🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ মঙ্গলবার, ২৫ শ্রাবণ, ১৪২৯ ৷ ৯ আগস্ট, ২০২২ ৷

ফরিদপুরে গৃহপরিচারিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ

rape 78596
❏ রবিবার, জুলাই ২৪, ২০২২ ঢাকা, দেশের খবর

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরে ১৭ বছর বয়সী এক কিশোরী গৃহপরিচারিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে।

শনিবার (২৩ জুন) ওই গৃহপরিচারিকার মা বাদী হয়ে ফরিদপুর সদরের চাঁদপুর ইউনিয়নের উত্তর বাহিরদিয়া গ্রামের বাসিন্দা শামীম মুন্সী (৩১) নামে ব্যাক্তিকে আসামি করে ফরিদপুর কোতয়ালী থানায় ধর্ষণ ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে এ মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার এজাহার ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ওই কিশোরী শামীম মুন্সীর বাড়িতে গৃহপরিচারিকা হিসেবে কাজ করে। রাতে ওই কিশোরী নিজ বাড়িতে চলে আসে। গৃহপরিচারিকা হিসেবে কাজের সময় শামীম মুন্সি বিভিন্ন সময়ে অশ্লিল কথাবার্তা বলে ওই কিশোরীকে উত্যক্ত করতো। একদিন বাড়িতে অন্য লোক না থাকার সুবাদে শামীম মুন্সী তার শ্লীলতাহানি করে এবং মুঠোফোনে কয়েকটি নগ্ন ছবি তুলে রাখে। এ বিষয়ে কাউকে না জানানোর জন্য শামীম মুন্সী হুমকি দেয়। ফলে ওই কিশোরী বিষয়টি গোপন রাখে।

এরপর শামীম মুন্সী ওই কিশোরীকে মোবাইলে ধারণকৃত ছবি দেখিয়ে এবং তা ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ২০২১ সালের ২ জুন সকালে বাড়ির সদস্যদের অনুপস্থিতিতে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করেন। ছবি ভাইরাল হওয়ার ভয়ে কিশোরী এ বিষয়টি বাড়ির কাউকে জানায়নি। এরপর থেকে শামীম মুন্সী নিজ বাড়ি ও বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করতে থাকে বলে অভিযোগ রয়েছে।

গত ১৯ জুলাই দিবাগত রাত ৩ টার দিকে শামীম কিশোরীর বাড়িতে এসে তার কক্ষে ঢুকে ধর্ষণ করতে গেলে তার মা ও বাবা মেয়ের ঘর থেকে ভিন্ন ব্যক্তির কথার আওয়াজ শুনে মেয়ের ঘরে এলে শামীম মুন্সী পালিয়ে যায়। ওই সময় ওই কিশোরীর বাবা শামীম মুন্সীর বাড়িতে গিয়ে এ ব্যাপারে বিচার চাইলে শামীম মুন্সীর বাড়ির লোকজন তাকে বাড়ি হতে তাড়িয়ে দেয়।

গত ২০ জুলাই দুপুরে ওই কিশোরীকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ফরিদপুরে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে কিশোরী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

ফরিদপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এ জলিল বলেন, এ ব্যাপারে শনিবার শামীম মুন্সীকে আসামি করে ধর্ষণ ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছেন ওই কিশোরীর মা। অভিযোগটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। অভিযুক্ত শামীমকে আটকের চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান।