এই মাত্র
  • বিপিএলের মাঝে ছুটি পেয়েই ওমরা করতে গেলেন সাকিব
  • গণভোট দেন, হারলে আর কোনো দিন নির্বাচন করব না : হিরো আলম
  • সুদ যেসব ক্ষতি ডেকে আনে
  • পাকিস্তানের রিজার্ভে ধস, আছে মাত্র ১৮ দিনের আমদানি ব্যয়
  • গাড়ি উপহার না পেলে সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করবেন হিরো আলম
  • বিমানের চাকা ফেটে সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরের রানওয়ে বন্ধ
  • শিক্ষকদের ওয়েবসাইট থেকে পড়ানোর পরামর্শ দিলেন শিক্ষামন্ত্রী
  • সর্বত্র সমর্থন পাওয়া দারুণ ব্যাপার, বাংলাদেশ প্রসঙ্গে মেসি
  • জামাতে নামাজ পড়া নিয়ে যা বলেছেন মহানবী (সা.)
  • ঢাকায় বাসচাপায় প্রাণ গেল ব্যবসায়ীর
  • আজ শনিবার, ২২ মাঘ, ১৪২৯ | ৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

    আন্তর্জাতিক

    পাকিস্তানের রিজার্ভে ধস, আছে মাত্র ১৮ দিনের আমদানি ব্যয়

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ডলারের বিপরীতে সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমেছে পাকিস্তানি রুপির মান। গতকাল বৃহস্পতিবার রুপির এ অবনমন হয়। এর ফলে দেশটির বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ তিন বিলিয়ন ডলারের কাছাকাছি পৌঁছেছে। এ অর্থ দিয়ে ১৮ দিনের আমদানি ব্যয় মেটানো সম্ভব হবে। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডনের খবরে বলা হয়, স্থানীয় বিনিয়োগ কোম্পানি আরিফ হাবিব লিমিটেড জানিয়েছে সেন্ট্রাল ব্যাংক অব পাকিস্তানের কাছে ৩ দশমিক ০৯ বিলিয়ন ডলার রয়েছে। গত ২৭ জানুয়ারি রিজার্ভ ১৬ শতাংশ কমে এ পরিমাণে দাঁড়িয়েছে। এ পরিমাণ ডলার দিয়ে ১৮ দিনের আমদানি ব্যয় মেটানো যাবে। ২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারির পর রিজার্ভের পরিমাণ এবারই এত নিচে নামল। ১৯৯৮ সালের পর এত কম দিনের আমদানি ব্যয় মেটানোর মতো রিজার্ভ দেখেনি পাকিস্তান। এদিকে, অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে  আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) কাছে সাত বিলিয়ন ডলার ঋণ চেয়েছে পাকিস্তান। তবে আইএমএফ এ জন্য যেসব শর্ত দিয়েছে তাকে ‘কঠিন’ বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ। তবে দেশের প্রয়োজনে তা মেনে নিতে হবে বলেও জানান তিনি। গত কয়েক মাস ধরে ঋণের ব্যাপারে আইএমএফের সঙ্গে পাকিস্তান সরকারের আলোচনা বন্ধ ছিল। সম্প্রতি সে স্থবিরতা কাটিয়ে আবারও আলোচনা শুরু করে দুই পক্ষ। গত মঙ্গলবার আইএমএফের একটি প্রতিনিধি দল পাকিস্তানে পৌঁছায়। পাকিস্তানকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার ক্ষেত্রে কয়েকটি শর্ত বেঁধে দিয়েছে আইএমএফ। এসবের মধ্যে আছে কর বাড়ানো ও ভর্তুকি কমানো। এ শর্তে পাকিস্তান সরকার আশঙ্কা করছে, আগামী অক্টোবরের নির্বাচনকে সামনে রেখে এ ধরনের সিদ্ধান্ত জনগণের মধ্যে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া তৈরি করতে পারে। আজ শুক্রবার দেওয়া এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে শেহবাজ শরিফ বলেন, ‘আমি বিস্তারিত প্রসঙ্গে যাচ্ছি না। শুধু বলব, আমরা অকল্পনীয় অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জের মধ্যে আছি। আইএমএফের যে শর্তগুলো আমাদের মানতে হবে তা ধারণাতীত। তবে আমাদের শর্তগুলো মেনে নিতে হবে।

    পাকিস্তানের মসজিদে আত্মঘাতী হামলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯০

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পাকিস্তানের পেশোয়ারে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে। ইতোমধ্যেই ওই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ৯০ জনের। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৫০ জন। এমনটাই জানা গিয়েছে হাসপাতাল সূত্রে।  সোমবার দুপুরে পেশোয়ারের ওই মসজিদে নামায চলাকালীন ঘটে আত্মঘাতী হামলা। সেই সময় প্রায় ৪০০ জন ছিলেন মসজিদে। তার ফলে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আত্মঘাতী হামলায় এখনও পর্যন্ত যাঁদের মৃত্যু হয়েছে তাঁদের মধ্যে রয়েছেন ২৭ জন পুলিশকর্মীও। সোমবার দুপুরে বিস্ফোরণের ফলে ভেঙে পড়ে মসজিদটির একাংশ। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, এক আত্মঘাতী জঙ্গি ওই মসজিদে ঢুকে বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিল। ঘটনার জেরে আতঙ্ক ছড়ায় এলাকায়। ওই নাশকতার নিন্দা করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও ওই বিস্ফোরণকে ‘জঙ্গিহানা’ বলে তকমা দেন। বিস্ফোরণের কিছু পরেই তার দায় স্বীকার করে তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান (টিটিপি)। বিস্ফোরণে তাঁদের হাত রয়েছে বলে জানিয়ে দেন পাক তালিবান জঙ্গি গোষ্ঠী।

    বেনিনে বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ২২

    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক: পশ্চিম আফ্রিকার দেশ বেনিনের মধ্যাঞ্চলে বাস ও ট্রাকের মধ্যে ভয়াবহ সংঘর্ষে ২২ জন নিহত হয়েছে। সরকার সোমবার (৩১ জানুয়ারি) এ কথা জানিয়েছে। খবর এএফপি’র। এক বিবৃতিতে সরকার জানায়, গত রোববার দাসা-জুমের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে কমপক্ষে ২২ জন নিহত ও আরো বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। আহতদের বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বাওবাব এক্সপ্রেস পরিবহন সংস্থা জানায়, বাসটি ৪০ জন যাত্রী নিয়ে প্যারাকাউ থেকে দক্ষিণের বাণিজ্যিক রাজধানী কোটোনোউ যাচ্ছিল। সংঘর্ষের পর বাসটিতে আগুন ধরে যাওয়ায় অনেক যাত্রী মারা যায়। এভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনার পর বাওবাব এক্সপ্রেস তাদের সকল বাস পরিষেবা বাতিল করে। এদিকে এ দুর্ঘটনার কারণ জানতে তদন্ত শুরু হয়েছে। কর্তৃপক্ষ স্বজনদের জন্য একটি সহায়তা ইউনিট গঠন করেছেন।

    সৌদিতে ৪ দিনের ফ্রি ভিসা চালু

    আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদি আরবে চার দিনের ফ্রি ভিসা চালু করা হয়েছে। এর ফলে ট্রানজিট যাত্রীরা ওমরাহ পালন করা, পবিত্র মদিনার মসজিদে নববী জিয়ারতসহ ৯৬ ঘণ্টার জন্য যেকোনো কাজে সৌদি আরবের যে কোন স্থানে অবস্থান করতে পারবে। এবং এই ভিসার মেয়াদ তিন মাস থাকবে। সোমবার (৩০ জানুয়ারি) সৌদির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে সৌদি প্রেস অ্যাজেন্সি (এসপিএ) এতথ্য জানায়। স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রক্রিয়াকরণের জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ভিসা প্লার্টফমে চলে যাবে এবং সাথে সাথেই একটি ডিজিটাল ভিসা ইস্যু হবে এবং আবেদনকারীর ই-মেইলে ভিসা সংক্রান্ত সকল তথ্য চলে যাবে। এসকল প্রক্রিয়ার জন্য কোন প্রকার ফি দিতে হবে না। সৌদি আরব ভিশন ২০৩০ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে পর্যটনকে বিকশিত করার লক্ষ্যে এই উদ্যোগ হাতে নিয়েছেন ।  চলতি বছরে পর্যটন খাত হতে দেশটি ৫০০ বিলিয়ন সৌদি রিয়াল বিনিয়োগ আশা করছে। ২০১৯ সালের হিসাব অনুযায়ী, সৌদি পর্যটন খাত থেকে বার্ষিক রাজস্ব পায় ২১১ বিলিয়ন সৌদি রিয়ালের অধিক ।

    বাংলাদেশের জন্য ৪.৭ বিলিয়ন ডলার ঋণ অনুমোদন আইএমএফের

    বাংলাদেশের জন্য ৪৭০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ অনুমোদন করেছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। বাংলাদেশ সময় সোমবার রাত ৯টায় অনুষ্ঠিত আইএমএফের নির্বাহী পর্ষদের বৈঠকে এ ঋণ অনুমোদন করা হয়।  আইএমএফের ওয়েবসাইটে ঋণ অনুমোদনের তথ্য জানানো হয়। এছাড়া বিবৃতি দিয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামালও ঋণ অনুমোদনের তথ্য জানান। সংস্থাটির ওয়েবসাইটে বলা হয়, আইএমএফের নির্বাহী বোর্ড বর্ধিত ক্রেডিট সুবিধা (ইসিএফ) বা বর্ধিত তহবিল সুবিধার (ইএফএফ) অধীনে প্রায় ৩ দশমিক ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং আরএসএফ তহবিলের আওতায় ১ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলার ঋণ অনুমোদন করেছে। ৪২ মাস ধরে ধাপে ধাপে এই ঋণের পুরো অর্থ ছাড় করা হবে। এশিয়ার প্রথম দেশ হিসেবে বাংলাদেশ আরএসএফ তহবিলের ঋণ পেল বলে জানিয়েছে আইএমএফ।

    পেরুতে সরকার বিরোধী বিক্ষোভে নিহত ৫৮

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ‘ওদের গুলি শেষ হয়ে যাবে, তা-ও আমরা আমাদের দাবি থেকে পিছু হঠব না।’ ছ’ফুটের মাটির ব্যারিকেড, তার উপর তৈরি হয়েছে অস্থায়ী পোডিয়াম। তাতে দাঁড়িয়েই সমবেত বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশে কথাটা ছুড়ে দিলেন বক্তা। পেশায় তাঁরা প্রত্যেকেই ‘কামপাসিনো’ তথা কৃষিজীবী, কিন্তু এখন তাঁদের উদ্দেশ্য একটাই— যেমন করে হোক নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট দিনা বলুয়ার্তেকে পদত্যাগ করতে বাধ্য করা। প্রায় আট সপ্তাহ আগে শুরু হওয়া এই বিক্ষোভে এখনও পর্যন্ত প্রাণ গিয়েছে ৫৮ জনের। তাঁদের মধ্যে এক জন পুলিশ অফিসারও রয়েছেন। বিক্ষোভের সূচনা হয় ২০২২ সালের ৭ ডিসেম্বর। প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট পেদ্রো কাস্তিয়োকে গ্রেফতার করা হয়। ক্ষমতায় আসেন ভাইস প্রেসিডেন্ট দিনা বলুয়ার্তে। কাস্তিয়োর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি পেরু কংগ্রেস ভেঙে দিতে চেয়েছিলেন। তাঁর গ্রেফতারির পরেই ক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠেন পেরুর মানুষ। বিশেষ করে খেপে উঠেছেন কৃষিজীবী, সাধারণ মধ্যবিত্ত খেটে খাওয়া মানুষ। যাঁরা কাস্তিয়োর অন্যতম সমর্থক। তাঁদের দাবি, কাস্তিয়ো সরে যাওয়ায় সরকারে তাঁদের হয়ে কথা বলার আর কেউ রইল না। বিক্ষোভ দমনে একাধিক কড়া পদক্ষেপ করেছে বলুয়ার্তে সরকার। এমনকি পর্যটনক্ষেত্র মাচু পিচ্চুও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল, তাতে বিপাকে পড়েন বহু পর্যটক। বিভিন্ন জায়গায় জরুরি অবস্থাও জারি করা হয়েছে। এই অবস্থায় দ্রুত নির্বাচনই কমাতে পারে বিক্ষোভ, এমন ধারণা নতুন প্রেসিডেন্টের। যদিও, তা নিয়ে দ্বিমত রয়েছে কংগ্রেসের। এমনিতেই পেরুর আগামী নির্বাচন ছিল ২০২৬ সালে। তা এগিয়ে নিয়ে আসা হয়েছে ২০২৪-এ। শনিবার ২০২৩ সালে নির্বাচন হোক এই মর্মে আবেদন করেছিলেন দিনা, কংগ্রেস তা বাতিল করেছে।

    পাকিস্তানের মসজিদে বিস্ফোরণে নিহত বেড়ে ৩২

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক- পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়ার পেশাওয়ার পুলিশ লাইন্স এলাকার এক মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটেছে। আজ সোমবার দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনালের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।   নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, বিস্ফোরণে অন্তত ৩২ জন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন ১৪৭। আহতদের লেডি রিডিং হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সূত্রের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমটি বলছে, বিস্ফোরণে শব্দ ছিল বিকট। অনেক দূর থেকেও এই শব্দ শোনা গেছে।   নিরাপত্তা কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, আত্মঘাতী হামলাকারী নামাজের সারিতে ছিলেন, সেই সময় তিনি নিজেকে উড়িয়ে দেন। লেডি রিডিং হাসপাতালের মুখপাত্র মোহাম্মদ আসিম বলেন, আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হচ্ছে। তিনি ডনকে বলেছেন, অঞ্চলটি পুরোপুরি ঘিরে রাখা হয়েছে, কেবলমাত্র এ্যাম্বুলেন্সকে ভেতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে। টেলিভিশনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বেলা একটা ৪০ মিনিট নাগাদ মুসল্লিরা যখন জোহরের নামাজ আদায় করছিলেন তখন এই বিস্ফোরণ ঘটে। এই হামলার দায় এখন পর্যন্ত কোনও সন্ত্রাসী গোষ্ঠী স্বীকার করেনি বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এদিকে এই হামলার নিন্দা জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ। এছাড়া নিন্দা জানান পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

