🕓 সংবাদ শিরোনাম

বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে দেশকে চল্লিশ বছর পিছিয়ে দিয়েছে: আমির হোসেন আমু * ফরিদপুরে ১৪ দিন ধরে বন্ধ ক্লিনিক, টিকাদান কর্মসূচী চলছে স্কুলের বারান্দায়! * ফার্নেস অয়েলের দাম বাড়ল ১৫% * এবার গাড়িচাপায় প্রাণ গেল তিন মাদরাসাছাত্রের * ভারতে দুই বছর সাজাভোগ শেষে দেশে ফিরল ৮ বাংলাদেশি নারী * পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী মা হতে চলেছে, দুলাভাই গ্রেপ্তার * ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মুখে লাশ নিয়ে বিক্ষোভ * গার্ডার দুর্ঘটনা : ক্রেনচালকসহ গ্রেপ্তার ৯ * ফরিদপুর জেলা কারাগারে নেই কোনো চিকিৎসক, স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে বন্দীরা * পাথর খেকোদের দখলে ডাহুক নদী: নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ, ধ্বংস হচ্ছে ফসলি জমি *

  • আজ বৃহস্পতিবার, ৩ ভাদ্র, ১৪২৯ ৷ ১৮ আগস্ট, ২০২২ ৷

তরুণ উদ্যোক্তা আবেদ সরকারের এগিয়ে যাওয়ার গল্প


❏ রবিবার, জুলাই ৩১, ২০২২ প্রজন্মের ভাবনা

প্রজন্মের ভাবনা ডেস্ক: মানুষ স্বপ্নের পথে অবিচল, স্বপ্নই মানুষের চলার পথের অনুপ্রেরণা। বড় হওয়ার ইচ্ছে, আবেগ, অনুপ্রেরণা সেই সাথে কাঙ্ক্ষিত স্বপ্নের দিকে এগিয়ে যাওয়ার অদম্য ধারাবাহিকতা একজন রিক্ত হস্ত মানুষকেও পৌঁছে দিতে পারে সফলতার চূড়ান্ত সীমানায়। এমন একজন উদ্যমী এবং তরুণ উদ্যোক্তা হলেন আবেদ সরকার। যিনি পড়াশোনার পাশাপাশি ইতিমধ্যে তরুণ উদ্যোক্তা ও ফ্রিল্যান্সার হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলেছেন।

আবেদ ২০০০ সালের ৩ মার্চ নরসিংদী জেলায় জন্মগ্রহণ করে সেখানেই বড় হয়েছেন তিনি। তার বাবার নাম আবুল সরকার এবং মায়ের নাম রোকেয়া বেগম। আবেদের নেশা-পেশা যেন প্রযুক্তি নিয়েই। প্রযুক্তির প্রতি তার ভালোবাসা দিন দিন বাড়তে থাকে। তাই গ্রামের বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে পড়াশোনার পাশাপাশি মাত্র ১৯ বছর বয়সে তার ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার শুরু হয়।

সবার মতো আবেদেরও প্রবল ইচ্ছে থাকায় সব সময় তার মাথায় বিভিন্ন ব্যবসার আইডিয়া ঘুরে বেড়াতো। একসময় তিনি নিজেই একটি অনলাইন ব্যবসা প্রতিষ্ঠার কথা চিন্তা করেন এবং মাত্র ২০ বছর বয়সে ‘স্বাধীন উদ্যোক্তা’ নামে একটি ডিজিটাল এজেন্সি প্রতিষ্ঠা করেন।

আবেদ সরকার বলেন, স্বাধীন উদ্যোক্তা হচ্ছে একটি ডিজিটাল এজেন্সি, যেখানে ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট, ব্যবসায়িক আইডিয়াসহ বিভিন্ন সমাধান পাওয়া যাবে। দেশের ভিতরে ছোট-খাটো, কম-বেশি অনেক স্টার্টআপ কোম্পানি আছে, যারা সঠিক মার্কেটিং-এর কারণে সবাইকে আকৃষ্ট করতে পারেন না। তাই তারা যেন সহজেই ব্যবসাকে দ্রুত প্রসার করাতে পারেন, সে সমাধানই দিচ্ছে স্বাধীন উদ্যোক্তা।

তিনি বলেন, সবার জন্য শুরুটা কখনো সহজ হয় না। তবুও ছোট থেকে বাবা-মা, পরিবারের সমর্থন পেয়েছি বলে অনেক সহজেই আগাতে পেরেছি। প্রযুক্তির প্রতি আমার আলাদা একটা ভালোবাসা ছিল। সেটাই হয়তো আমাকে সাফল্য দিয়েছে।

নতুন তরুণদের উদ্দেশ্যে আবেদ বলেন, আমরা অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচুর সময় ব্যয় করি। যদি সময়টুকু নতুন কিছু শেখার পেছনে ব্যয় করা যেতো তাহলে আমরা অনেকেই হয়তো স্বপ্নের চেয়েও বহুদূর যেতে পারতাম। বর্তমানে অনলাইনে কোটি কোটি ফ্রি রিসোর্স, ইউটিউবে ভিডিও টিউটোরিয়াল ইত্যাদি আছে। তাই শেখার মাধ্যম আগের চেয়ে অনেক সহজ হয়ে গেছে। এখন একটু বৃত্তের বাইরে চিন্তা আর চেষ্টা করলেই হয়তো সুন্দর সুন্দর সব দক্ষতা আয়ত্তে আনা সম্ভব।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে চাকরির অবস্থা কতটা কঠিন, তা হয়তো সবারই জানা। তবে স্কিল বা দক্ষতা থাকলে চাকরির পেছনে দৌড়াতে হবে না। চাকরিই আপনার পিছনে দৌড়াবে।

একটা সময় নিজেই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন কিংবা ইন্টারনেট উদ্যোক্তা হিসেবে সুন্দর ক্যারিয়ার গড়ে তুলতে পারবেন বলে মনে করেন আবেদ সরকার।