• আজ বৃহস্পতিবার, ১৬ আষাঢ়, ১৪২৯ ৷ ৩০ জুন, ২০২২ ৷

কানের ভেন্যুতে ‘মুজিব’-এর পোস্টার


❏ বুধবার, মে ১৮, ২০২২ আলোচিত, বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক: শুরু হয়ে গেল বিশ্ব চলচ্চিত্রের অন্যতম বড় ও মর্যাদাপূর্ণ আসর কান চলচ্চিত্র উৎসব। ফ্রান্সের সময় সন্ধ্যা ৭টা, বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার রাত ১১টায় উৎসবের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।

রেড কার্পেটে জুরি ও উদ্বোধনী সিনেমার পরিচালক, শিল্পী, কলাকুশলীদের হাঁটার মধ্য দিয়ে শুরু হয় এ আনুষ্ঠানিকতা। নানা দেশের সিনেমা বিভিন্ন পর্যায়ে প্রতিযোগিতা ও প্রদর্শিত হবে এখানে।

এই উৎসবে প্রদর্শিত হবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীনির্ভর ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’র সিনেমার ট্রেলার।

জানা যায়, আগামীকাল (১৯ মে) উৎসবের মার্শে দ্যু ফিল্ম বাণিজ্যিক শাখায় ভারতীয় প্যাভিলিয়নে প্রকাশিত হবে সিনেমাটির ট্রেলার। এর আগে ‘মার্শে দ্যু ফিল্মে’ ভেন্যুর প্রবেশমুখে শোভা পাচ্ছে ঐতিহাসিক গল্পে নির্মিত ‘মুজিব’ সিনেমার কয়েকটি পোস্টার।

যেখানে ১৯৭১ সালের ৭ মার্চে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দেওয়া বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণের মুহূর্তটিই তুলে ধরা হয়েছে সিনেমাটিতে বঙ্গবন্ধু চরিত্রে অভিনয় করা ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় চিত্রনায়ক আরিফিন শুভর মাধ্যমে।

সেখানকার কিছু ছবি ফেসবুকে শেয়ার করেছেন নায়ক আরিফিন শুভ। ইতোমধ্যেই ট্রেলার প্রদর্শন উপলক্ষেই ফ্রান্সে গেছেন এই অভিনেতা। এটিই আরিফিন শুভর প্রথম কানযাত্রা।

শুভ ছাড়াও সিনেমার ট্রেলার প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। মঙ্গলবার (১৭ মে) রাতে একটি ফ্লাইটে ফ্রান্সের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন তিনি। বঙ্গবন্ধুর স্ত্রী শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিশা। মা হওয়ার পর এবারই প্রথম দেশের বাইরে গেছেন তিশা। তার সঙ্গে আছেন স্বামী মোস্তফা সরয়ার ফারুকী এবং একমাত্র মেয়ে ইলহাম নুসরাত ফারুকীও।

‘মুজিব’ সিনেমার ট্রেলার প্রকাশ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত থাকবেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর। এছাড়া সিনেমাটির পরিচালক শ্যাম বেনেগালেরও থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বায়োপিকটি পরিচালনা করেছেন ভারতীয় পরিচালক শ্যাম বেনেগাল। শুরুতে এর নাম দেওয়া হয় ‘বঙ্গবন্ধু’, পরে সেটি বদলে করা হয় ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন (বিএফডিসি) এবং ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের (এনএফডিসি) যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হয়েছে সিনেমাটি। চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়েছে বাংলা ভাষায়।