    পাকিস্তানে মসজিদে শক্তিশালী বোমা বিস্ফোরণ: নিহত কমপক্ষে ২৮

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পাকিস্তানের উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ খাইবার পাখতুনখোয়ার রাজধানী পেশোয়ারের একটি মসজিদে শক্তিশালী বোমা বিস্ফোরণে অন্তত ২৮ জন নিহত হয়েছেন।  এছাড়া এই বিস্ফোরণে আহত হয়েছেন আরও ১৫০ জনের বেশি। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। সোমবার (৩০ জানুয়ারি) দুপুরে জোহরের নামাজের সময় ওই মসজিদে বোমা বিস্ফোরণ ঘটে। পেশাওয়ারের পুলিশ কমিশনার রিয়াজ মেহসুদ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, মসজিদের ভেতর উদ্ধার কার্যক্রম চলছে। ওই শহরের লেডি রিডিং হাসপাতালের মুখপাত্র মোহাম্মদ আসিম জানিয়েছেন, আহতদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডন জানিয়েছে, নামাজের সময় সামনের সারিতে থাকা অনেক ব্যক্তি ধ্বংস্তূপের নিচে আটকা পড়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। ওই মসজিদে আগে থেকে বোমা পুঁতে রাখা হয়েছিল নাকি কেউ আত্মঘাতী বোমা হামলা চালিয়েছে, তা এখনও জানা যায়নি। এখন পর্যন্ত কেউ হামলার দায় স্বীকার করেনি।

    দ. আফ্রিকায় জন্মদিনের অনুষ্ঠানে বন্দুকধারীর গুলি, নিহত ৮

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: দক্ষিণ আফিকার একটি শহরে জন্মদিন পালনকালে লোকজনের ওপর বন্দুকধারীদের বেপরোয়া গুলিবর্ষণে আটজন নিহত ও তিনজন আহত হয়েছে। সোমবার পুলিশ এ কথা জানিয়েছে। খবর এএফপি’র। পুলিশের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় বন্দর নগরী জিকেবারহায় বাড়ির মালিক রোববার সন্ধ্যায় তার জন্মদিন পালন করার সময় অজ্ঞাতনামা দুই বন্দকধারী সেখানে প্রবেশ করে এবং অতিথিদের লক্ষ্য করে নির্বিচারে গুলি চালানো শুরু করে। আগে এটি পোর্ট এলিজাবেথ হিসেবে পরিচিত ছিল।’ পুলিশ জানায়, বন্দুকধারীরা ‘অতিথিদের উপর এলোপাতাড়ি গুলি চালায়।’ তারা আরো জানায়, সেখানে হামলায় আটজন নিহত ও তিনজন আহত হয়। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং তাদের চিকিৎসা চলছে। বর্তমানে তাদের অবস্থা আশংকাজনক। নিহতদের মধ্যে বাড়ির মালিকও রয়েছে। এ হামলার ঘটনায় ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু হয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় বন্দুক হামলা একটি স্বাভাবিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিশ্বের যেসব দেশে সংঘবদ্ধ সহিংসতায় হত্যার হার সবচেয়ে বেশি সেসব দেশের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

    একাই ৩৩ আসনে লড়বেন ইমরান খান

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের ৩৩ আসনে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে মার্চের ১৬ তারিখ। সবগুলো আসনে তেহরিক-ই-ইনসাফের চেয়ারম্যান ও দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান একাই প্রার্থী হতে যাচ্ছেন। দলটির পক্ষ থেকে এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। ফলে পাকিস্তানের ইতিহাসে এই প্রথম কোনো প্রার্থী এতগুলো আসনে একাই লড়তে যাচ্ছেন। খবর জিও নিউজের। রোববার (২৯ জানুয়ারি) লাহোরে দলের কোর কমিটির বৈঠকের পর এক সংবাদ সম্মেলনে, পিটিআই ভাইস-চেয়ারম্যান শাহ মাহমুদ কোরেশি বলেছেন, ইমরান খান সব আসনে একাই প্রার্থী হবেন। এর আগে এসব আসন থেকে এমরান খানের দলের সদস্যরা পদত্যাগ করেন। বর্তমান ক্ষমতাসীন জোট পাকিস্তান ডেমোক্রেটিক মুভমেন্টের (পিডিএম) এর আগেও একাধিক আসনে নির্বাচন করেছিলেন ইমরান। এর আগে ২০২২ সালের অক্টোবরে অনুষ্ঠিত হওয়া উপনির্বাচনে ৮টি আসন থেকে নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলেন পিটিআই চেয়ারম্যান। এরমধ্যে ৬টিতেই জয় পেয়েছিলেন তিনি। ইমরানের সিদ্ধান্তের বিষয়ে লাহোরে পিটিআই নেতা শাহ মাহমুদ কুরেশি বলেন, জামান পার্কে কোর কমিটি ও সংসদীয় দলের সদস্যদের বৈঠকের পর সব শূন্য আসনে ইমরান খানকে প্রার্থী করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে এবং সিদ্ধান্ত হয়েছে যে পিটিআই নির্বাচনে পুরোপুরি অংশগ্রহণ করবে।

    পুলিশের গুলিতে আহত ভারতীয় মন্ত্রীর মৃত্যু

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক- এক পুলিশ কর্মকর্তার গুলিতে আহত ভারতের ওড়িশা রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী নব কিশোর দাস মারা গেছেন। ভুবেনেশ্বরের একটি হাসপাতালে রোববার তিনি মারা যান। এদিক সকালে রাজ্যের ঝাড়সুগুদা জেলার ব্রজরাজনগরে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাওয়ার সময় তার ওপর এ হামলার ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, সহকারী উপ-পরিদর্শক(এএসআই) গোপাল দাস ওড়িশা রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন। এরমধ্যে দুটি গুলি তার বুকে লাগে। অবস্থা সংকটজনক হওয়ায় আহত মন্ত্রীকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ভুবেনেশ্বরে নেয়া হয়। ব্রজরাজনগর পুলিশের কর্মকর্তা গুপ্তেশ্বর ভৈ সাংবাদিকদের বলেন, গোপালকে স্থানীয়রা ধরে পুলিশে সোপর্দ করেছে। হামলার কারণ এখনও জানা যায়নি। এ ঘটনার কয়েকটি ভিডিওতে দেখা যায়, মন্ত্রী গাড়ি থেকে নেমে অনুষ্ঠাস্থলে যেতে গেলে অনেকেই তাকে ঘিরে ধরে আমন্ত্রণ জানাতে থাকেন। ওই সময়ই পুলিশের পোশাক পরা এক ব্যক্তি তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালান। পুলিশের ধারণা,পুরো ঘটনাই পূর্বপরিকল্পিত ছিল। এ ঘটনায় ইতিমধ্যেই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন ওড়িশা মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক।

    সৌদিতে এক সপ্তাহে বাংলাদেশিসহ ১৬,৩০১ জন অবৈধ প্রবাসী গ্রেফতার 

    আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদির আইন শৃঙ্খলা নিরাপত্তা রক্ষা কর্তৃপক্ষ গত এক সপ্তাহে বাংলাদেশি প্রবাসীসহ বিভিন্ন দেশের ১৬,৩০১ জন অবৈধ প্রবাসীদের সৌদির বিভিন্ন জায়গা হতে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে আবাসিক, কাজ এবং সীমান্ত নিরাপত্তা বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ রয়েছে। আবাসিক নিয়ম লঙ্ঘনের জন্য মোট ৯,২৭৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়, ৪,৩৯৫ জনকে অবৈধ সীমান্ত অতিক্রম করার প্রচেষ্টার জন্য গ্রেপ্তার করা হয় এবং আরও ২,৬৩২ জনকে শ্রম-সম্পর্কিত সমস্যার জন্য আটক করে সৌদির আইন শৃঙ্খলা নিরাপত্তা রক্ষা বাহিনী। প্রতিবেদনে দেখানো হয়েছে যে অবৈধভাবে সৌদিআরবে প্রবেশের চেষ্টা করার জন্য ৫৩২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এবং ৯৫ জন সৌদি থেকে সীমান্ত অতিক্রম করে প্রতিবেশী দেশে যাওয়ার চেষ্টা করলে ধরা পড়ে। সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃত্তিতে বলেছে যে যদি কেউ অবৈধদের পরিবহন সহায়তা এবং আশ্রয় প্রদান সহ সৌদিতে অবৈধ প্রবেশে সহায়তা করবে, তাকে সর্বোচ্চ ১৫ বছরের কারাদণ্ড এবং ১মিলিয়ন সৌদি রিয়াল (২,৬০,০০০ ডলার) পর্যন্ত জরিমানা করা হবে পাশাপাশি অবৈধ কাজে ব্যবহারিত যানবাহন ও সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হতে পারে।  

    ইউক্রেনকে ৩২১টি ট্যাঙ্ক দিচ্ছে পশ্চিমা দেশগুলো

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সরাসরি যুদ্ধক্ষেত্রে না নামলেও ইউক্রেনের জন্য অস্ত্রের ভান্ডার খুলে দিয়েছে আমেরিকা-ইউরোপ। কয়েকশো কোটি ডলারের অস্ত্রের পাশাপাশি পশ্চিমের দেশগুলি একত্রে মোট ৩২১টি শক্তিশালী ট্যাঙ্ক দিচ্ছে ইউক্রেনকে। গতকাল একটি সাক্ষাৎকারে এ কথা জানিয়েছেন ফ্রান্সে নিযুক্ত ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত বাদিম ওমেলচেঙ্কো। জার্মানি পাঠাচ্ছে লেপার্ড ২ ট্যাঙ্ক। আমেরিকা দিচ্ছে তাদের এম১ অ্যাবরামস ট্যাঙ্ক। ব্রিটেন ও পোল্যান্ড জানিয়ে দিয়েছে, তারাও ট্যাঙ্ক পাঠাবে। ইউরোপের আরওকিছু দেশ জানিয়েছে, সীমিতসংখ্যক হলেও তারা ট্যাঙ্ক পাঠাবে। সাধ্য মতো সাহায্য করবে ইউক্রেনকে। অনেকেরই বক্তব্য, এই ভাবে পশ্চিমের একজোট হওয়া ‘বদলে দিতেপারে খেলা’। যুদ্ধ বিশেষজ্ঞ বেন বেরির কথায়, ‘‘ইউক্রেনের হাতে একসঙ্গে এত ট্যাঙ্ক আসা যুদ্ধের গতি বদলে দেবে। আধুনিক সামরিক অস্ত্রের মধ্যে ট্যাঙ্ক গুরুত্বপূর্ণ। শত্রুদের দূরে সরানো, দখল হওয়া জমি পুনরুদ্ধারে সাহায্য করবে।’’ তবে জয়ের কথা জোর দিয়ে বলতে পারছেন না কেউই। কারণ ইতিহাসে ট্যাঙ্ক দিয়ে যুদ্ধজয়ের কোনও নজির নেই। তবে প্রতিরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা এর। ১৯৪০ সালে নাৎসি বাহিনীকে ঠেকাতে ব্রিটিশ ও ফরাসি বাহিনী ব্যবহার করেছিল ট্যাঙ্ক। কিন্তু ইউক্রেনের বক্তব্য, তারা শুধু প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা উন্নত করতে চায় না। তারা দখল হওয়া জমি রাশিয়ার থেকে ছিনিয়ে নিতে চায়। ইউক্রেনকে রুশ দখলমুক্ত করতে চায়। ইউক্রেনের ডাকে সাড়া দিয়ে ব্রিটেন ১৪টি চ্যালেঞ্জার ট্যাঙ্কের পাশাপাশি সেল্‌ফ প্রোপেলড গান, সশস্ত্র যুদ্ধযান ও আরও অস্ত্র পাঠাচ্ছে। আমেরিকা, জার্মানিও অন্যান্য অস্ত্র সাহায্য করছে। পশ্চিমের এ ভাবে রুশ-বিরোধিতা নিয়ে আজ সরব হয়েছে উত্তর কোরিয়া। তারা বলেছে, ‘‘ওয়াশিংটন বিপদসীমা অতিক্রম করে যাচ্ছে।’’ উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উনের বোন কিম ইয়ো জং একটি বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, তাঁরা রাশিয়ার পাশে দাঁড়িয়ে আমেরিকার বিরোধিতা করবেন। তিনি বলেন, ‘‘আমেরিকা যে ভাবে ইউক্রেনকে সামরিক সাহায্য পাঠিয়ে যুদ্ধ পরিস্থিতিকে আরও জটিল করছে, তাতে আমরা গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি।’’ তিনি আরও জানান, পশ্চিমের দেশগুলির এ ধরনের কাজ করার অধিকার বা যৌক্তিকতাথাকতে পারে না।

