এই মাত্র
  • বিপিএলের মাঝে ছুটি পেয়েই ওমরা করতে গেলেন সাকিব
  • গণভোট দেন, হারলে আর কোনো দিন নির্বাচন করব না : হিরো আলম
  • সুদ যেসব ক্ষতি ডেকে আনে
  • পাকিস্তানের রিজার্ভে ধস, আছে মাত্র ১৮ দিনের আমদানি ব্যয়
  • গাড়ি উপহার না পেলে সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করবেন হিরো আলম
  • বিমানের চাকা ফেটে সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরের রানওয়ে বন্ধ
  • শিক্ষকদের ওয়েবসাইট থেকে পড়ানোর পরামর্শ দিলেন শিক্ষামন্ত্রী
  • সর্বত্র সমর্থন পাওয়া দারুণ ব্যাপার, বাংলাদেশ প্রসঙ্গে মেসি
  • জামাতে নামাজ পড়া নিয়ে যা বলেছেন মহানবী (সা.)
  • ঢাকায় বাসচাপায় প্রাণ গেল ব্যবসায়ীর
  • আজ শনিবার, ২২ মাঘ, ১৪২৯ | ৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
    দেশজুড়ে

    ৩ বছরের সন্তান রেখে ঘর ছেড়েছেন স্ত্রী, দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন স্কুল শিক্ষক

    user skarif
    প্রকাশ: ২১ জানুয়ারি, ২০২৩ ১৫:০১ পিএম

    হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলায় তিন বছরের সন্তানকে ফেলে রেখে স্বর্ণালংকার ও নগদ অর্থসহ পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে পালানোর অভিযোগ উঠেছে এক স্কুল শিক্ষকের স্ত্রীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনার পর থেকে এলাকায় আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। 

    শনিবার (২১ জানুয়ারি) এ ঘটনার চারমাস পেরিয়ে গেলেও পরকীয়া প্রেমিক ও স্ত্রীর বিচারের আশায় ওই স্কুল শিক্ষক বিভিন্ন মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন বলে জানা যায়।

    মামলার বিবরণ এবং সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রায় ৪ বছর পূর্বে মধুখালী উপজেলার লক্ষ্মীনারায়নপুর গ্রামের বদিরুজ্জামান খানের তৃতীয় কন্যা বাবলী সুলতানার (২৩) সাথে একই উপজেলার আশাপুর গ্রামের ফরিদুজ্জামানের পুত্র স্কুল শিক্ষক মঞ্জুরুল আহসান (৩০) পারিবারিকভাবে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। তাদের সংসারে ৩ বছর বয়সী একটা পুত্র সন্তান রয়েছে। 

    বিয়ের পর থেকেই বাবলী সুলতানা ফরিদপুরের সদর উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামের আমিন মন্ডলের পুত্র বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে কর্মরত (খানজাহান আলী জাহাজের স্টুয়ার্ড) ইব্রাহীম মন্ডলের সাথে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে বলে অভিযোগ স্বামী ও স্বামীর পরিবারের। তারা গোপনে বিভিন্ন স্থানে দেখা করতেন এবং মোবাইল ফোন কল ও ইমোতে নিয়মিত যোগাযোগ করতেন বলে অভিযোগ স্বামীর।

    এরই ধারাবাহিকতায় গত বছরের ১৪ অক্টোবর সন্ধ্যা ৭টার দিকে কোলের তিন বছরের সন্তানকে ফেলে রেখে সহপাঠী মোহাইমিনুল ইসলামের সহযোগিতায় প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা মূল্যের স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ অর্থসহ স্বামীর ঘর থেকে পালিয়ে যায়। বাবলী সুলতানার স্বামী তাকে ঘরে না পেয়ে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করতে থাকেন এবং উক্ত রাতে তার শশুরকে নিয়ে মধুখালী থানায় ঘটনাটি অবহিত করেন।

    পরের দিন বাবলী সুলতানার ফোন কল লিস্টের সূত্রধরে (উল্লেখ্য তার মোবাইল সিমটি স্বামী মঞ্জুরুল আহসানের নামে রেজিস্ট্রেশন করা) তার সহপাঠী মোহাইমিনুল ইসলামের সাথে কথা বলে জানা যায়, বাবলী সুলতানা তার পরকীয়া প্রেমিক নৌবাহিনীর খানজাহান আলী জাহাজের স্টুয়ার্ড ইব্রাহীম মন্ডলের কর্মস্থল চট্টগ্রামের একটি বাসায় অবস্থান করছে। পরবর্তীতে মোহাইমিনুলের মাধ্যমে ফোন করে ২ জনের একত্রে অবস্থানের প্রমাণও পাওয়া যায়। 

    এই ব্যাপারে বাবলী সুলতানার স্বামী স্কুল শিক্ষক মঞ্জুরুল আহসান বাংলাদেশ নৌবাহিনীর চট্টগ্রামের খানজাহান আলী জাহাজের অধিনায়ক মাসুদুর রহমানের বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ও পাশাপাশি মধুখালীর ৫ নং আমলী আদালতে একটি মামলা রুজু করেন যার নম্বর হলো CR- 381/22।

    তবে অধিনায়ক বরাবর অভিযোগ দায়ের করার প্রায় তিনমাস পেরিয়ে গেলেও এখনো এর কোনো সঠিক বিচার না পেয়ে স্বামী স্কুল শিক্ষক মঞ্জুরুল এখন বিচারের আশায় পুলিশ, সাংবাদিক, রাজনৈতিক জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। 

    এ ব্যাপারে স্কুল শিক্ষক স্বামী মঞ্জুরুল আহসান বলেন, "আমার সংসারটা এলোমেলো করে দিয়েছে নৌবাহিনীর সদস্য ইব্রাহিম মন্ডল। নৌবাহিনী বাংলাদেশের একটু সুনামধন্য বাহিনী। আর সে বাহিনীতে কর্মরত এরকম একজন দুশ্চরিত্র ছেলের কারণে বাহিনীর সুনাম নষ্ট হচ্ছে। আমি ওই ছেলের বিচার চাই।

    এ নিয়ে অভিযুক্ত ইব্রাহিম মন্ডলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি অফিসের কাজে ব্যস্ত আছেন বলে জানান। পরবর্তীতে এব্যাপারে বিস্তারিত জানাতে চাইলেও আর যোগাযোগ করেননি।

    তবে এ ব্যাপারে কথা হয় বাবলী সুলতানার সাথে। তিনি বলেন, 'বিভিন্ন সময়ে আমার স্বামী মঞ্জুরুল আহসান আমাকে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করতেন। তাইতো, তার নির্যাতন সইতে না পেরে তাদের বাড়ি থেকে পলায়ন করে নৌবাহিনীতে কর্মরত আমার এক আত্মীয় ইব্রাহিম মন্ডলের বাসায় গিয়েছিলাম। সে আমাকে আশ্রয় দিয়ে তো অপরাধ করতে পারেনা।' 

    এছাড়া স্বামীর বাড়ি থেকে স্বর্ণালংকার ও টাকা নেওয়ার বিষয়টিও অস্বীকার করেন তিনি।

    এ ব্যাপারে বক্তব্য জানতে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর চট্টগ্রামের খানজাহান আলী জাহাজের অধিনায়ক মাসুদুর রহমানের সঙ্গে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ব্যস্ত আছেন বলে ফোন কেটে দেন।

    ট্যাগ :

    ঘর ছেড়েছেন স্ত্রী স্কুল শিক্ষক

    সম্পর্কিত:

    চলতি সপ্তাহে সর্বাধিক পঠিত

    সর্বশেষ প্রকাশিত