🕓 সংবাদ শিরোনাম

‘আড্ডা প্রিয়’ স্বামীকে দ্বিতীয় বিয়ে করতে বলে অভিমানী স্ত্রীর আত্মহত্যা! * অভিনব কায়দায় প্রেমের ফাঁদে মোটরসাইকেল ছিনতাই, গ্রেপ্তার হলো তরুনী * বরগুনায় ছাত্রলীগ কর্মীদের উপর পুলিশের লাঠিচার্জ: তদন্ত করবে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ * ফরিদপুরে জুট মিলের রোলারে পিষ্ট হয়ে শ্রমিকের মৃত্যু * ফরিদপুরে স্ত্রীর করা মামলায় পুলিশ কর্মকর্তার কারাদণ্ড * মিত্র দেশগুলোকে অত্যাধুনিক অস্ত্র সরবরাহে প্রস্তুত রাশিয়া: পুতিন * যুক্তরাষ্ট্রে আলোকিত নারী কল্যান ফাউন্ডেশনের যাত্রা শুরু * নিখোঁজের দুদিন পর কিশোরের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার * সিআইডি প্রধান হলেন মোহাম্মদ আলী মিয়া * চাঁদাবাজির অভিযোগে আটকের পর গণপিটুনির শিকার পুলিশ কনস্টেবল *

  • আজ মঙ্গলবার, ১ ভাদ্র, ১৪২৯ ৷ ১৬ আগস্ট, ২০২২ ৷

গর্ভপাতের অধিকার রক্ষার দাবিতে আমেরিকার বিভিন্ন প্রদেশে বিক্ষোভ

America news
❏ সোমবার, জুন ২৭, ২০২২ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  কোনও পোস্টারে লেখা, ‘‘যুদ্ধ না নারী, এর পরে কে?’’ কোনওটায় লেখা, ‘‘যাঁর জরায়ু নেই, তাঁর মতামত থাকা উচিত নয়।’’ শনিবার রাতে আমেরিকান সুপ্রিম কোর্টের বাইরের রাস্তায় আন্দোলনকারীরা স্লোগান দিতে দিতে এ ভাবেই বিক্ষোভ দেখালেন।

শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট প্রায় ৫০ বছর আগের ‘রো ভার্সেস ওয়েড’ মামলার রায় বাতিল করায় আমেরিকায় গর্ভপাত নিষিদ্ধ হতে চলেছে। তার জেরে শুক্রবার রাত থেকেই বিভিন্ন প্রদেশে বিক্ষোভ-আন্দোলন শুরু হয়ে যায়। মোমবাতি নিয়ে মিছিল করেন অনেকে। আজ, দু’দিন পরেও সেই বিক্ষোভের আঁচ থামেনি। বরং নতুন করে প্রতিবাদের আগুন ছড়িয়েছে নানা জায়গায়।

ওয়াশিংটন ডিসিতে সুপ্রিম কোর্টের বাইরের জমায়েতে ছিলেন ১৯ বছরের কলেজ পড়ুয়া মিয়া। বললেন, ‘‘একটা মেয়েকে মা হতে বাধ্য করা কাম্য নয়। এই রায় বিরক্তিকর।’’ তবে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে অ্যারিজ়োনা। গর্ভপাতের অধিকার রক্ষার দাবিতে শনিবার মূল প্রশাসনিক ভবনের সামনে বিভোক্ষ দেখাচ্ছিলেন এক দল আন্দোলনকারী। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পক্ষে সওয়াল করে অন্য একটি দলও হাজির হয় সেখানে। পাল্টা প্রতিবাদ জানান তাঁরাও। দু’পক্ষের মধ্যে বচসা বেধে যায়। বিক্ষোভকারীদের কয়েক জন প্রশাসনিক ভবনের কাচের দরজার ঘা দিলে কাঁদানে গ্যাসের গোলা ছুড়তে বাধ্য হয় পুলিশ। সব মিলিয়ে ধুন্ধুমার বেধে যায়। ভবনের ভিতরে তখন প্রশাসনিক বৈঠক চলছে। নিরাপত্তার খাতিরে সরকারি আধিকারিকদের মিনিট কুড়ির জন্যে মাটির তলার বাঙ্কারে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়েযেতে হয়।

সুপ্রিম কোর্ট রায় ঘোষণার দিনেই এই আইন কড়া ভাবে চালু করেছে মিসৌরি। ধর্ষণের ফলে অন্তঃসত্ত্বাদের ক্ষেত্রেও ছাড় মিলবে না সেখানে। তার পর পরেই আলাবামা, আরকানস, কেন্টাকি, লুইজ়িয়ানা, ওকলাহোমা, সাউথ ডাকোটা, উটার মতো আটটি প্রদেশ আইন কার্যকর করেছে। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে অন্তত আরও ছ’টি প্রদেশে গর্ভপাত নিষিদ্ধ হতে চলেছে।

পশ্চিম ভার্জিনিয়ার চার্লসটনে গর্ভপাতের অধিকার ফিরিয়ে দিতে মোমবাতি মিছিল করেন অন্তত ২০০ জন। তাঁদের এক জন কেটি কিনোনিজ়। কেটি ওই প্রদেশের নারী স্বাস্থ্য কেন্দ্রের শীর্ষকর্তা। তিনি বললেন, ‘‘রায় শোনার পরে রাগের চোটে ফোনটা দেওয়ালে ছুড়ে দিয়েছিলাম।’’ কেটি জানান, এই রায়ের প্রেক্ষিতে গর্ভপাতের জন্যে স্লট বুকিং করেছিলেন,এমন ৭০ জন অন্তঃসত্ত্বাকে ফোন করে অ্যাপয়েন্টমেন্ট বাতিল করতে হয়েছে। তাঁরা হয় আর গর্ভপাত করতে পারবেন না অথবা যেখানে এখনওতা নিষিদ্ধ হয়নি, তেমন কোথাওযেতে হবে।

তবে মিনেসোটা, মিসিসিপির মতো কয়েকটি প্রদেশে অন্য ছবিও রয়েছে। মিসিসিপির একমাত্র গর্ভপাত কেন্দ্রটি শুক্রবারেও কাজ বন্ধ করেনি। মিনেসোটায় এখনও গর্ভপাত আইনত স্বীকৃত। গর্ভপাত করাতে যাঁরা সেখানে আসতে চান, তাঁদের আইনি রক্ষাকবচ দিতে একটি বিশেষ নির্দেশ জারি করেছেন গভর্নর টিম ওয়ালজ়। তিনি বলেন, ‘‘জনন-স্বাস্থ্য সংক্রান্ত স্বাধীনতা রক্ষায় আমরা লড়াই চালিয়ে যাব।’’ সুপ্রিম কোর্টের রায়ে হতাশা প্রকাশ করেছেন আমেরিকান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। আগামী মধ্যবর্তী নির্বাচনে বিষয়টি বিলক্ষণ নজরে আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।