• আজ বৃহস্পতিবার, ১৬ আষাঢ়, ১৪২৯ ৷ ৩০ জুন, ২০২২ ৷

ইউক্রেনের ভবিষ্যৎ স্থির করবে ইউক্রেনীয়রা: পার্লামেন্টে আন্দ্রেজ দুদা

International news
❏ সোমবার, মে ২৩, ২০২২ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  ইউক্রেনের ভবিষ্যৎ স্থির করবে ইউক্রেনীয়রাই— ইউক্রেনের পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে আজ এ কথাই বললেন পোল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেজ দুদা। এখনও শান্তি চুক্তির বিনিময়ে ইউক্রেনের জমি দখলের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে রাশিয়া। দুদা অনুরোধ করেন, কোনও মতেই যেন রাশিয়ার শর্তে ধরা না দেয় ইউক্রেন। তিনি বলেন, ‘‘এ দেশের এক খণ্ড জমিও রাশিয়ার হাতে তুলে দেওয়ার অর্থ গোটা পশ্চিমের গায়ে ক্ষতচিহ্ন।’’

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে প্রায় গোটা ইউরোপ, আমেরিকা কিভের সমর্থনে। তাতে ক্ষুব্ধ মস্কো এক দীর্ঘ ‘নিষিদ্ধ তালিকা’ নিয়ে হাজির হয়েছে। আমেরিকান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে আগেই নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল রাশিয়ায়। আজ রুশ সরকারি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত নয়া তালিকায় আরও কিছু নাম সামনে এসেছে। যেমন ফেসবুক-স্রষ্টা মার্ক জ়াকারবার্গ, হলিউড অভিনেতা মর্গান ফ্রিম্যান, আমেরিকান বিদেশ সচিব অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন, পেন্টাগনের প্রধান লয়েড অস্টিন। মোট ৯৬৩ জন আমেরিকান রয়েছে রুশ নিষিদ্ধ তালিকায়।

ইউক্রেনকে গোড়া থেকে সমর্থন জানিয়ে এসেছে পড়শি দেশ পোল্যান্ড। পশ্চিমে ইউক্রেনের গা ঘেঁষে থাকা এই দেশ কিভের সবচেয়ে কাছের বন্ধু। রাশিয়ার একটানা হুমকিতেও পিছু হটেনি তারা। ইউক্রেন-পোল্যান্ড সুসম্পর্ক ভাঙার চেষ্টাও করেছে রাশিয়া। এ পর্যন্ত সেই কৌশলও কাজে দেয়নি। আজ কিভে পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে দুদা বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নে ইউক্রেনের সদস্যপদের দাবি সম্পূর্ণ ভাবে সমর্থন করে তারা। যুদ্ধ শুরুর পরে তিনিই প্রথম কোনও রাষ্ট্রনেতা ইউক্রেনের পার্লামেন্টে সশরীরে বক্তৃতা দিলেন। দুদার কার্যালয় থেকে সেই ছবি পোস্ট করা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

আজও একটানা রুশ হামলা চলেছে পূর্ব ও দক্ষিণ ইউক্রেনে। দেশের সামরিক ঘাঁটিগুলোকে মূলত নিশানা করা হয়। ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের মুখপাত্র মেজর জেনারেল ইগর কোনাশেনকোভ জানিয়েছে, তিনটি পয়েন্টে আছড়ে পড়েছিল ক্ষেপণাস্ত্র। ১৩টি এলাকা হামলা মোট হামলার শিকার। ডনবাসের চারটি অস্ত্রাগারে হামলা করা হয়েছে। দক্ষিণ ইউক্রেনের মিকোলিভে একটি অ্যান্ডি-ড্রোন সিস্টেমে আছড়ে পড়ে রাশিয়ার রকেট। দক্ষিণ-পূর্ব জ়াপুরিজ়িয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র কিছু সাধারণ মানুষও জখম হয়েছে। মধ্যরাতে হামলা চলে । প্রকাণ্ড বিস্ফোরণের শব্দে ঘুম ভেঙে যায় এলাকাবাসীর। বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে গিয়েছিল। মৃত্যুর খবর অবশ্য নেই।

ডনবাসের এনেরহোডার শহর দখলের পরে নিজেদের মেয়র নিয়োগ করেছে রাশিয়া। একটি বিস্ফোরণ গুরুতর জখম হয়েছেন সেই মেয়র আন্দ্রে শেভচিক। এই শহরের নির্বাচিত মেয়র দিমিত্র ওরলোভ পালিয়ে এসেছেন জ়াপুরিজ়িয়ায়। তিনিই সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন, শেভচিক ও তাঁর দেহরক্ষীরা বিস্ফোরণে জখম হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। তাঁরা ছাড়া আর কেউ জখম হননি। তাই সন্দেহ করা হচ্ছে, শুধুমাত্র এদেরকেই নিশানা করা হয়েছিল। মার্চ মাস থেকে এই শহর রাশিয়ার দখলে। ইউরোপের সর্ববৃহৎ পরমাণু শক্তি কেন্দ্রটি রয়েছে এই শহরে।

পরিস্থিতি যা-ই হোক, সংঘর্ষ থামাতে রাশিয়ার কোনও শর্তেই তারা রাজি হবে না বলে জানিয়েছে ইউক্রেন সরকার। এ-ও জানিয়েছে, নিজেদের জমি রাশিয়ার হাতে তুলে দেওয়ার তো প্রশ্নই নেই। এরই মধ্যে আজ ইউক্রেনের পার্লামেন্ট পাশ হয়েছে একটি বিল। নতুন আইনে রুশ আগ্রাসনের চিহ্ন ‘জ়েড’ ও ‘ভি’ ব্যবহার করা নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এই দু’টি অক্ষর রুশ বর্ণমালায় নেই। ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের সমর্থনে ইংরাজির বর্ণমালার অক্ষর দু’টিকে ব্যবহার করা হচ্ছে। রাশিয়ার সামরিক যানগুলোর গায়ে লেখা থাকছে জ়েড। রকেটের গায়েও আঁকা থাকছে। রাশিয়াকে সমর্থন করে যারা এই অক্ষর দু’টি ব্যবহার করবে, তাদেরকে আইনের আওতায় আনতে এই পদক্ষেপ।