতুন কোনো পরিস্থিতি তৈরি হলেই আমরা আপডেট জানাতে পারব। ধারণা থেকে কিছু বলা ঠিক হবে না। তবে আগামী ১০ থেকে ১২ মের মধ্যে উপকূলে আঘাত হানবে এটা নিশ্চিত।’

লঘুচাপ থেকে নিম্নচাপ ও পরে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে কত সময় লাগবে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আজ বিকেলে সুস্পষ্ট লঘুচাপটি নিম্নচাপে রূপ নিতে পারে। এরপর এটি গভীর নিম্নচাপ হয়ে আগামীকাল বিকেলের দিকে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে।’

এদিকে, বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপ সৃষ্টির কথা নিশ্চিত করেছে ভারতীয় আবহাওয়া অধিদফতর। শুক্রবার দেশটির আবহাওয়া অফিস নিম্নচাপ সৃষ্টির বিষয়টি নিশ্চিত করে। সেই সঙ্গে জানায়, পশ্চিমাঞ্চলীয় নিম্নচাপটি পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এছাড়া আগামী রোববারের মধ্যেই বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’তে রূপ নিতে পারে।

অন্যদিকে, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের ফলে দেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বেড়েছে। শুক্রবার দুপুরের পর থেকে থেমে থেমে বৃষ্টি হয়েছে রাজধানীতে। এর ফলে গরমের তীব্রতা কমে কিছুটা স্বস্তি এসেছে জনজীবনে। বেলা ২টার পর মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হয়। অনেকেই জুমার নামাজ পড়ে বাসায় ফেরার পথে বৃষ্টির কবলে পড়েন। এ অবস্থায় মসজিদ কিংবা দোকানের শেডের নিচে আশ্রয় নিতে দেখা গেছে অনেককেই।