    ক্যালিফোর্নিয়ায় বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ৩

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক- যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় বন্দুকধারীর গুলিতে অন্তত তিনজন নিহত ও চারজন গুরুতর আহত হয়েছেন। আজ শনিবার লস অ্যাঞ্জেলেসের বেভারলি ক্রেস্টে এ ঘটনা ঘটেছে। লস অ্যাঞ্জেলেস পুলিশ বিভাগের সার্জেন্ট ফ্রাঙ্ক প্রিসিয়াডো এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, স্থানীয় সময় রাত আড়াইটায় এ ঘটনা ঘটেছে। খবর- বার্তা সংস্থা এপির। গুলিবিদ্ধ সাতজনের মধ্যে নিহত তিনজন একটি গাড়িতে ছিলেন। বাকি চারজন বাইরে দাঁড়িয়ে ছিলেন। আহতদের একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। তাদের অবস্থা গুরুতর। হতাহতদের পরিচয় জানায়নি পুলিশ। সার্জেন্ট প্রিসিয়াডো বলেন, কী কারণে গুলি চালানো হয়েছে তা তিনি জানেন না। এ ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য তার কাছে নেই। চলতি মাসে ক্যালিফোর্নিয়ায় এটি চতুর্থ গুলির ঘটনা। লস অ্যাঞ্জেলেসের শহরতলীতে একটি ড্যান্স হলে গুলির ঘটনায় ১১ জন নিহত ও ৯ জন আহতের ঘটনার এক সপ্তাহ পর আজকের গুলির ঘটনা ঘটল। এর আগে গত সোমবার সান ফ্রান্সিসকোর দক্ষিণে মাশরুম খামারে বন্দুকধারীর গুলিতে সাতজন আহত হন। যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে কঠোর আগ্নেয়াস্ত্র আইন লস অ্যাঞ্জেলেসে বিদ্যমান, সেখানে বন্দুক হামলায় মৃত্যুর সংখ্যাও দেশের অন্য স্থানের তুলনায় কম। সাম্প্রতিক এ ঘটনাগুলো তাই একটি বড় দুশ্চিন্তার কারণ হিসেবে গণ্য হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রে ২০২২ সালে টানা তৃতীয় বছরের মতো ছয় শতাধিক বন্দুক সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে।

    স্বামীর সঙ্গে পরকীয়া, যৌনকর্মীকে বিবস্ত্র করে স্ত্রীর ধোলাই

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যৌনকর্মীর সঙ্গে পরকীয়ায় মেতে ছিলেন স্বামী। জানতে পারার পর ওই যৌনকর্মীকে বিবস্ত্র অবস্থায় হাতেনাতে ধরে বেদম ধোলাই দিলেন এক মহিলা। ঘটনাটি থাইল্যান্ডের ফুকেটের। মারধরের ছবি প্রকাশ্যে এসেছে।  ফুকেটে একটি মাসাজ পার্লারে নিয়মিত যাতায়াত ছিল মহিলার স্বামীর। সেখানে এক যৌনকর্মীর সঙ্গে মহিলার স্বামীর বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক তৈরি হয়। সম্প্রতি যৌনকর্মীর সঙ্গে স্বামীর একটি ছবি দেখতে পান স্ত্রী। স্বামীর ফোনে ওই ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি দেখার পরই সন্দেহ বাড়ে স্ত্রীর। স্বামীর পিছু নিয়েছিলেন স্ত্রী। পিছু নিতে নিতে ওই মাসাজ পার্লারে পৌঁছ যান তিনি। সেখানে গিয়ে ওই যৌনকর্মীকে দেখতে পান তিনি। একটি চেয়ারের উপর তোয়ালে পরে বসেছিলেন ওই যৌনকর্মী। অভিযোগ, এর পরই যৌনকর্মীর শরীর থেকে তোয়ালে টেনে নিয়ে সপাটে একের পর এক চড় কষাতে থাকেন ওই মহিলা। মিনিট পাঁচেক ধরে যৌনকর্মীকে বেধড়ক মারধর করেন তিনি। মাসাজ পার্লারে মহিলাকে দেখে পালান তাঁর স্বামী। মারধরের সময় যৌনকর্মী ক্ষমা চান মহিলার কাছে। জানান, ওই ব্যক্তি যে বিবাহিত, তা তিনি জানতেন না। আগামী দিনে এই সম্পর্ক তিনি রাখবেন না বলেও উল্লেখ করেন। কিন্তু তাতে মহিলার রাগ কমেনি। শুক্রবার এই ঘটনার কথা প্রকাশ্যে এসেছে। এই ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে ফুকেট পুলিশ। তবে এই ঘটনায় এখনও কোনও অভিযোগ দায়ের করেননি ওই যৌনকর্মী। মাসাজ পার্লারের মধ্যে আদরপুতুল (সেক্স টয়) রাখা রয়েছে বলে দাবি। পুলিশের তরফে দাবি করা হয়েছে, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

    সৌদিতে পাচারকালে ৩০ লক্ষ ইয়াবা ট্যাবলেট আটক, গ্রেফতার ২

    আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদির শুল্ক কর্মকর্তারা দাম্মামের কিং আব্দুল আজিজ বন্দরের মাধ্যমে আসা কাঠের প্যানেলের একটি চালানে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় প্রায় ৩০ লক্ষ ইয়াবা ট্যাবলেট পাচারকালে আটক করেছে। গতকাল জাকাত ট্যাক্স অ্যান্ড কাস্টমস অথরিটি(জেডএটিসিএ)জানিয়েছে,বিদেশ থেকে আসা একটি চালানে এই ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো পাওয়া গেছে। জাকাত ট্যাক্স অ্যান্ড কাস্টমস অথরিটি(জেডএটিসিএ) নিশ্চিত করেছে যে তারা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরেরসাথে সমন্বয় করে পরিচালিত একটি নিরাপত্তা অভিযানে পরিচালনা করে চালান গ্রহণকারী দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে। কাস্টমস অথরিটি সম্পূর্ণ গোপনীয়তার সাথে নিরাপত্তা মূলক তথ্য এবং অভিযোগ গ্রহণ করেন এবং যারা সঠিক তথ্য দেন তাদেরকে আর্থিক ভাবে পুরস্কার প্রদান করেন ।

    গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের বিমান হামলা

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা গাজা উপত্যকা থেকে দক্ষিণ ইসরায়েলে রকেট নিক্ষেপ করার পর শুক্রবার (২৭ জানুয়ারি) ইসরায়েলি বাহিনী হামলা চালায় বলে জানা গেছে। তবে রকেট হামলার বিষয়ে হামাস এখনো কোনো মন্তব্য করেনি। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম দ্য স্টেটসম্যানের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি), অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি বাহিনীর অভিযানে এ পর্যন্ত ১০ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আন্তঃসীমান্ত সংকট নিয়ে বহু বছর ধরে চলা ইসরায়েল-ফিলিস্তিনি সংঘর্ষে এটি একটি বড় ঘটনা। ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা গাজা উপত্যকা থেকে দক্ষিণ ইসরায়েলে রকেট নিক্ষেপ করার পর শুক্রবার (২৭ জানুয়ারি) ইসরায়েলি বাহিনী হামলা চালায় বলে জানা গেছে।ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা গাজা উপত্যকা থেকে দক্ষিণ ইসরায়েলে রকেট নিক্ষেপ করার পর শুক্রবার (২৭ জানুয়ারি) ইসরায়েলি বাহিনী হামলা চালায় বলে জানা গেছে। গাজা সীমান্তের কাছে ইসরায়েলিদের সতর্ক করার জন্য রকেট হামলার সাইরেন বাজানো হয়েছিল বলে জানা গেছে। ওই সময় বাসিন্দাদের অন্যত্র আশ্রয় নিতে বলা হয়। তবে এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। ইসরায়েলের চ্যানেল-১২ গাজার উত্তরে প্রায় ১২ কিলোমিটার (৭ মাইল) উত্তরে হামাস নিয়ন্ত্রিত শহর অ্যাশকেলনে ইসরায়েলি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের ফুটেজ সম্প্রচার করেছে। কয়েক ঘণ্টা পর ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী জানায়, তারা গাজায় হামলা চালিয়েছে। গাজা সীমান্তের কাছে ইসরায়েলিদের সতর্ক করার জন্য রকেট হামলার সাইরেন বাজানো হয়েছিল বলে জানা গেছে।গাজা সীমান্তের কাছে ইসরায়েলিদের সতর্ক করার জন্য রকেট হামলার সাইরেন বাজানো হয়েছিল বলে জানা গেছে। ফিলিস্তিনি প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ইসরায়েলি যুদ্ধবিমান হামাসের একটি প্রশিক্ষণ শিবির লক্ষ্য করে। তবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। এর আগে ফিলিস্তিনের জেনিন শরণার্থী শিবিরে তাণ্ডব চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) দিনব্যাপী হামলায় ১০ জন নিহত হন। আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন। ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে একজন আল-রাম এলাকার বাসিন্দা, বাকিরা সবাই শরণার্থী শিবিরের বাসিন্দা। ইসরায়েলি যুদ্ধবিমান হামাসের একটি প্রশিক্ষণ শিবির লক্ষ্য করে।ইসরায়েলি যুদ্ধবিমান হামাসের একটি প্রশিক্ষণ শিবির লক্ষ্য করে। এ ঘটনার পর থেকে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। জেনিনে সহিংসতার পর ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা ইসরায়েলের সঙ্গে নিরাপত্তা সমন্বয় শেষ করেছে। এই ঘটনাকে নজিরবিহীন বলে অভিহিত করেছে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ। তাদের অভিযোগ, তেল আবিব সীমা অতিক্রম করেছে। নেতানিয়াহু প্রশাসন আল আকসাকে সিনাগগে পরিণত করতে চায়। এদিকে ঘটনার পর প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু জানিয়েছেন, ইসরাইল চায় না পরিস্থিতির অবনতি হোক, যদিও তিনি নিরাপত্তা বাহিনীকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। জেনিনে সহিংসতার পর ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা ইসরায়েলের সঙ্গে নিরাপত্তা সমন্বয় শেষ করেছে।জেনিনে সহিংসতার পর ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা ইসরায়েলের সঙ্গে নিরাপত্তা সমন্বয় শেষ করেছে। যুক্তরাষ্ট্র, জাতিসংঘ ও আরব কর্মকর্তারা উত্তেজনা কমাতে ইসরাইল ও ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছেন। গত বছরের মার্চ ও এপ্রিলে ইসরায়েলে বেশ কয়েকটি প্রাণঘাতী হামলার পর ফিলিস্তিনের বিভিন্ন শহরে পর্যায়ক্রমে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর অভিযান শুরু হয়। বিশেষ করে বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু ক্ষমতায় আসার পর অধিকৃত পশ্চিম তীরে উত্তেজনা বেড়েছে। সম্প্রতি, ফিলিস্তিনদের নিন্দা ও তীব্র আপত্তি উপেক্ষা করে আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ইতমার বেন-গাভিরের সফর নিয়ে হৈচৈ শুরু হয়।  

    সৌদি আরবে হাই-স্পিড ট্রেন চালাবেন ৩২ নারী চালক

    আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদি আরবের রেলওয়েতে ৩২ জন যোগ্য নারী অপারেটর ১২ মাসের প্রশিক্ষণ সফল ভাবে শেষ করে সৌদির উচ্চ-গতির রেল চালনার কাজে নিযুক্ত করা হয়েছে। সৌদি প্রেস এজেন্সি সোমবার (২৩ জানয়ারি) জানিয়েছে, সৌদি রেলওয়ে পলিটেকনিক ভাবে ব্যাপক প্রশিক্ষণের পর উক্ত নারীরা হারামাইন এক্সপ্রেস ট্রেন চালানোর যোগ্যতা অর্জন করেছে। যা সৌদির পবিত্র শহর মক্কা এবং পবিত্র মদিনার মধ্যে ৪৫৩ কিলোমিটার প্রসারিত বুলেট ট্রেন চালিত হবে। সৌদি রেল কর্তৃপক্ষ একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে যেখানে প্রশিক্ষণে অংশ নেওয়া কিছু নারীকে দেখানো হয়েছে যারা নতুন উদ্যোগের একটি অংশ হতে পেরে কতটা গর্বিত বোধ করেছেন সে বিষয়ে কথা বলেছেন। গত সপ্তাহে, সৌদি আরবের বিনিয়োগ মন্ত্রী খালিদ আল-ফালিহ বলেছিলেন, যে সৌদি আরবের মধ্যে ৮ হাজার কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণ করবে। সৌদি নারীদের সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দেশটির অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য ক্ষমতায়িত করা হচ্ছে, সাম্প্রতিক বছরগুলিতে তাদের গাড়ি চালানোর অনুমোদন এই বৃদ্ধিকে আরও এগিয়ে নিতে একটি প্রধান ভূমিকা পালন করেছে। ২০১৮ সালের আগে, সৌদিতে নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতি ছিল না। সৌদি আরবের নারীরা কর্মশক্তিতে উল্লেখযোগ্য ভাবে অগ্রগতি করেছে। এই প্রবণতা অব্যাহত থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে সৌদি ভিশন ২০৩০ এর অধীনে সরকার তার লক্ষ্যগুলির দিকে কাজ করছে তেলের উপর নির্ভরতা কমাতে। সৌদি আরবে নারীরা এখন পরিবহণ ও লজিস্টিক সেক্টরে পদসহ বিস্তৃত পরিসরে চাকরি নিতে সক্ষম, যা আগে সীমাবদ্ধ ছিল ।

