🕓 সংবাদ শিরোনাম

মুখ ফসকে অনাকাঙ্ক্ষিত শব্দ বেরিয়ে গেছে: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী * মাধবপুরে নিখোঁজের ৩ দিন পর গাছে মিলল ঝুলন্ত দেহ * জিয়া কখনই প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন না: হানিফ * প্রতিরোধ নারায়ণগঞ্জ থেকে শুরু হবে, খেলায় আমরাই জিতব: শামীম ওসমান * সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত * স্কুলছাত্রের ঘরে ঢুকে দরজা আটকালেন কলেজছাত্রী, রাত গভীরে গ্রাম্য সালিসে হলো বিয়ে * সালথায় আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘরে চাঁদাবাজি, আটক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের স্বামী * বুড়িগঙ্গা নদীতে নৌকা চলে, মাঝিদের জীবন চলে না * চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডে ও উত্তরায় গার্ডার পড়ে প্রাণহানিতে প্রধানমন্ত্রীর শোক * নারায়ণগঞ্জে তেল চোরাই চক্রের ৩ সদস্যকে গ্রেপ্তার *

  • আজ মঙ্গলবার, ১ ভাদ্র, ১৪২৯ ৷ ১৬ আগস্ট, ২০২২ ৷

ফেসবুকে প্রেম; দেখা করতে গিয়ে প্রেমিকের হাতে প্রেমিকা খুন


❏ সোমবার, জুন ২০, ২০২২ আলোচিত বাংলাদেশ, চট্টগ্রাম

নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালীর সোনাইমুড়িতে ফেসবুকে প্রেমের সম্পর্ক গড়ার পর প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে খুন হয়েছেন ফেরদাউস পাখি (৩২) নামের এক নারী।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রেমিক শাহাদাত হোসেন জীবনকে (২৪) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে একটি ডোবা থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত একটি ছুরি ও নিহতের মোবাইলটি উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নিজ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম। এর আগে গতকাল শনিবার রাতে আসামি জীবনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

নিহত ফেরদাউস পাখি নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার দেওটি ইউনিয়নে বাসিন্দা। গ্রেপ্তারকৃত শাহাদাত হোসেন জীবন দেওটি ইউনিয়নের পিতাম্বরপুর গ্রামের শামছুল আলমের ছেলে। তিনি পেশায় একজন রাজমিস্ত্রি।

পুলিশ সুপার জানান, নিহত নারী জান্নাতুল ফেরদাউস পাখির ২০০৮ সালে প্রথম ও ২০১৪ সালে দ্বিতীয় বিয়ে হয়। দ্বিতীয় বিয়ের ৬ মাস পর স্বামীর সঙ্গে তাঁর বিচ্ছেদ হয়ে যায়। চলতি বছরের মে মাসে রাজমিস্ত্রি শাহাদাত হোসেন জীবনের সঙ্গে ফেসবুক মেসেঞ্জারে পরিচয় হয় পাখির। এরই মধ্যে উভয়ের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

সম্পর্কের সূত্র ধরে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পিতাম্বরপুর গ্রামের মিনহাজী বাড়ির এনায়েত উল্যার বসত ঘরের পার্শ্ববর্তী নির্জন স্থানে দেখা করেন তাঁরা। ওই স্থানে নিজেদের মধ্যে সম্পর্কের বিষয়ে বাকবিতণ্ডা একপর্যায়ে জীবন তাঁর সঙ্গে থাকা ধারালো ছুরি দিয়ে প্রথমে পাখির গলা কাটেন। পরে পাখি মাটিতে লুটে পড়লে তাঁর মৃত্যু নিশ্চিত করতে দুই হাত ও দুই পায়ের রগ কেটে দিয়ে পালিয়ে যান। পরদিন বুধবার সকালে স্থানীয়দের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ওই এলাকা থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ সুপার আরও জানান, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসামি শাহাদাত হোসেন জীবনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ছুরি ও নিহতের মোবাইলটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার সঙ্গে আর কেউ জড়িত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। বিকেলে গ্রেপ্তারকৃত আসামির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ডের জন্য আদালতে পাঠানো হবে।