🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ মঙ্গলবার, ১ ভাদ্র, ১৪২৯ ৷ ১৬ আগস্ট, ২০২২ ৷

যাত্রীর সিটে ড্রাইভার, হেলপারের হাতে স্টিয়ারিং; প্রাণ গেলো নিরীহ যাত্রীর!


❏ রবিবার, মে ২২, ২০২২ Uncategorized, চট্টগ্রাম

কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলায় বাস পুকুরে পড়ে  হারেছ মিয়া (৫০) নামের এক মাছ ব্যবসায়ী মারা গেছেন।

শনিবার সকালে কুমিল্লা-হাসানপুর সড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তি উপজেলার রায়কোট গ্রামের মৃত সিরাজ মিয়ার ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও মৃত ব্যক্তির স্বজনেরা জানান, আজ সকালে হাসানপুর থেকে কুমিল্লাগামী গাড়িটির চালকের সিটে হেলপার বসেই যাত্রা শুরু করেন। মৌকরা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সাবেক চেয়ারম্যান কলিমুল্লাহর মালিকানাধীন ওই বাসের মালিক।

মৎস্য ব্যবসায়ী হারেছ মিয়া মৌকরা গ্রাম থেকে ওই বাসে ওঠেন। বাসটি বিরুলী গ্রামের মসজিদের পাশের পুকুরে পড়ে যায়। এ সময় গাড়িতে থাকা চারজন যাত্রী ছিলেন। অন্য যাত্রীরা সাঁতরে পাড়ে উঠলেও হারেছ মিয়া আটকা পড়েন। পরে ক্রেন দিয়ে বাসটি তুললে হারেছ মিয়ার মরদেহ পাওয়া যায়।

পরে স্থানীয় লোকজন মরদেহ উদ্ধার করে নাঙ্গলকোট উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শাহজাহান মজুমদারের বাড়িতে রাখেন।

স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ, কুমিল্লা থেকে বাঙ্গড্ডা হয়ে হাসানপুর সড়কে চলাচলের জন্য একমাত্র বাস ‘শাহ আলী সুপার’। এই নামের অধিকাংশ গাড়ি সড়কে চলাচলের অনুপযোগী। এ সড়কের বাসচালকদের অধিকাংশেরই ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই। তা ছাড়া গাড়িগুলো কুমিল্লা থেকে বাঙ্গড্ডা এলেই চালকেরা নেমে যান। বাঙ্গড্ডা থেকে হাসানপুর ও আবার ফেরার পথে সড়কের এ অংশে গাড়ি চালান হেলপাররা। যার ফলে প্রতিনিয়তই ঘটছে কোনো না কোনো দুর্ঘটনা।

নাঙ্গলকোট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফারুক হোসেন বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। দুর্ঘটনাকবলিত বাসটি পুলিশ হেফাজতে আছে।