• আজ বৃহস্পতিবার, ১৬ আষাঢ়, ১৪২৯ ৷ ৩০ জুন, ২০২২ ৷

পুতিনকে হত্যার ছক কষেছিল ইউক্রেন!

International news
❏ মঙ্গলবার, মে ২৪, ২০২২ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: রাশিয়ার ‘বিশেষ সামরিক অভিযানের’ প্রেক্ষিতে ইউক্রেনের তরফে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে হত্যার ছক কষা হয়েছিল। হামলাও চালানো হয়েছিল। কিভের একটি ডিজিটাল সংবাদমাধ্যম ‘ইউক্রেনস্কা প্রাভদা’কে এমনই জানিয়েছেন ইউক্রেনের এক শীর্ষ গোয়েন্দাকর্তা। কিরিলো বুদানোভ নামে ইউক্রেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের এক শীর্ষ আধিকারিক এ কথা জানিয়ে বলেছেন, কিন্তু সেই হামলা শোচনীয় ভাবে ব্যর্থ হয়। যদিও হামলার কথা প্রকাশ্যে আনা হয়নি।

বুদানোভকে উদ্ধৃত করে ওই সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে, ‘পুতিনকে খুন করার একটি চেষ্টা করা হয়েছিল। তাঁর উপর হামলাও চালানো হয়। ককেশাসের প্রতিনিধিরা এ কথা জানিয়েছিলেন, তা খুব বেশিদিনের ব্যাপার নয়। এটা মোটেও প্রকাশ্যে জানানোর মতো কোনও খবর না। হামলা সম্পূর্ণ ভাবে ব্যর্থ হয়। কিন্তু ঘটনা হল, সত্যিই এটা ঘটেছিল। আজ থেকে প্রায় দু’মাস আগে ঘটেছিল।’’

কৃষ্ণসাগর ও কাস্পিয়ান সাগরের মধ্যবর্তী এলাকাকে ককেশাস নামে ডাকা হয়। সেখানে আর্মেনিয়া, আজরবাইজান, জর্জিয়া এবং দক্ষিণ রাশিয়ার অংশ রয়েছে।

তবে বুদানোভ যে দাবি করেছেন, তা যাচাই করা সম্ভব হয়নি। ‘ইউক্রেনেস্কা প্রাভদা’ও এই সংক্রান্ত আরও তথ্য দিতে পারেনি। ব্রিটেনের ‘আই নিউজ’ তাদের প্রতিবেদনে এই খবরে সন্দেহ প্রকাশ করেছে। তাদের পাল্টা দাবি, ‘পুতিন অত্যন্ত ছোট ছোট দল নিয়ে ঘোরেন। তিনি যোগাযোগও রাখেন হাতেগোনা মাত্র কয়েক জনের সঙ্গে। তাই এই পরিস্থিতিতে এই ধরনের কোনও চেষ্টার দাবি সন্দেহের উদ্রেক করে।’

তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও পুতিনের শারীরিক অবস্থা এবং তাঁর উপর হামলার চেষ্টার একাধিক দাবিদাওয়া শোনা গিয়েছে। সব দাবিই নস্যাৎ করেছেন পুতিনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু তথা বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো।

যুদ্ধ শুরুর পর ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির উপর একাধিক বার হামলার চেষ্টার দাবি শোনা গিয়েছে। কেবলমাত্র মার্চেই তাঁর উপর তিন বার হামলার চেষ্টা হয়েছিল বলেও দাবি। কিন্তু পূর্ব ইউরোপের বিভিন্ন দেশ এই খবর আগেই কিভে পৌঁছে দিয়েছিল। ফলে হামলা এড়ানো সম্ভব হয়।