🕓 সংবাদ শিরোনাম

নিজের অশ্লীল ছবি দিয়ে ফেসবুক মেসেঞ্জারে ছাত্রীর ছবি চান অধ্যক্ষ! * ‘চুক্তি বাতিল করেছি’, জানালেন সাকিব * বিয়ের নাটক সাজিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ, থানায় মামলা * পান্থপথের আবাসিক হোটেল থেকে নারী চিকিৎসকের গলাকাটা মরদেহ; গ্রেপ্তার ঘাতক * বিছনাকান্দি পর্যটন কেন্দ্রে রাতের আধারে পাথর চুরি, দিনে ট্রাকে বিক্রি * সিয়েরা লিওনে মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সরকার বিরোধী বিক্ষোভ, নিহত ২৭ * বিবাহ বহির্ভূতভাবে ১০ মাস সংসার! স্ত্রীর স্বীকৃতিতে নারীর অনশন * জাতীয় শোক দিবসে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে : আইজিপি * ম্যাকিয়াভেলির প্রভাবে শেখ হাসিনা, যা প্রয়োজন * ইস্টার আইল্যান্ডঃ অসংখ্য দানব আকৃতির মূর্তি-রহস্যের দ্বীপ! (শেষ পর্ব) *

  • আজ শুক্রবার, ২৮ শ্রাবণ, ১৪২৯ ৷ ১২ আগস্ট, ২০২২ ৷

দুষ্কৃতিকারীদের গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেলার নির্দেশ এমপির, ভিডিও ভাইরাল


❏ শনিবার, মে ৭, ২০২২ Uncategorized

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক: নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ি) আসনের সাংসদ এইচএম ইব্রাহিম দুষ্কৃতিকারীদের গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেলার নির্দেশ দিয়েছেন, এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

৫৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে সাংসদ দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, দুষ্কৃতিকারীদের গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেললে কিছুই হবে না, আপনারা যদি পারেন গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেলুন, আমি হুকুম দিয়ে দিছি। যদি কেউ মামলা করে আমি মামলার ১ নম্বর আসামি হবো।

শুক্রবার (৬ মে) রাতে সোনাইমুড়ীর দেওটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেনের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণ সভায় তিনি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে এমপি ইব্রাহিম বলেন, দুষ্কৃতিকারীদের যেখানেই পাবেন গণপিটুনি দিয়ে জায়গায় মেরে ফেলবেন, আমি হুকুম দিয়ে দিচ্ছি এসব দুষ্কৃতিকারীদের গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেললে কিছুই হবে না। যদি কেউ মামলা করে আমি মামলার ১নং আসামি হবো, আপনারা কি আমার কথা বুঝতে পারছেন। যদি পুলিশ না পারে আমি আপনাদেরকেও বলে গেলাম-যে আপনারা এ সমস্ত দুষ্কৃতিকারী যারা সমাজের মানুষের ঘুম হারাম করে দিচ্ছে, যারা সমাজের মানুষকে অত্যাচার করছে আপনারা তাদের পিটিয়ে মেরে ফেলবেন তাতে কিছুই হবে না। সেই ঘটনায় যদি আসামি হতে হয় আমি আসামি হবো সে ঘোষণা দিয়ে গেলাম।

স্থানীয়দের দাবি, এলাকায় এমপির নিজ দলীয় শক্ত প্রতিপক্ষ থাকায় তিনি নিজের অনুসারীদের উৎসাহ দিয়ে চাঙা রাখতে এমন অগ্রহণযোগ্য বক্তব্য দিয়ে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন বলেন, ‘এমপি সাহেব প্রতিপক্ষকে ভয় দেখাতে গিয়ে এমন বক্তব্য দিয়েছেন। এতে আইনশৃঙ্খলার অবনতি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। ব্যক্তিগত রেষারেষি এখন হানাহানির পর্যায়ে চলে যেতে পারে।’

ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমপি ইব্রাহিমের এমন বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করছেন অনেকেই।

আবদুল কাইয়ুম নামে একজন ফেসবুকে লিখেছেন, ‘সোনাইমুড়ীর আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতি কি এতোই খারাপ যে পিটিয়ে মেরে ফেলতে জনগণকে নির্দেশ দিতে হবে?’

তবে এ বিষয়ে জানতে সাংসদ এইচ এম ইব্রাহিম এর ব্যবহৃত মুঠফোনে কথা বলার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

অনুষ্ঠানে সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হারুনুর রশিদসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের কয়েকশ নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। ওসি হারুনুর রশিদ বলেন, ‘আমি সেখানে উপস্থিত থাকলেও এমপির দেওয়া এমন বক্তব্য খেয়াল করিনি।’