ভোলায় সাঁকো থেকে পড়ে দুই শিশু শিক্ষার্থীর মৃত্যু

Bhola news
❏ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ৪, ২০২২ বরিশাল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট (ভোলা): ভোলার চরফ্যাশনে সাঁকো থেকে খালে পড়ে দুই শিশু শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন, উপজেলার জাহানপুর ইউনিয়ন ওমরাবাজ গ্রামের আবু জাহেরের ছেলে নিশাদ (৬) এবং একই এলাকার জামাল উদ্দিনের ছেলে ইয়াছিন (৬)। দুইজনই পশ্চিম ওমরাবাজ আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর ছাত্র।

বুধবার দুপুরে স্কুল থেকে ফেরার পথে উপজেলার জাহানপুর ইউনিয়নের মরকখালী খালের উপর নির্মিত সাঁকো থেকে পড়ে এই দূর্ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় বুধবার দুপুরে শিশু নিশাদ এর মরদেহ উদ্ধার করা হলেও অপর শিশু ইয়াছিনকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। শিশু ইয়াছিনকে খুঁজতে বুধবার থেকেই উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করেন চরফ্যাশন ফায়ার সার্ভিস স্টেশন অফিসার আসাদুজ্জামান। একই সাথে উদ্ধার অভিযানে অংশ নেন বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী ইউনিট।

চরফ্যাশন ফায়ার সার্ভিস স্টেশন অফিসার আসাদুজ্জামান বলেন, ‘বুধবার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। খালের উপর নির্মিত সাঁকোর একপ্রান্তে শিশু নিশাদের জুতা পাওয়া যায়। পরে জুতার সূত্রধরে চরফ্যাশন ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মীরা নিখোঁজের সম্ভাব্যস্থল মরকখালী খালে অনুসন্ধান করেন এবং সাঁকোর ৩০ গজের মধ্য থেকে নিশাদের মরদেহ উদ্ধার করে। কিন্তু আরেক শিশু শিক্ষার্থী ইয়াছিনের কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। ওইদিন থেকে আমাদের উদ্ধার অভিযান অব্যাহত ছিল। পরে বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী ইউনিটকে খবর দেওয়া হয়। তারাসহ অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টায় সাঁকোর ৩ কি.মি দূরে মরকখালি খাল থেকে নিখোঁজ শিশু শিক্ষার্থী ইয়াছিনের মরদেহ উদ্ধার কর হয়।’

পশ্চিম ওমরাবাজ আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অহিদুর রহমান জানান, শিশু নিশাদ এবং ইয়াছিন প্রথম শ্রেণীর ছাত্র। বিদ্যালয় ছুটির পর বাড়ি ফেরার পথে সাঁকো পারাপারের সময় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

শশিভূষণ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান পাটোয়ারী জানান, দুই পরিবারের অভিযোগ না থাকায় শিশুদের মরদেহ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।