    জাপানে মালবাহী জাহাজ ডুবে নিখোঁজ ১৮

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: জাপানে মালবাহী জাহাজ ডুবে নিখোঁজ ১৮আন্তর্জাতিক ডেস্ক: জাপানের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলে একটি মালবাহী জাহাজ ডুবির ঘটনায় এখনো ১৮ জন নিখোঁজ রয়েছেন। তবে এ ঘটনায় চার ক্রু সদস্যকে উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো উদ্ধারে অনুসন্ধান চালানো হচ্ছে। খবর এএফপি’র। কোস্টগার্ডের একজন নারী মুখপাত্র এএফপি’কে বলেছেন, ‘স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ১৭ মিনিটে চীনের চার নাগরিককে উদ্ধার করা হলেও আমরা অবশিষ্ট ১৮ জনকে উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছি।’ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা আরো বলেন, এ উদ্ধার কাজে সহায়তা করতে ‘একটি বিমান ইতোমধ্যে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে এবং দ’ুটি জাহাজ পথে রয়েছে।’ কোস্টগার্ড জানায়, মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাত ১১টা ১৫ মিনিটের দিকে জাহাজটি থেকে সাহায্যের আবেদন জানানো হয়। জাহাজটি যেখানে অবস্থান করছে সেখানো পৌঁছানো অনেকটা কঠিন ছিল। এটি বর্তমানে একেবারে দক্ষিণ-পশ্চিম জাপানের প্রত্যন্ত এবং জনবসতিহীন ডাঞ্জো দ্বীপপুঞ্জের প্রায় ১১০ কিলোমিটার পশ্চিমে অবস্থান করছে। জাহাজটিতে ১৪ জন চীনা এবং ৮ জন মিয়ানমারের নাগরিক রয়েছে বলে কোস্টগার্ড জানিয়েছে।

    দূষিত শহরের তালিকায় আবারও শীর্ষে ঢাকা

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: জনবহুল শহর ঢাকা আবারো বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে। বুধবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল ৯টায় এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স (একিউআই) স্কোর ৩১৯ নিয়ে শীর্ষে ছিল শহরটি। এসময় ঢাকার বাতাসের মান ছিল ‘ঝুঁকিপূর্ণ’। বায়ুদূষণে দূষিত শহরের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে উজবেকিস্তানের তাসখন্দ। এদিন শহরটির একিউআই স্কোর ২১১। অবশ্য মঙ্গলবার সকালে দূষিত শহরের তালিকায় শীর্ষে ছিল উজবেকিস্তানের এই শহরটি। তবে বুধবার সকালে ঢাকা আবারও শীর্ষে উঠে আসে। সুইজারল্যান্ডভিত্তিক বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান আইকিউ এয়ার দূষিত বাতাসের শহরের এ তালিকা প্রকাশ করে থাকে। মূলত একিউআই স্কোর ১০১ থেকে ২০০ হলে সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য ‘অস্বাস্থ্যকর’ ধরা হয়। অন্যদিকে ২০১ থেকে ৩০০ একিউআই স্কোরকে ‘খুব অস্বাস্থ্যকর’ বলে মনে করা হয় এবং ৩০১ থেকে ৪০০ একিউআই স্কোরকে ‘বিপজ্জনক’ হিসেবে বিবেচনা করা হয়, যা বাসিন্দাদের জন্য গুরুতর স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি করে। বুধবার সকালে ঢাকার একিউআই স্কোর ছিল ৩১৯। বাংলাদেশে একিউআই নির্ধারণ করা হয় দূষণের পাঁচটি বৈশিষ্টের ওপর ভিত্তি করে- বস্তুকণা (পিএম-১০ ও পিএম-২.৫), এনও২, সিও, এসও২ এবং ওজোন (ও৩)। বস্তুকণা পিএম-২.৫ হলো বাতাসে থাকা সব ধরনের কঠিন এবং তরল কণার সমষ্টি, যার বেশিরভাগই বিপজ্জনক। মানব স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক বিভিন্ন ধরনের রোগ যেমন— প্রাণঘাতী ক্যান্সার এবং হৃদযন্ত্রের সমস্যা তৈরি করে পিএম-২.৫। এছাড়া বায়ু দূষণকারী এনও২ প্রধানত পুরোনো যানবাহন, বিদ্যুৎ কেন্দ্র, শিল্প স্থাপনা, আবাসিক এলাকায় রান্না, তাপদাহ এবং জ্বালানি পোড়ানোর কারণে তৈরি হয়।

    ভারতে পরকীয়া সন্দেহে নববধূকে খুন, বাংলাদেশি আটক

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতে নববধূকে হত্যার দায়ে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত ওই ব্যক্তি একজন অবৈধ বাংলাদেশি অভিবাসী এবং পেশায় হার্ডওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার। বোনের স্বামীর সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্ক রয়েছে এমন সন্দেহে বিয়ের ছয় মাসের মাথায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে হত্যা করেন তিনি। এদিকে গ্রেপ্তার হওয়ার পর অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির বাংলাদেশি পরিচয় এবং ভারতে অবৈধভাবে বসবাসের তথ্য বেরিয়ে আসে। মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) পৃথক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া এবং দ্য হিন্দু। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি মাসের মাঝামাঝিতে ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কর্ণাটকের রাজধানী বেঙ্গালুরুতে একটি ফ্লাটে গর্ভবতী স্ত্রীকে হত্যা করেন ওই প্রকৌশলী স্বামী। অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির নাম নাসির হুসেন। বাংলাদেশে পালানোর চেষ্টার সময় গত শনিবার তাকে কলকাতা থেকে আটক করা হয়। টাইমস অব ইন্ডিয়া বলছে, ২২ বছর বয়সী গর্ভবতী গৃহবধূর হত্যার তদন্তে অভিযুক্ত ওই স্বামী অবৈধ বাংলাদেশি অভিবাসী বলে তথ্য সামনে আসার পর তদন্তে নতুন মোড় নিয়েছে। গত শনিবার কলকাতার উপকণ্ঠ থেকে সন্দেহভাজন নাসির হুসেনকে গ্রেপ্তার করে বেঙ্গালুরু শহর পুলিশের দক্ষিণ-পূর্ব বিভাগ। শিলিগুড়ির পার্শ্ববর্তী অঞ্চল দিয়ে বাংলাদেশ সীমান্ত অতিক্রম করতে ব্যর্থ হওয়ার পর কলকাতায় ফেরার সময় আটক হয় অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি। সংবাদমাধ্যমটি বলছে, বেঙ্গালুরু পুলিশ অভিযুক্ত নাসির হুসেনকে ধরার জন্য পশ্চিমবঙ্গের পাঁচটি জেলার পুলিশ বিভাগের সঙ্গে সমন্বয় করে। অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি অত্যন্ত কৌশলে বেঙ্গালুরু থেকে বাংলাদেশ সীমান্ত পর্যন্ত পুলিশের চোখ এড়াতে সক্ষম হয়। পরে সীমান্ত পার হতে ব্যর্থ হয়ে কলকাতায় ফেরার সময় গ্রেপ্তার হন তিনি। নাসির হুসেনের হাতে নিহত ওই স্ত্রীর নাম নাজ খানম। ২২ বছর বয়সী গর্ভবতী এই নারীর পরিবার নাসিরকে পশ্চিমবঙ্গের এতিম ছেলে বলে জানত। তারা জানিয়েছে, পুলিশ তাদের না জানানো পর্যন্ত তারা জানত না যে, নাসির অবৈধ বাংলাদেশি অভিবাসী। প্রাথমিক তদন্ত অনুসারে, নাসির হুসেনের শিক্ষাগত যোগ্যতা তেমন না থাকলেও দীর্ঘদিন কাজ করার কারণে দক্ষ একজন হার্ডওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন তিনি। ২০১৪-১৫ সালে তিনি অবৈধভাবে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে ভারতে আসেন। পরে তিনি কলকাতা, দিল্লি ও গুরগাঁওয়ে কাজ করেন এবং অ্যাপলের তৈরি গ্যাজেটসহ মোবাইল ও ল্যাপটপ পরিচালনার কাজে দক্ষতা অর্জন করেন। নিজের দক্ষতা মূল্যায়নের জন্য বেঙ্গালুরু সঠিক জায়গা বোঝার পর তিন বছর আগে কর্ণাটকের এই রাজধানী শহরে যান অভিযুক্ত নাসির। পরে একটি ভাড়া বাড়িতে থাকার সময় প্রতিবেশী নাজ খানমের সঙ্গে নাসিরের দেখা হয় এবং তারা উভয়ই একে অপরের প্রেমে পড়েন। ছয় মাস আগে নাজ ও নাসিরের বিয়ে হয় এবং স্ত্রীকে হত্যার ২০ দিন আগে বেঙ্গালুরুর সুভাষনগরে একটি ফ্লাটে ওঠেন তারা। পুলিশ জানায়, গত ১৫ জানুয়ারি রাতে নাসির হুসেন তার স্ত্রী নাজ খানমকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এরপর ১৬ জানুয়ারি এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসে। তদন্তে জানা যায়, নাজ খানমের সঙ্গে তার বোনের স্বামী ইলিয়াজ পাশার সম্পর্ক রয়েছে বলে সন্দেহ করেছিলেন নাসির। পরে নাজ গর্ভবতী জানতে পেরে গর্ভপাত করানোর চেষ্টা করেন। নাজ রাজি না হলে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পালিয়ে যায় নাসির।

    যুক্তরাষ্ট্রে আবারো বন্দুক হামলা: হতাহত ৩

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ক্যালিফোর্নিয়ার পর এবার নতুন করে বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের আইওয়া অঙ্গরাজ্যে।  সোমবার আইওয়ার ডেস ময়নিসের একটি কিশোর সংশোধন কেন্দ্র স্টার্টস রাইট হিয়ারে চালানো বন্দুক হামলায় দ’ুজন নিহত ও অপর একজন মারাত্মকভাবে আহত হয়েছে। পুলিশ এ কথা জানিয়েছে। খবর এএফপি’র। ডেস ময়নিসের পুলিশ বিভাগের মুখপাত্র পল পারিজেক বলেছেন, তিন সন্দেহভাজন বন্দুকধারী শিক্ষার্থীদের লক্ষ্য করে গুলি বর্ষণ করলে তিনজন আহত হয়। হাসপাতালে নেয়ার পর দ’ুজন সেখানেই মারা যায়। তিনি বলেছেন, তাদের মৃত্যুর সময়ে স্টার্টস রাইট হিয়ারের কর্মকর্তারা হাসপাতালে উপস্থিত ছিলেন। অস্ত্রোপচারের সময় তারা প্রাণ হারায়। এ সম্পর্কে তিনি আর বিস্তারিত কিছু জানাননি। এদিকে প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে তথ্য পেয়ে পুলিশ একটি গাড়ি আটক করে। সন্দেহভাজন তিন বন্দুকধারী এ গাড়ি করেই পালিয়ে যাচ্ছিল। গাড়িটি যানজটে আটকে গেলে তিন বন্দুকধারীকে আটক করা হয়। এ হত্যাকান্ডের উদ্দেশ্য সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। তবে তা জানতে পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। উল্লেখ্য, শনিবার রাতে ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলসের মন্টেয়ারি পার্ক শহরের এক নাচের ক্লাবে বন্দুকধারীর হামলায় ১১ জন নিহত হয়েছে। পুলিশ ৭২ বছর বয়সী বন্দুকধারীকে ধরতে গেলে সে বন্দুক চালিয়ে আত্মহত্যা করে। 

    সৌদি পর্যটন নিয়ম লঙ্ঘনে ১মিলিয়ন রিয়াল পর্যন্ত জরিমানা ঘোষণা

    আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদিআরবে এখন থেকে পর্যটন খাতে নিয়ম লঙ্ঘন করলে সৌদি ১০ লক্ষ রিয়াল পর্যন্ত জরিমানা করার ঘোষণা দিয়েছে। সৌদি আরবের পর্যটন মন্ত্রণালয় রবিবার একটি সরকারি নোটিশ জারি করে এতে বলা হয় পর্যটন নিয়ম লঙ্ঘন করলে এর ওপরে জড়িতদের নতুন শাস্তি পেতে হবে। মন্ত্রণালয়টি জানিয়েছে যে, এই পদক্ষেপটি সৌদিআরবের পর্যটন খাত বিকাশের প্রচেষ্টাকে পরিপূরক করার জন্য করেছে। মন্ত্রণালয়টি ১০ লাখ সৌদি রিয়াল পর্যন্ত জরিমানা ধার্য করেছে যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২ কোটি ৫০ লক্ষ টাকার সমপরিমাণ এবং এতে আরো বলা হয়েছে আগামী ২৫ মার্চের আগে লাইসেন্স না পাওয়াসহ সকল সুযোগ-সুবিধাগুলো বন্ধ করে দেবার সতর্কও করে দিয়েছে। নতুন এই নিয়মে যে সকল সেক্টরগুলো পড়বে তা হল পর্যটন আবাসন সুবিধা ব্যবস্থাপনা, ট্যুর অপারেটর, সাধারণ ভ্রমণ, পর্যটন পরিষেবা, ভ্রমণ এবং পর্যটন সংস্থা, পর্যটন বাসস্থান বুকিং, পর্যটন পরামর্শদাতা এবং ট্যুর গাইডও এই নিয়মের আওতাভুক্ত থাকবে ।    

    পবিত্র মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদের রাস্তায় বিশ্বের দীর্ঘতম ক্যালিগ্রাফিক ম্যুরাল স্থাপন

    আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদিআরবের পবিত্র নগরী মক্কার সৌন্দর্যায়নে গ্র্যান্ড মসজিদের দিকে যাওয়ার রাস্তায় বিশ্বের দীর্ঘতম ক্যালিগ্রাফিক ম্যুরাল স্থাপন করা হয়েছে। শিল্পী আমাল ফেলেমবানের ডিজাইন করা ৭৫ মিটারের ম্যুরালটি ইতিমধ্যেই মক্কায় শোভা পাচ্ছে এমন অনেক ভাস্কর্য এবং স্থাপনা তৈরি করা হয়েছে যা স্থানীয় কর্তৃপক্ষের দ্বারা চালিত একটি প্রকল্প, নান্দনিক এই সৌন্দর্যময় কর্মগুলো সৌদির ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে তুলে ধরেছে। জানা যায়, ম্যুরাল পেইন্টিংয়ের প্রাচীন শিল্পকে ধরে রাখা এবং প্রচার করতে সৌদির গুরুত্বপূর্ণ, সংস্কৃতি এবং নান্দনিকতাকে চিত্রিত করে এবং পুরানো বিশ্বকে আধুনিকের সাথে সংযুক্ত করে রাখাই মূল লক্ষ্য ।  ম্যুরালগুলিতে আরবি ক্যালিগ্রাফি রয়েছে, যা ইসলামী শিল্পের স্তম্ভ বলা হচ্ছে। এর আগে মক্কার মিউনিসিপ্যালিটি ম্যুরাল আঁকা এবং আরবি ক্যালিগ্রাফি আঁকার প্রতিযোগিতার আয়োজন করে, যা পবিত্র কুরআনের সাথে জড়িত সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য লিখিত ও ভিজ্যুয়াল শিল্প হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে । উল্লেখ্য, উম্ম আল-কুরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিজ্যুয়াল আর্ট বিভাগের একটি দলও শহরের ল্যান্ডস্কেপ উন্নত করতে এ কাজে অংশগ্রহণ করছে।

