🕓 সংবাদ শিরোনাম

পানির দাম ২৫% বাড়ানোর প্রস্তাব ওয়াসা এমডির * জনগণকে রক্ষায় রাজপথ দখলে রাখবো : হাছান মাহমুদ * শ্রীলঙ্কান শিশুদের পাশে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট দল * ১৩ বছর আত্মগোপনে থাকার পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার * নিজের অশ্লীল ছবি দিয়ে ফেসবুক মেসেঞ্জারে ছাত্রীর ছবি চান অধ্যক্ষ! * ‘চুক্তি বাতিল করেছি’, জানালেন সাকিব * বিয়ের নাটক সাজিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ, থানায় মামলা * পান্থপথের আবাসিক হোটেল থেকে নারী চিকিৎসকের গলাকাটা মরদেহ; গ্রেপ্তার ঘাতক * বিছনাকান্দি পর্যটন কেন্দ্রে রাতের আধারে পাথর চুরি, দিনে ট্রাকে বিক্রি * সিয়েরা লিওনে মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সরকার বিরোধী বিক্ষোভ, নিহত ২৭ *

  • আজ শুক্রবার, ২৮ শ্রাবণ, ১৪২৯ ৷ ১২ আগস্ট, ২০২২ ৷

সালথার সেই উপজেলা চেয়ারম্যানের কারাবরণে আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ

Faridpur news
❏ সোমবার, জুলাই ১৮, ২০২২ ঢাকা

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: বীর মুক্তিযোদ্ধা এলেম শেখের বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের মামলায় ফরিদপুরের সালথা উপজেলা চেয়ারম্যান ওদুদ মাতুব্বরের কারাবরণের ঘটনায় আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে।

রবিবার (১৭ জুলাই) বিকেলে সালথা উপজেলা সদরের চৌধুরীপাড়া হতে এ উপলক্ষে একটি আনন্দ মিছিল বের করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাব্বির হোসেন চৌধুরীর বাসভবনের সামনে হতে মিছিলটি বের হয়ে সালথা বাজার এলাকা প্রদক্ষিণ করে। মিছিল শেষে তারা মিষ্টি বিতরণ করেন।

আওয়ামী লীগ নেতা সাব্বির হোসেন চৌধুরী বলেন, আওয়ামী লীগের পদে না থেকেও উপজেলা চেয়ারম্যান ওদুদ মাতুব্বর সালথায় আওয়ামী লীগের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছিল। এরপর সে প্রতিটি এলাকায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে গ্রুপিং সৃষ্টি করে চরম অরাজকতা চালাচ্ছিল। এখন তাকে কারাগারে প্রেরণ করায় সালথাবাসীর মনে স্বস্তি ফিরে এসেছে। তারা আনন্দ মিছিল বের করে মিষ্টি বিতরণ করেছে। তিনি ওদুদ মাতুব্বরের উপযুক্ত বিচার দাবি করেন।

জানা গেছে, গত ৯ জুলাই সালথা উপজেলার গট্টি ইউনিয়নের দিয়াপাড়া গ্রামে বীর মুক্তিযোদ্ধা এলেম শেখের বসতবাড়িতে হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট এবং এলেম শেখ ও তার স্ত্রীকে আহত করার অভিযোগে ওই বীর মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী জয়গুন বেগম বাদী হয়ে সালথা থানায় ওদুদ মাতুব্বর সহ ৩৬ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন।

এরপর ১৩ জুলাই ফরিদপুরের অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ৬ নং আমলী আদালতে হাজির হয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ওদুদ মাতুব্বর সহ ১০ জন আসামি জামিন প্রার্থনা করেন। আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাদের জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

এদিকে গতকাল শনিবার (১৬ জুলাই) ও শুক্রবার (১৫ জুলাই) উপজেলা চেয়ারম্যান ওদুদ মাতুব্বরসহ তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে সংঘর্ষ ও চাঁদাবাজির অপরাধে আরো দুটি মামলা দায়ের করা হয় সালথা থানায়।