🕓 সংবাদ শিরোনাম

লালমনিরহাটে সাংবাদিকদের উপর হামলাকারী সেই সাহেদ আলী মন্ডল গ্রেপ্তার * কক্সবাজারে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ২ জন নিহত * পঞ্চগড়ে হিজাব নিয়ে কটুক্তির অভিযোগে শিক্ষক বরখাস্ত * গাজীপুরে দ্রুতযান এক্সপ্রেসের একাধিক বগি লাইনচ্যুত, উত্তর ও পশ্চিমাঞ্চলের ট্রেন চলাচল বন্ধ * ঈশ্বরদীতে রেলস্টেশন থেকে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার * আন্দোলন করুক, কাউকে যেন গ্রেফতার করা না হয়: প্রধানমন্ত্রী * পিরোজপুরে জোয়ারের পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত * পাবনায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদন্ড * বঙ্গোপসাগরে সুস্পষ্ট লঘুচাপ, পটুয়াখালী পৌর শহরসহ নিম্নাঞ্চল প্লাবিত * বুয়েটে পাকিস্তানের প্রেতাত্মারা মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে: জয় *

  • আজ সোমবার, ৩১ শ্রাবণ, ১৪২৯ ৷ ১৫ আগস্ট, ২০২২ ৷

পাটগ্রামে বিয়ের ১১বছর পর যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে মারধরের অভিযোগ

Lalmonirhat news
❏ মঙ্গলবার, জুলাই ২৬, ২০২২ রংপুর

মো. ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলায় বিয়ের ১১ বছর পর যৌতুকের জন গৃহবধূকে অমানবিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ীর লোকজনের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় নির্যাতিতার বাবা আতিয়ার রহমান বাদী হয়ে পাটগ্রাম থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তার শ্বশুরবাড়ি উপজেলার জমগ্রাম (ডাংগাপাড়া) এলাকায়।

অভিযুক্তরা হলেন- ভুক্তভুগীর স্বামী মজিদুল ইসলাম, তার শ্বশুর আমিনুর রহমান, শাশুড়ী মর্জিনা বেগম ও নানী শ্বাশুড়ী জমিলা বেগম।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ ১১ বছর আগে ওই উপজেলার বাউড়া ইউনিয়নের রসুলপুর এলাকার শিল্পী আক্তারের সঙ্গে বিয়ে হয় একই উপজেলার জমগ্রামের মজিদুল ইসলামের। বিয়ের কয়েক বছর পর তার কাছ থেকে যৌতুক চাইতে শুরু করেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন। তা দিতে না পারায় বিভিন্ন সময় পুত্রবধুর ওপর শারীরিক ও মানসিক ভাবে নির্যাতন করতে থাকেন স্বামী ও তার পরিবার।

অভিযোগ উঠেছে, এ বিষয়ে কয়েকবার সমাধানের জন্য স্থানীয় লোকজনদের নিয়ে সালিশ বৈঠক করেন তারা। এমতাবস্থায় গত ২১ জুলাই আবারও যৌতুকের দাবিতে ওই পুত্রবধুকে বেধড়ক মারধর করে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির সদস্যরা। এ সময় বোনকে বাঁচাতে ভাই রব্বানী গেলে তাকে মারধরের হুমকি দেন তারা । নিরুপায় হয়ে জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯-এ কল দিয়ে পুলিশের মাধ্যমে মেয়েকে উদ্ধার করেন বাবা আতিয়ার।

শুধু তাই নয় বিয়ের সময় যৌতুক বাবদ ছেলের পরিবারকে দেড় লাখ দেন গৃহবধূর বাবা আতিয়ার রহমান। তারপরও টাকার লোভ সামলাতে না পেরে যৌতুকের জন্য গৃহবধূর ওপর অমানবিক নির্যাতন চালাতো তারা। তাদের সংসারে একটি ৫ বছরের কন্যা সন্তান রয়েছে।

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য প্রধান অভিযুক্তর সঙ্গে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওমর ফারুক অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করেছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।