    সৌদি আরবে কিমাম ইন্টারন্যাশনাল মাউন্টেন পারফর্মিং আর্ট ফেস্টিভ্যাল 

    আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদিআরবের আসির প্রদেশের ৭ টি স্থানে কিমাম ইন্টারন্যাশনাল ফেস্টিভ্যাল ফর মাউন্টেন পারফর্মিং আর্টস অনুষ্ঠানটি গতকাল শুক্রবার (২০ জানয়ারি), প্রদেশটির বিভিন্ন স্থানে অনুষ্ঠিত হয়।    উৎসবের কার্যক্রম গতকাল সন্ধ্যায় আভার আর্ট স্ট্রিটে একটি জমকালো কার্নিভাল কুচকাওয়াজের মাধ্যমে শুরু হয়, অংশগ্রহণকারী তাদের দেশগুলোর জনপ্রিয় ব্যান্ডের পোশাকে অংশগ্রহণের পাশাপাশি সেইসব দেশের সাংস্কৃতিক ও লোকসাহিত্যিক দিকটি অনুকরণ করে আগত দর্শকদের দৃষ্টি আকর্ষণ  করেন।   অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী দেশগুলির বৈশিষ্ট্যযুক্ত ঐতিহ্যবাহী এবং জনপ্রিয় পোশাকের বৈচিত্র্য দেখানো হয়, এতে সৌদি আরবের ১৬টি ব্যান্ড এবং ১৪টি আন্তর্জাতিক ব্যান্ড প্রদর্শন করানো হয় এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ৩২টি পারফরম্যান্স উপস্থাপন করে।   উৎসবটির মূল উদ্দেশ্য ছিল বিশ্বের শিল্প এবং প্রাচীন ঐতিহ্য সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করা এবং দর্শকদের এর ইতিহাস, শিল্পকলা, পদ্ধতি এবং কীভাবে এটি সম্পাদন করতে হয় তার সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়া।

    সৌদি আরবের মসজিদের বাইরের লাউডস্পিকার সীমিত করার নির্দেশ  

    আব্দুল্লাহ আল মামুন,সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদি আরবের মসজিদ গুলোর বাইরের লাউডস্পিকার ব্যবহার সীমিত করার নির্দেশনা জারি করেছে। জানা যায়, ইসলামিক বিষয়ক, দাওয়াত ও নির্দেশনা মন্ত্রী শেখ ডক্টর আব্দুল লতিফ বিন আব্দুল আজিজ আল-শেখ নামাজের (আযান) জন্য মসজিদে ব্যবহৃত বহিরাগত লাউডস্পিকারের সংখ্যা চারটি নির্ধারণ করেছেন। ডঃ আল-শেখ সমস্ত মসজিদ থেকে চারটির বেশি বাহ্যিক লাউডস্পিকার অপসারণ করার নির্দেশ দিয়েছেন এবং অতিরিক্তগুলিকে পরবর্তীতে ব্যবহারের জন্য একটি গুদামে সংরক্ষণ করতে বা পর্যাপ্ত সংখ্যা নেই এমন মসজিদে বিতরণ করার নির্দেশ দিয়েছেন। মন্ত্রী আল-কাসিমে শাখায় স্বেচ্ছাসেবকদের উদ্যোগ প্রদর্শনী চালু করেছেন, যার মধ্যে গভর্নরেটগুলিতে সকল মসজিদ, দাওয়াহ সেন্টার এবং নির্দেশিকাগুলির জন্য প্রশাসন বেশ কয়েকটি প্যাভিলিয়ন অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।এক্সপো বর্তমান এবং ভবিষ্যত স্বেচ্ছাসেবী বিভাগের কৃতিত্ব, প্রোগ্রাম এবং উদ্যোগগুলি প্রদর্শন করে থাকে।

    নিউজিল্যান্ডের নতুন প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন ক্রিস হিপকিনস

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে জেসিন্ডা আরডার্নের পদত্যাগের ঘোষণায় তার স্থলাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন ৪৪ বছর বয়সী ক্রিস হিপকিনস। বর্তমানে তিনি দেশটির পুলিশ, শিক্ষা ও জনসেবা মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। দেশটির একাধিক সূত্রের বরাত দিয়ে শনিবার (২১ জানুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে বিবিসি। ২০০৮ সালে প্রথমবারের মতো পার্লামেন্টের সদস্য হন ক্রিস হিপকিনস। তারপর করোনা মহামারি প্রতিরোধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হন ২০২০ সালের নভেম্বরে। বর্তমানে মহামারি প্রতিরোধ মন্ত্রণালয় ছাড়াও শিক্ষা, জনসেবা ও পুলিশ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হিপকিনস।  আইনপ্রণেতা হিসেবে পার্লামেন্টে আসার আগে ক্রিস শিক্ষামন্ত্রীর উপদেষ্টা ও দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী হেলেন ক্লার্কের কার্যালয়েও কাজ করেছেন। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডার্নের আকস্মিক পদত্যাগের ঘোষণার পর বর্তমানে ক্ষমতাসীন লেবার পার্টির নেতা নির্বাচনে দলের একমাত্র মনোনীত প্রার্থী ক্রিস হিপকিন্স। ফলে জেসিন্ডার উত্তরসূরি হতে যাচ্ছেন তিনিই। তবে এ জন্য রোববার তাকে পার্লামেন্টে লেবার পার্টির আনুষ্ঠানিক সমর্থন পেতে হবে। দলের সমর্থন পাওয়ার পরও প্রধানমন্ত্রী হতে আরও কিছু আনুষ্ঠানিকতা বাকি থাকবে ক্রিসের জন্য। কারণ আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি জেসিন্ডা আনুষ্ঠানিকভাবে গভর্নর জেনারেলের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেবেন। এরপর গভর্নর জেনারেল রাজা তৃতীয় চার্লসের পক্ষে ক্রিসকে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেবেন। সদ্য পদত্যাগী জেসিন্ডা ২০১৭ সালে ৩৭ বছর বয়সে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী হন। তিনি তখন বিশ্বের সবচেয়ে কম বয়সী নারী প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। আগামী ১৪ অক্টোবর দেশটির সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

    গাড়িতে সিটবেল্ট না বাঁধায় ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে জরিমানা

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গাড়ি ভ্রমণের সময় সিটবেল্ট না বাঁধায় জরিমানা গুণতে হচ্ছে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাককে। দেশটির আইন অনুযায়ী তার ওপর জরিমানা ধার্য করা হয়েছে ১০০ পাউন্ড, অর্থাৎ বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৩ হাজার ৮৭ টাকা। দেশটির প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিট শনিবার (২১ জানুয়ারি) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, অনিচ্ছাকৃত এই ভুলের জন্য প্রধানমন্ত্রী অনুতপ্ত ও ক্ষমাপ্রার্থী। জরিমানার অর্থও নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যেই পরিশোধ করবেন তিনি। বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ঘটনার সূত্রপাত সামাজিক যোগাযোগামধ্যমে পোস্ট হওয়া ঋষির একটি ভিডিওচিত্রকে ঘিরে। বর্তমানে যুক্তরাজ্যের ইংল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলে সফর করছেন তিনি। সফরে ল্যাঙ্কাশায়ার জেলার সড়কে চলন্ত গাড়িতে বসা অবস্থায় একটি নিজের ভিডিওচিত্র ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করেন সুনাক। সেখানে দেখা যায়, সিটবেল্ট না বেঁধে গাড়ির পেছনের আসনে বসে আছেন তিনি। স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার ল্যাঙ্কাশায়ার পুলিশ ঋষি সুনাকের নাম উল্লেখ না করে এক টুইটবার্তায় জানায়, ‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে একজনকে সিটবেল্ট না পরেই ল্যাঙ্কাশায়ারের সড়কে কিছু সময় গাড়ি চালাতে দেখা গেছে। আমরা লন্ডনের ৪২ বছর বয়সী ওই ব্যক্তিকে আজ জরিমানা করেছি।’ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একটি সূত্র বিবিসিকে জানিয়েছে গত বৃহস্পতিবার গাড়িতে উত্তর-পশ্চিম ইংল্যান্ডের ল্যাঙ্কাশায়ারে যান ঋষি সুনাক। এ সময় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের পোস্টের উদ্দেশ্যে একটি ভিডিও ধারণ করার সময় অল্প সময়ের জন্য নিজের সিটবেল্ট সরিয়েছিলেন তিনি। ব্রিটেনের আইন অনুযায়ী, চলন্ত গাড়িতে ভ্রমণের সময় সিট বেল্ট না পরাকে অপরাধ হিসেবে ধরা হয়। এক্ষেত্রে তাৎক্ষণিক ১০০ পাউন্ড জরিমানা হতে পারে। আর বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ালে শাস্তিস্বরূপ জরিমানার পরিমাণ হতে পারে ৫০০ ইউরো পর্যন্ত।  সরকারে থাকাকালীন ঋষি সুনাক এই নিয়ে দ্বিতীয়বার নির্দিষ্ট শাস্তির নোটিশ পেলেন।

    খাবার নেই, স্কুলে যাচ্ছে না শ্রীলঙ্কার শিশুরা

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক- বাড়িতে খাবার নেই। তাই স্কুলে আসা বন্ধ করে দিচ্ছে শ্রীলঙ্কার শিশুরা। স্কুলও জানিয়েছে, খাবার না থাকলে বাচ্চাদের পাঠানোর দরকার নেই। ভয়ংকর সমস্যায় পড়েছেন নাদিকা প্রিয়দর্শিনী। নাদিকা শ্রীলঙ্কার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে একটি বস্ত্র কারখানার কর্মী। তিনি বাচ্চাদের স্কুলে পাঠাতে পারছেন না। কারণ, বাড়িতে খাবার নেই। প্রবল অর্থনৈতিক সংকটের মুখে পড়ে, তার পরিবার দিনে এখন একবার কিছু সবজি দিয়ে ভাত খাচ্ছে। কোনো কোনো দিন তাও জুটছে না। বাড়িতে খাবার নেই। চাল ডাল কেনার পয়সা নেই। এই অবস্থায় বাচ্চাদের কী করে স্কুলে পাঠাবেন তিনি? প্রিয়দর্শিনী একা নন, একই অবস্থার মুখে পড়েছেন অনেকে। অভূতপূর্ব আর্থিক সংকটের মুখে পড়ে শ্রীলঙ্কার মানুষের চাকরি গেছে, ব্যবসা লাটে উঠেছে। খাবার, ওষুধ, জ্বালানি কেনার পয়সা নেই বহু পরিবারের। বিদেশি মুদ্রার ভাণ্ডার প্রায় শূন্য। তাই বিদেশ থেকে দানাশস্য আমদানি করা যাচ্ছে না। ২০২১ সালে তড়িঘড়ি করে সরকার অর্গানিক কৃষির উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। তাই এই বছর ৪০ থেকে ৫০ শতাংশ ফসল কম হয়েছে। গত সেপ্টেম্বরে শ্রীলঙ্কায় খাদ্য শস্যের উপর মুদ্রাস্ফীতির পরিমাণ ছিল ৯৪ শতাংশের বেশি। অভূতপূর্ব আর্থিক সংকটের মুখে পড়ে শ্রীলঙ্কার মানুষের চাকরি গেছে, ব্যবসা লাটে উঠেছে।অভূতপূর্ব আর্থিক সংকটের মুখে পড়ে শ্রীলঙ্কার মানুষের চাকরি গেছে, ব্যবসা লাটে উঠেছে। খাবার পাওয়া যাচ্ছে না, পেলেও দাম খুবই বেশি, তাই সবচেয়ে অসুবিধার মধ্যে পড়েছেন প্রিয়দর্শিনীর মতো গরিব মানুষেরা। তারা তাদের প্রতিদিনের আয়ের উপরই বেঁচে থাকেন। ফলে এখন তাদের কাছে বাচ্চাদের স্কুলে পাঠানো সম্ভব হচ্ছে না। গত মাসে শ্রীলঙ্কার ৩৬ শতাংশ পরিবার নিয়মিত খাবার পায়নি। গত জুনে ইউনিসেফ জানিয়েছিল, শ্রীলঙ্কার ৫৬ হাজার বাচ্চা অপুষ্টিতে ভুগছে। বাচ্চারা তাই স্কুলে যেতে পারছে না। খালি পেটে পড়াশুনা হয় না। প্রিয়দর্শিনী ডিডাব্লিউকে জানিয়েছেন, 'স্কুলে কিছু বাচ্চা টিফিনের ব্রেকে খাবার খাচ্ছে। কিন্তু আমার বাচ্চাদের কাছে কোনো খাবার নেই। তাই আমি কী করে ওদের স্কুলে পাঠাব?' তার ১৩ বছর বয়সি ছেলে তাও জোর করে স্কুলে গেছিল। সে বলেছিল, খালি পেটেই সে পড়াশুনা চালিয়ে যেতে চায়। কিন্তু ছয় বছরের মেয়ে কী করে যাবে? ওই বাচ্চা মেয়ে তো খিদে ভুলে পড়তে পারে না। খেতে না পাওয়ার জন্য কতজন বাচ্চা স্কুলে যেতে পারছে না, সেই সংখ্যাতত্ত্ব সরকার দেয়নি। তবে গত জুন মাসে জাতিসংঘের রিপোর্ট জানিয়েছে, সব স্কুলে খাবার দেয়া হয় না, সেখানে বাচ্চারা যাচ্ছে না। ইউনিসেফের মুখপাত্র ডিডাব্লিউকে জানিয়েছেন, কিছু এলকায় স্কুলে বাচ্চাদের যাওয়ার হার কমে দাঁড়িয়েছে ৭৫ থেকে ৮০ শতাংশে। শ্রীলঙ্কার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব তারা ডি মেল জানিয়েছেন, খাবার পেলেই বাচ্চারা স্কুল যাবে। না হলে গ্রামের দিকে বা যে সব স্কুলে গরিব বাচ্চারা পড়ে, সেখানে তারা খালি পেটে স্কুলে যাবে না।

    আমি কেবলই একজন মানুষ: জেসিন্ডা

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক- দেশবাসীকে অবাক করে পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন। বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে অরডার্ন (৪২) চোখের পানি সংবরণ করে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করা সাড়ে পাঁচ বছর কঠিন সময় ছিল। আমি কেবলই একজন মানুষ। আমার এখন সরে দাঁড়ানো দরকার।’ খবর রয়টার্স, বিবিসির। গণমাধ্যমে তিনি আরও বলেন, দেশের নেতৃত্ব দেওয়া অব্যাহত রাখতে তিনি আর ‘সমর্থন চাইবেন না।’ ফেব্রুয়ারির প্রথমদিকেই পদ থেকে সরে দাঁড়াবেন। ১৪ অক্টোবর অনুষ্ঠিত পরবর্তী নির্বাচনেও আর প্রার্থী হবেন না। বলেন, ‘এই গ্রীষ্মে আমি শুধু আরেকটি বছরের জন্য নয়, আরেকটি মেয়াদের জন্য প্রস্তুত হওয়ার একটি উপায় খুঁজে পাওয়ার আশা করেছিলাম-কারণ এই বছরের জন্য এটিই প্রয়োজন। আমি তা করতে পারিনি।’ আরও বলেন, “আমি জানি এই সিদ্ধান্তের পর এর তথাকথিত ‘প্রকৃত’ কারণ কী ছিল তা নিয়ে অনেক আলোচনা হবে কিন্তু আপনারা যা পাবেন তা হলো বড় কিছু চ্যালেঞ্জের মধ্য দিয়ে ছয় বছর পার করার পরও আমি মানুষ। রাজনীতিকরা মানুষ। আমরা যতটা পারি, যতদিন পারি, সবই দিই তারপর সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় আসে। আর আমার জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় এসে গেছে।” নিউজিল্যান্ডের ক্ষমতাসীন লেবার পার্টির নতুন নেতা নির্বাচনের জন্য রোববার ভোট হবে। দলটির নেতা আগামী নির্বাচন পর্যন্ত দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করবেন। নেতা হিসাবে অরডার্নের মেয়াদ ৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে শেষ হবে। জাতীয় নির্বাচন সম্পর্কে তিনি বলেন, আসছে নির্বাচনে লেবার পার্টিই জয়ী হবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন। নিউজিল্যান্ডের উপপ্রধানমন্ত্রী গ্রান্ড রবার্টসন এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, পরবর্তী লেবার নেতা হওয়ার দৌড়ে নামতে চান না। রাজনীতি বিশ্লেষক বেন টমাস বলেছেন, অরডার্নের ঘোষণা বিরাট এক বিস্ময়, কারণ ২০২০-এর নির্বাচনের সময় দেখা তার দলের আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা পরবর্তীতে হ্রাস পেলেও দেশের পছন্দের প্রধানমন্ত্রী হিসাবে সবগুলো জরিপে এগিয়ে আছেন তিনি। অরডার্নের পরিষ্কার কোনো উত্তরাধিকারী নেই বলে জানিয়েছেন টমাস। অরডার্ন জানিয়েছেন, কাজ কঠিন ছিল এর জন্য সরে দাঁড়াচ্ছেন না তিনি, বরং অন্যরা আরও ভালো করবে বলে মনে করেন তিনি। চলতি বছর অরডার্নের কন্যা নেভের স্কুলজীবন শুরু হবে। ওই সময় তিনি কন্যার পাশে থাকার জন্য উন্মুখ হয়ে আছেন, এখন নেভেকে এটি বলতে পারবেন এবং দীর্ঘদিনের জীবনসঙ্গী ক্লার্ক গেফোর্ডকে ‘এখন তাদের বিয়ে করার সময় হয়েছে’ বলে জানাতে পারবেন বলে জানিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী। প্রথম মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়ার পর জেসিন্ডাকে নানা প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়। তার মধ্যে ছিল নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা, আগ্নেয়গিরির প্রাণঘাতী উদ্গিরণ ও করোনা মহামারির চ্যালেঞ্জ। এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখেন জেসিন্ডা। তিনি হয়ে ওঠেন প্রগতিশীল রাজনীতির বৈশ্বিক ‘মূর্ত প্রতীক’ বা ‘আইকন’। ২০২০ সালের নির্বাচনে বিপুল জয়ের মধ্য দিয়ে জেসিন্ডা দ্বিতীয় মেয়াদে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী হন। যদিও এবার তার জনপ্রিয়তায় কিছুটা ভাটা দেখা যায়। এর অন্যতম কারণ-সরকারের প্রতি জনগণের আস্থা কমতে থাকা, দেশের অর্থনৈতিক অবস্থার অবনতি ও রক্ষণশীল বিরোধীদের পুনরুত্থান। এসব বিষয় জেসিন্ডার ওপর চাপ তৈরি করছিল, যার আলামতও প্রকাশ পেয়েছিল।

    আমাকে পঙ্গু বানিয়ে দেওয়া হয়েছে : তসলিমা নাসরিন

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ভারতে ভুল চিকিৎসার শিকার হওয়ার অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। পড়ে গিয়ে পায়ের হাড় ভেঙে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। এরপর চিকিৎসক অস্ত্রোপচার করে তাঁর ‘হিপ জয়েন্ট’ বাদ দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন তসলিমা নাসরিন। ভারতে কলকাতায় বসবাসকারী তসলিমার অভিযোগ, সার্জনের ভুল সিদ্ধান্তে আজ তিনি সারা জীবনের জন্য পঙ্গু হতে চলেছেন। কেন ‘ক্রিমিনাল টিমের ট্র্যাপে’পড়লেন, এ জন্য নিজেকে ধিক্কার দেন তিনি। ফেসবুকে গত বুধবার এক দীর্ঘ পোস্টে তসলিমা নাসরিন এ অভিযোগ করেন। তবে তিনি সেই চিকিৎসক বা হাসপাতালের নাম উল্লেখ করেননি। তিনি বলেছেন, চিকিৎসক শুরুতেই ‘হিপ রিপ্লেসমেন্ট’ চিকিৎসায় না গেলেও পারতেন। ফেসবুক পোস্টে তসলিমা লিখেছেন, ‘হাসপাতালের বেডে আমার শুয়ে থাকার ছবি দেখে অনেকে ভেবেছে আমার বোধ হয় হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোক হয়েছে। না, সেসব কিছুই হয়নি।...সেদিন ওভারসাইজ পাজামা পরে হাঁটছিলাম ঘরে, পাজামা চপ্পলে আটকে গিয়ে হুমড়ি খেয়ে পড়ে গেলাম। অগত্যা যা করতে হয়, করেছি। হাঁটুতে ব্যথা হচ্ছিল, আইস্প্যাক দিয়েছি, ভলিনি স্প্রে করেছি।’ তসলিমা ভেবেছিলেন, হয়তো হাঁটুর লিগামেন্টে চোট লেগেছে। এক্স-রে করার জন্য যান হাসপাতালে। কিন্তু এক্স-রে আর সিটিস্ক্যান করে চিকিৎসক জানান, ফিমারে চিড় ধরেছে। এ নিয়ে চিকিৎসকের সঙ্গে তাঁর যুক্তি তর্ক হয়। কিন্তু শেষমেশ অস্ত্রোপচার করে তাঁর ‘হিপ জয়েন্টই’ বাদ দেন চিকিৎসক। বৃহস্পতিবার আরেক পোস্টে তসলিমা নাসরিন লিখেছেন, ‘ধিক্কার দিচ্ছি নিজেকে। ধিক্কার দিচ্ছি এতকালের আমার মেডিকেল জ্ঞানকে। আমাকে হাসপাতালে মিথ্যে কথা বলা হয়েছিল যে আমার হিপ বোন ভেঙেছে। আমার কোনো জয়েন্ট পেইন ছিল না, জয়েন্ট ডিজিজ ছিল না। আমাকে মিথ্যে কথা বলে, ফিমার ফ্র্যাকচারের ট্রিটমেন্টের নামে আমাকে হিপ জয়েন্ট কেটে, ফিমার কেটে ফেলে দিয়ে আমাকে সারা জীবনের জন্য পঙ্গু বানিয়ে দেওয়া হয়েছে। তসলিমা নাসরিন আরও লিখেছেন, ‘ধিক্কার দিচ্ছি আমি কেন ক্রিমিনাল টিমের ট্র্যাপে পড়লাম। আজ আমি এক্সরে রিপোর্ট দেখলাম আমার। আমার কোথাও কোনও ফ্র্যাকচার হয়নি সেদিন। ফ্র্যাকচার হয়নি বলে আমার হিপ জয়েন্টে কোনও ব্যথা ছিল না, কোনও সুয়েলিং ছিল না।’ তাঁকে বাংলাদেশি মুসলিম রোগী হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেছেন তসলিমা। তিনি লিখেছেন, ‘আমাকে বাংলাদেশি মুসলিম রোগী হিসেবে দেখা হয়েছে। যার কাছ থেকে প্রচুর টাকা নিয়ে অপারেশান করা হবে। সেই নিরীহ রোগী দেশে ফিরে যাবে, এবং ভেবে সুখ পাবে যে তার ট্রিট্মেন্ট হয়েছে।’ আগের পোস্টে ‘ভুল চিকিৎসার’ পুরো দায় চিকিৎসকের ওপর দিয়ে তসলিমা নাসরিন লিখেন, ‘ফ্র্যাকচারের ফিক্সেশান ট্রিটমেন্ট না করে আমার হিপ রিপ্লেসমেন্ট করার জন্য উঠে পড়ে লাগলেন। আমি বাধা দিয়েছি। তিনি বারবার এসেছেন আমাকে কনভিন্স করতে। তিন চারজন ডাক্তারকে পাঠিয়েছেন কনভিন্স করতে। আমাকে কোনও সময় দেওয়া হয়নি চিন্তা করতে, কারও সঙ্গে পরামর্শ করতে বা শুভাকাংখীদের কারো সঙ্গে কথা বলতে। এই পোস্টে যেসব কারণে হিপ রিপ্লেসমেন্ট করতে হয় সেগুলোর একটি তালিকা দিয়েছেন ডাক্তারি পড়া এই নারীবাদী লেখিকা।

    সৌদিতে জাল টাকা তৈরি এবং পাচারের দায়ে ৪ প্রবাসীর ৫ বছরের কারাদণ্ড

    আব্দুল্লাহ আল মামুন,সৌদিআরব প্রতিনিধি:সৌদিআরবের পাবলিক প্রসিকিউশন জাল টাকা তৈরি এবং পাচার করার অপরাধে ৪ জন প্রবাসীকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে। পাবলিক প্রসিকিউশনের একটি সরকারী সূত্র জানিয়েছে যে,অর্থনৈতিক অপরাধ প্রসিকিউশনের প্রতিনিধিত্বকারী প্রসিকিউশন,এশিয়ান জাতীয়তার ৪জন প্রবাসীদের নিয়ে গঠিত একটি সংগঠিত অপরাধী চক্রের অর্থ জাল করা এবং তা পাচার করার অভিযোগ এনেছে। তদন্তের জানা গেছে যে, অপরাধী চক্রটি বেশ কিছুদিন যাবদ ধরে গোপনে জাল টাকা তৈরি করে আসছিল, চক্রটির নিকট হতে জাল অর্থ ৮হাজার ৭শত সৌদি রিয়াল কাগজের মুদ্রাসহ ছাপানোর জন্য ব্যবহারিত ইলেকট্রনিক মেশিন এবং প্রিন্টার জব্দ করা হয়। এর আগে অপরাধীদের গ্রেপ্তার করা হয় এবং উপযুক্ত আদালতে রেফার করা হয়,সেইসাথে তাদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ দোষী সাব্যস্ত হলে তাদের বিরুদ্ধে একটি আদালত এই রায় জারি করেন। আদালত অপরাধীদের কারাগারের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে সৌদি আরব থেকে নিজ দেশে নির্বাসনের নির্দেশ দিয়েছে।তবে আদালত সাজাপ্রাপ্ত ৪ জন এশিয়ান প্রবাসী কোন দেশের নাগরিক সে বিষয়ে বিস্তারিত অবহিত করেননি ।

    পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডার্ন পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন। দেশের নেতৃত্ব অব্যাহত রাখতে তিনি আগামী ফেব্রুয়ারির শুরুর দিকে দায়িত্ব ছেড়ে দেবেন এবং দেশটির সাধারণ নির্বাচনেও আর অংশ নেবেন না।  বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) জেসিন্ডা নিজেই এ ঘোষণা দিয়েছেন। খবর এএফপি’র। তিনি তার লেবার পার্টির সদস্যদের সাথে এক বৈঠকে বলেছেন, ‘আমি মানুষ। আমরা যতক্ষণ পারি সর্বোচ্চটা দিয়ে যাই। এর পর চলে যাওয়ার সময় হয়। এখন আমার চলে যাওয়ার সময়।’ জেসিন্ডা বলেন, আরো চার বছর চালিয়ে যাওয়ার মতো যথেষ্ট শক্তি আমার নেই।  প্রধানমন্ত্রী হিসেবে জেসিন্ডার শেষ কর্মদিবস হবে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি। এরপর নিউজিল্যান্ড লেবার পার্টিতে তাঁর উত্তরসূরি নির্বাচনে ভোট হবে। দেশটির পরবর্তী জাতীয় নির্বাচন আগামী ১৪ অক্টোবর। আরডার্ন ২০১৭ সালে জোট সরকার গঠনের মধ্য দিয়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন।  করোনাভাইরাস মহামারি এবং মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার বিষয়ে সফল ব্যবস্থাপনার কারণে জেসিন্ডা দেশে বিদেশে প্রশংসিত ও দ্বিতীয় মেয়াদে জয় পান। জেসিন্ডা তুমুল জনপ্রিয় ছিলেন। কিন্তু মুদ্রাস্ফীতি বৃদ্ধি ও অপরাধের হার বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষিতে সম্প্রতি পরিচালিত এক জনমত জরিপে দেখা গেছে তার এ জনিপ্রয়তায় ভাটা পড়েছে।   এ প্রেক্ষিতে তিনি বলেছেন, ‘সুস্থির সময়ে দেশকে নেতৃত্ব দেয়া এক বিষয় আর সংকটের মধ্যে নেতৃত্ব দেয়া আরেক বিষয়।’ জেসিন্ডা বলেন, আগামী নির্বাচনে জয়ী হবো না এ ভেবে আমি পদত্যাগ করছি না। বরং আমি বিশ্বাস করি আমরা জিতবো। তিনি বলেন, আমি ছেড়ে দিচ্ছি কারণ এ ধরনের সুবিধাজনক কাজের সাথে সাথে বড় দায়িত্বও চলে আসে। দায়িত্বটি হলো কখন তুমি নেতৃত্ব দেয়ার জন্যে যোগ্য আর কখন নও তা বুঝতে পারা।

    হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ইউক্রেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ নিহত ১৮

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেনিস মোনাস্তিরস্কিসহ ১৮ জন নিহত হয়েছেন।  আজ বুধবার (১৮ জানুয়ারি) কিয়েভের পূর্ব ব্রোভারির একটি কিন্ডারগার্টেন স্কুলের পাশে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বিবিসি জানিয়েছে, এই দুর্ঘটনায় তিন শিশুও মারা গেছে। ১৫ জনকে চিকিৎসা দিতে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।   মন্ত্রী দেনিস মোনাসতিরস্কি ছাড়াও আরও আটজন ওই হেলিকপ্টারে ছিলেন। তার প্রধান সহকারী মন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রসচিবও মারা গেছেন বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।  ৪২ বছর বয়সী এই মন্ত্রী ছিলেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির মন্ত্রিসভার বিশিষ্ট একজন সদস্য। ইউক্রেনে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারির পর থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে জনগণকে জানাতে অন্যতম ভূমিকা পালন করেন।   ইউক্রেনের জাতীয় পুলিশ প্রধান ইহর ক্লিমেনকো ফেসবুকে জানিয়েছেন, হেলিকপ্টারটি রাষ্ট্রীয় জরুরি সেবা বিভাগের।   কিয়েভের আঞ্চলিক সামরিক প্রশাসনের প্রধান ওলেকসিই কুলেবা বলেন, এই দুর্ঘটনায় ১৮ জন মারা গেছেন। ২৯ জন আহত হয়েছেন।   কিন্ডারগার্টেনের পাশেই হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর আগুন ধরে যায়। স্কুলভবন থেকে শিশু ও অন্যান্যনের সরিয়ে নেওয়া হয়। একটি জলন্ত ভবনের বাইরে হেলিকপ্টারটির ভাঙা অংশ পড়ে থাকতে দেখা যায়।   দুর্ঘটনার সময় অন্ধকার ও কুয়াশাচ্ছন্ন ছিল। প্রাথমিক প্রতিবেদনে দেখা যায়, বিধ্বস্ত হওয়ার আগে হেলিকপ্টারটি আবাসিক ভবনের কাছে থাকা কিন্ডারগার্টেনে আঘাত হানে।  

    সৌদিতে রোনালদোর এবং তার পরিবারের জন্য প্রতিদিন ২ ঘণ্টা পার্ক বন্ধ

    আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের একটি বিনোদন পার্ক শুধুমাত্র ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো এবং তার পরিবারের জন্য দুই ঘন্টার জন্য বন্ধ ছিল।  আল নাসের ক্লাবে যোগ দেওয়ার পরই সৌদি আরবের একটি পার্ক প্রতিদিন ২ ঘণ্টা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।  ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও তার পরিবারের সদস্যদের বিনোদনের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করেছে সৌদি আরব। রিয়াদের একটি বিনোদন পার্ক প্রতিদিন ২ ঘণ্টা ধরে বরাদ্দ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সেই সময়ে রোনালদো ও তার পরিবারের সদস্য ছাড়া অন্য কেউ সেই পার্কে ঢুকতে পারবেন না। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সঙ্গী জর্জিনা রদ্রিগেজ তার সোশ্যাল মিডিয়া নেটওয়ার্কে বেশ কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন যে তারা কীভাবে রিয়াদের বুলেভার্ড ওয়ার্ল্ড অ্যামিউজমেন্ট পার্কে দিনটি কাটিয়েছে। জর্জিনা রিয়াদ সিজন উইন্টার ওয়ান্ডারল্যান্ডের বাইরে নিজ থেকে ভ্রমণের ছবি শেয়ার করেছেন। জর্জিনাকে "স্কাই লুপ" রাইডের সামনে দাঁড়িয়ে পার্কের ভিতরে তিনটি বড় পুরস্কার ধারণ করতে দেখা যায়। রাইডটি হল "বিশ্বের দীর্ঘতম রোলারকোস্টার"এবং এটি ৫২ মিটারের একটি শ্বাসরুদ্ধকর সর্বোচ্চ উচ্চতার এবং ঘন্টায় ৬৮ কিলোমিটার গতিতে চলাচল করে।   পরিবারটিকে পরবর্তী ছবিতে দেখা গেছে, রোনালদোর কনিষ্ঠ পুত্র মাতেওকে ধরে রাখার সময় এক জোড়া চশমা পরেছিলেন। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো জুনিয়র, ফটোর বাম দিকে বসে সূর্যকে অবরুদ্ধ করার জন্য তার হাত বাড়িয়েছেন। কন্যা ইভা এবং আলানা তাদের পিছনে একটি সুন্দর জল-থিমযুক্ত পটভূমি সহ ছবির জর্জিনার পাশে বসেছিলেন। পরে তাদের একটি ক্যারোসেলে রাইড উপভোগ করতে দেখা গেছে, মাতেওকে স্পাইডারম্যান, হাল্ক, ব্ল্যাক প্যান্থার, উলভারিন এবং ডেডপুল সহ কমিক বইয়ের চরিত্রের পোশাক পরা বেশ কিছু লোকের সাথে তাদের দেখা গেছে।  

    সৌদিতে অর্থ পাচারের দায়ে দোষী সাব্যস্ত ২ প্রবাসীর ৬ বছরের জেল 

    আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদি আরবের একটি আদালত অর্থ পাচারে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পরে দুই প্রবাসীর ৬ বছরের কারাদণ্ড এবং ২ লক্ষ সৌদি রিয়াল জরিমানা করেছে। পাবলিক প্রসিকিউশনের একটি সরকারী সূত্র জানিয়েছে যে,অর্থনৈতিক অপরাধ শাখার তদন্তের দ্বারা পরিচালিত,অর্থ পাচারের সাথে জড়িত দুজন আরবিয়ান প্রবাসীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়। তদন্তে জানাগেছে যে দুই প্রবাসীর অপরাধ তারা অবৈধ উপায়ে অর্থ সংগ্রহ করেছিলেন এবং সৌদিআরবের বাইরে তা পাচার করে আসছিলেন। আদালত উক্ত অপরাধের সাথে জড়িত ৩.৫ মিলিয়ন সৌদি রিয়াল বাজেয়াপ্ত করে ও তাদের জেলের মেয়াদ এবং জরিমানা প্রদানের পরে প্রবাসীদের  নিজ দেশে নির্বাসনের নির্দেশ দিয়েছে।তবে প্রবাসী নাম পরিচয় আদালত প্রকাশ করেনি। এর আগে আসামীদের গ্রেফতার করা হয় এবং উপযুক্ত আদালতের সামনে বিচার প্রক্রিয়ায় হাজির করানো হয়,এবং অবশেষে তাদের এই রায় প্রদান করে বিজ্ঞ আদালত।

    ৭২ আরোহীর মধ্যে ৬৭ জনের লাশ উদ্ধার

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক- নেপালের পোখরায় ৬৮ আরোহী ও ৪ জন ক্রু নিয়ে একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৬৭ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নেপালের বেসরকারি বিমান পরিচালনাকারী সংস্থা ইয়েতি এয়ারলাইনসের এটিআর ৭২ মডেলের বিমানটি রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে পোখরায় যাচ্ছিল। রোববার সকালে বিমানটি পোখরার কাসকি জেলায় বিধ্বস্ত হয়। খবর কাঠমান্ডু পোস্টের। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে— ইয়েতি এয়ারলাইনসের মুখপাত্র সুদর্শন বারতাউলা বলেছেন, '৬৮ যাত্রী ও চারজন ক্রু নিয়ে পোখরার পুরাতন বিমানবন্দর এবং নতুন পোখরা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মধ্যবর্তী স্থানে বিধ্বস্ত হয়।' প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ইয়েতি এয়ারলাইনস বা নেপাল সরকারের পক্ষ থেকে দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে এখনো কোনো তথ্য জানানো হয়নি। দুর্ঘটনাস্থলে উদ্ধার তৎপরতা শুরু হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিও ও ছবি থেকে দেখা গেছে, দুর্ঘটনাস্থল থেকে ব্যাপক ধোঁয়া উড়ছে এবং সেখানে আগুনও জ্বলছে।

    নেপালে বিমান বিধ্বস্ত: ৪৪ লাশ উদ্ধার

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক- নেপালের পোখরায় ৬৮ আরোহী ও ৪ জন ক্রু নিয়ে একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪৪ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। নেপালের বেসরকারি বিমান পরিচালনাকারী সংস্থা ইয়েতি এয়ারলাইনসের এটিআর ৭২ মডেলের বিমানটি রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে পোখরায় যাচ্ছিল। রোববার সকালে বিমানটি পোখরার কাসকি জেলায় বিধ্বস্ত হয়। খবর কাঠমান্ডু পোস্টের। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে— ইয়েতি এয়ারলাইনসের মুখপাত্র সুদর্শন বারতাউলা বলেছেন, '৬৮ যাত্রী ও চারজন ক্রু নিয়ে পোখরার পুরাতন বিমানবন্দর এবং নতুন পোখরা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মধ্যবর্তী স্থানে বিধ্বস্ত হয়।' প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ইয়েতি এয়ারলাইনস বা নেপাল সরকারের পক্ষ থেকে দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে এখনো কোনো তথ্য জানানো হয়নি। দুর্ঘটনাস্থলে উদ্ধার তৎপরতা শুরু হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিও ও ছবি থেকে দেখা গেছে, দুর্ঘটনাস্থল থেকে ব্যাপক ধোঁয়া উড়ছে এবং সেখানে আগুনও জ্বলছে।

    প্রায় ২৮ কোটি টাকা দিয়ে দেখতে হবে মেসি-রোনালদোর প্রীতি ম্যাচ!

    আব্দুল্লাহ আল মামুন,সৌদিআরব প্রতিনিধি: আগামী ১৯ জানুয়ারি সৌদি আরবের রিয়াদে একটা প্রীতি ম্যাচে মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন সময়ের সেরা দুই ফুটবলার লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। প্রীতি ফুটবল ম্যাচের একটা টিকিটের মূল্য বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ২৭ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। অবিশ্বাস্য শোনা গেলেও এটাই সত্যি ।  সৌদি ক্লাব আল নাসের ও আল হিলালের সমন্বিত একাদশ বনাম পিএসজির মধ্যকার সেই প্রদর্শনী ম্যাচটিতে তাদের সঙ্গে থাকবেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার এবং বিশ্বকাপ ফাইনালে হ্যাটট্রিক করা ফরাসি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পেও। এই ম্যাচটির টিকিটের মূল আকাশ ছুঁয়েছে। গড়তে যাচ্ছে বিশ্ব রেকর্ড। ম্যাচটির একটা ভিআইপি টিকিটের মূল্য গিয়ে ঠেকেছে ১ কোটি সৌদি রিয়াল যা বাংলাদেশি মুদ্রায় অঙ্কটা প্রায় ২৭ কোটি ৮৬ লাখ টাকা! এযাবৎ বিশ্ব ফুটবলের ইতিহাসে একটা ফুটবল ম্যাচের একটি টিকিট কখনোই এত উচ্চমূল্যে বিক্রি হয়নি। শুধু টিকিটের মূল্যই নয়, মেসি-রোনালদোর মধ্যকার আসন্ন ম্যাচটি আরো অনেক বিস্ময় উপহার দিতে যাচ্ছে। ১৯ জানুয়ারির ম্যাচটির টিকিটের জন্য অললাইনে আবেদন পড়েছে ২০ লাখেরও বেশি। যে ম্যাচটির ভেন্যু রিয়াদের কিং ফাহদ স্টেডিয়ামের দর্শকধারণ ক্ষমতা মাত্র ৬৮ হাজার। ম্যাচটির টিকিটের নিলামের দায়িত্বে সৌদি আরব সরকারের বিনোদন শাখা। এই প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকেই টুইট করে জানানো হয়েছে এসব তথ্য। ম্যাচটির একটা ভিআইপি টিকিটের সর্বোচ্চ দাম উঠেছে ১ কোটি রিয়াল। তবে সব ভিআইপি টিকিটের নয়। একজন দর্শক একটা টিকিটের জন্য এই দাম হাঁকিয়েছেন। তিনি সৌদি আরবের ধনাঢ্য ব্যবসায়ী, প্রযুক্তিভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ‘আজম টেক’-এর স্বত্বাধিকারী মোহাম্মদ আল মুয়াজেম বিশেষ একটা টিকিটের জন্য এই দাম দিতে রাজি হয়েছেন। নিলামে একটা টিকিটের জন্য এটাই এখনো পর্যন্ত সর্বোচ্চ দাম। তবে দামের অঙ্কটা আরো বেশি হতে পারে। কারণ, টিকিটের নিলাম ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে।  নিলামের শুরুতে বিশেষ এই টিকিটটির জন্য ২৫ লাখ রিয়াল দাম হাঁকান সৌদি আরবের একজন ব্যবসায়ী আব্দুল আজিজ বাঘলেফ। পরে তিনি সর্বোচ্চ ৩০ লাখ রিয়াল দিতে রাজি হন। আরেক ব্যবসায়ী ৭০ লাখ রিয়াল দেওয়ার প্রস্তাব করেন। পরে তিনিই ৯০ লাখ রিয়াল দিতে রাজি হন। শেষ পর্যন্ত তাকেও টেক্কা দিয়ে মোহাম্মদ আল মুয়াজেম ১ কোটি সৌদি রিয়াল প্রস্তাব করে এখনো পর্যন্ত সে  শীর্ষে আছেন। শেষ পর্যন্ত টিকিটটির দাম কত উঠবে এবং শেষ পর্যন্ত টিকিটটি কার হাতে গিয়ে পৌঁছাবে তা সময় বলে দিবে ।  

    প্রবাসী পুরুষদের সাথে বিবাহিত সৌদি নারীদের সন্তানদের নাগরিকত্বের সুযোগ 

    আব্দুল্লাহ আল মামুন,সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদিআরবে বসবাসরত প্রবাসী পুরুষদের সাথে বিবাহিত সৌদি নারীদের সন্তানরা সৌদি নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারবে। জানা যায়,সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ একটি রাজকীয় ডিক্রি জারি করেছেন যে, সৌদি নারীদের সাথে প্রবাসী (অ-সৌদির) বিবাহিতের ফলে জন্ম নেওয়া ১৮ বছর বয়সের সন্তানদের জন্য সৌদির নাগরিকত্বের আবেদন করার অধিকার পাবে । তথ্যে জানা যায়,ডিক্রিটি সৌদি নাগরিকত্ব আইনের ৮ নং অনুচ্ছেদ সংশোধন করেছে।সংশোধনীতে বলা হয়েছে,"স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পরামর্শে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে" আইনটি "স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে"প্রতিস্থাপিত করা হয়। সৌদি নাগরিকত্ব সৌদি পিতার মাধ্যমে জন্ম নেওয়া সন্তান স্বয়ংক্রিয়ভাবে সৌদি নাগরিকত্ব পায়। তবে সৌদি মা ও প্রবাসী পিতার সন্তানরা নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারবেন এতে কিছু শর্ত আরোপ করা হয়েছে, যদি তারা এই শর্ত গুলো পূরণ করে তবে তাদের জন্ম দেওয়া সন্তানেরা সৌদির নাগরিকত্ব নিয়ে সৌদিতে স্থায়ীভাবে বসবাস করতে পারবে।    শর্ত গুলোর মধ্যে অন্যতম হল সন্তানের ১৮ বছর বয়স হলে তারা নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারবে এবং তাদের আরবি ভাষাতে কথা বলতে সক্ষম হতে হবে এবং সবমসময় অন্যের সাথে ভাল আচরণ করতে হবে।

    উত্তাল পেরু, নিহত বেড়ে ৪৮

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক- সরকারবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল পেরু। দেশটিতে গত মাসে শুরু হওয়া বিক্ষোভে বিভিন্ন সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ৪৮ জন নিহত হয়েছে। সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বুধবার বিক্ষোভ-সংঘর্ষেও একজন নিহত হন। এ নিয়ে দেশটির কর্মকর্তারা এক পর্যটন শহরে রেড অ্যালার্ট জারি করেছে। গত বছরের ডিসেম্বরে পেদ্রো ক্যাস্তিয়োকে প্রেসিডেন্ট পদ থেকে হটানো হয় এবং পরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ নিয়ে তার ক্ষুব্ধ সমর্থকরা দেশটির বিভিন্ন অংশে সড়ক আটকে বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে। এতে দফায় দফায় হচ্ছে পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কারফিউ চলাকালীন বুধবার বিক্ষোভকারীরা আলেজান্দ্রো ভেলাস্কো অ্যাস্টেট আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রবেশের চেষ্টা চালায়। এতে পুলিশ ও সরকারবিরোধীদের মধ্যে সংঘাত হয়। আহত কর্মকর্তারা মাথায় আঘাত এবং বিভিন্ন ক্ষতে ভুগছেন। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে কুস্কোর আঞ্চলিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা সমস্ত স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানকে রেড অ্যালার্টে রেখেছে। এর আগে ক্যাস্তিয়োর সাবেক ডেপুটি এবং বর্তমানে পেরুর প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করা দিনা বলুয়ার্তে বিক্ষোভকারীদের শান্ত করতে আগাম নির্বাচনের প্রস্তাব দিয়েছেন। তিনি এখন বলছেন, ২০২৪ সালের এপ্রিলে সাধারণ নির্বাচন দিতে আগ্রহী। তবে ক্যাস্তিয়ো এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন।

    নেপালে হাজারো মানুষের বিক্ষোভ, রাজতন্ত্র ফিরিয়ে আনার দাবি 

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক-নেপালে গণতন্ত্রের বদলে রাজতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে বিক্ষোভ করেছেন হাজারো মানুষ। দক্ষিণ এশিয়ার ছোট্ট এই দেশটি বর্তমানে গণতান্ত্রিক হলেও, এই শতাব্দীর শুরুতে এটি ছিল রাজতান্ত্রিক। তবে নানা নাটকীয়তার পর গত দশকে নেপালে রাজতন্ত্রের অবসান ঘটে। গত বুধবার (১১ জানুয়ারি) আবারো তারা রাজতন্ত্র ফিরিয়ে আনার দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করে। জানা যায়, রাজতন্ত্রের অবসান ঘটলেও দেশটিতে এখনো রাজতন্ত্রের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সমর্থক রয়ে গেছেন। তাই নেপালের সাবেক রাজপরিবারের হাজার হাজার সমর্থক গত বুধবার পুনরায় রাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে বিক্ষোভে নামেন। বিক্ষোভকারীরা সমাবেশের সময় রাজা পৃথ্বী নারায়ণ শাহের মূর্তির চারপাশে জড়ো হন। নেপালের সাবেক এই রাজা ১৮ শতকে শাহ রাজবংশের সূচনা করেছিলেন। আর এ রাজবংশের শেষ রাজা ছিলেন জ্ঞানেন্দ্র। নানা নাটকীয়তার পর তিনি রাজার পদ ছাড়তে বাধ্য হন। পরে ২০০৮ সালে নেপালে রাজতন্ত্রের বিলুপ্তি ঘটে ও প্রজাতন্ত্রের আবির্ভাব হয়। এরপর থেকেই দেশটি গণতান্ত্রিক হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। তবে প্রতি বছরই পৃথ্বী নারায়ণের জন্মবার্ষিকীতে তার ভক্ত ও সমর্থকরা রাজতন্ত্র ফিরিয়ে আনার জন্য বিক্ষোভ সমাবেশ করেন। এর আগের কিছু সমাবেশে পৃথ্বীভক্ত ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হওয়ার পর থেকেই বিক্ষোভকারীরা সহিংস হয়ে ওঠেন। তবে গত বুধবারের সমাবেশটি ছিল শান্তিপূর্ণ। তাছাড়া মোতায়েন থাকা পুলিশ এই সমাবেশের ওপর কঠোর নজরদারি রেখেছিল। এই দিনের সমাবেশে বিক্ষোভকারীরা রাজতন্ত্রের প্রশংসাসূচক নানা স্লোগান দেন। এদিকে প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দাহালের নেতৃত্বাধীন নতুন সরকার রাজা পৃথ্বী নারায়ণের জন্মদিন উপলক্ষে বুধবার নেপালে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেন। প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দাহালের নেতৃত্বাধীন নতুন সরকার রাজা পৃথ্বী নারায়ণের জন্মদিন উপলক্ষে বুধবার নেপালে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেন। প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দাহালের নেতৃত্বাধীন নতুন সরকার রাজা পৃথ্বী নারায়ণের জন্মদিন উপলক্ষে বুধবার নেপালে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেন। দাহাল নেপালে রাজতন্ত্রের বিলুপ্তি ঘটাতে ১৯৯৬ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত মাওবাদী কমিউনিস্ট বিদ্রোহীদের নেতৃত্ব দেন। তবে বিক্ষোভ করলেও রাজার জন্মদিন উপলক্ষে সরকারি ছুটি ঘোষণা ও সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়ায় দাহাল সরকারকে ধন্যবাদ জানান বিক্ষোভকারীরা। রাম প্রসাদ উপ্রেতি নামে অবসরপ্রাপ্ত এক চিকিত্সক বলেন, 'নেপালে রাজতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে হবে। আমরা একজন আনুষ্ঠানিক রাজা খুঁজছি। তার পাশাপাশি আমরা একজন নির্বাহী প্রধানমন্ত্রীকে মেনে নিতে রাজি আছি। দাহাল নেপালে রাজতন্ত্রের বিলুপ্তি ঘটাতে ১৯৯৬ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত মাওবাদী কমিউনিস্ট বিদ্রোহীদের নেতৃত্ব দেন।দাহাল নেপালে রাজতন্ত্রের বিলুপ্তি ঘটাতে ১৯৯৬ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত মাওবাদী কমিউনিস্ট বিদ্রোহীদের নেতৃত্ব দেন। ২০০১ সালে প্রাসাদ হত্যাকাণ্ডের পর নেপালের রাজা হন জ্ঞানেন্দ্র। কিন্তু তিনি সাধারণ মানুষের কাছে খুব একটা প্রিয় ছিলেন না। এক পর্যায়ে রাজনৈতিক দলগুলো মাওবাদী বিদ্রোহীদের সঙ্গে জোট বেঁধে রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষোভ গড়ে তোলে। পরে ২০০৬ সালে নেপাল থেকে রাজতন্ত্র লোপ পায়। ২০০৮ সালে দেশটির পার্লামেন্ট রাজতন্ত্র বাতিলের পক্ষে ভোট দেয়। ৭৫ বছর বয়সী সাবেক রাজা জ্ঞানেন্দ্র বর্তমানে একজন সাধারণ নাগরিক। তিনি রাজনৈতিকভাবে সক্রিয় নন।  

    সৌদিতে বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনীতে ২৫৫ জন নারী 

    আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদিতে বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনীতে যোগদানের জন্য ২৫৫ জন সৌদি নারী প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করে কর্মক্ষেত্র যোগদান করেছে । সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী প্রিন্স আব্দুল আজিজ বিন সৌদ বিন নায়েফের পৃষ্ঠপোষকতায়, জননিরাপত্তা বিভাগের পরিচালক লেফটেন্যান্ট জেনারেল মুহাম্মদ আল-বাসামি এর নেতৃত্বাধীন বুধবার বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনীতে ২৫৫ জন সৌদি নারী ক্যাডেট স্নাতক অনুষ্ঠানে যোগদান করেন। জানা যায়, নিয়োগপ্রাপ্তদের চতুর্থ ব্যাচের অন্তর্ভুক্ত যারা সশস্ত্র বাহিনীর নারী প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট থেকে কূটনৈতিক নিরাপত্তা এবং হজ ও ওমরাহ নিরাপত্তায় বিশেষত্ব সহ স্নাতক হয়েছেন। তারা কূটনৈতিক নিরাপত্তার জন্য বিশেষ বাহিনী এবং হজ ও ওমরাহ নিরাপত্তা বাহিনীতে যোগ দেবেন। নারী গ্র্যাজুয়েটরা অ্যাপ্লিকেশন এবং তথ্য প্রযুক্তির পাশাপাশি নিরাপত্তামূলক কাজগুলি সম্পাদনের জন্য প্রয়োজনীয় দক্ষতার উপর তাত্ত্বিক এবং ব্যবহারিক পাঠের প্রশিক্ষণ পেয়েছে। তারা তাদের কাজের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ বিশেষ দায়িত্ব পালনের জন্য তাদের প্রস্তুত করার পাশাপাশি নিরাপত্তা কাজের সকল পদ্ধতির প্রশিক্ষণও পেয়েছেন। উল্লেখ্য যে, সৌদি আরব ২০১৯ সালে সশস্ত্র বাহিনীর বিভিন্ন শাখায় যোগদানের জন্য নারীদের নিয়োগ করা শুরু করে। সৌদি নারীরা সৌদি আরবের সেনাবাহিনী, রয়্যাল সৌদি এয়ার ডিফেন্স, রয়্যাল সৌদি নেভি, রয়্যাল সৌদি স্ট্র্যাটেজিক মিসাইল ফোর্স, এবং সশস্ত্র বাহিনীর মেডিকেল সার্ভিসে যোগদানের জন্য সাইন আপ করতে পারবেন। এছাড়াও কূটনৈতিক এবং হজ ও ওমরাহ বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনীতে যোগ দিতে পারবেন ।