এইমাত্র
  • চীন সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
  • পানামাকে হারিয়ে উরুগুয়ের কোপা আমেরিকা শুরু
  • কুমিল্লায় মায়ের কুড়ালের আঘাতে মেয়ের মৃত্যুর অভিযোগ
  • কুমিল্লায় ট্রেনের ধাক্কায় প্রাণ গেল আওয়ামী লীগ নেতার
  • আবারো ডিমের বাজারে উত্তাপ শুরু হয়েছে
  • ভালুকায় কৃষি উদ্যোক্তা তৈরির কারিগর সাইদুল ইসলাম
  • গন্ধরাজ চিংড়ির রেসিপি
  • যশোর হাসপাতালে প্যাথলজি পরীক্ষার টাকা লোপাট
  • বিয়ে করলেন সোনাক্ষী-জাহির, প্রকাশ্যে এলো ছবি
  • কুমিল্লায় ডাক্তারের ভুল চিকিৎসার শিক্ষার্থীর মৃত্যুর অভিযোগ
  • আজ সোমবার, ১০ আষাঢ়, ১৪৩১ | ২৪ জুন, ২০২৪
    দেশজুড়ে

    গাজীপুরে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট শেষ, ফলের অপেক্ষা

    সময়ের কণ্ঠস্বর টিম প্রকাশ: ২৫ মে ২০২৩, ০৪:২৮ পিএম
    সময়ের কণ্ঠস্বর টিম প্রকাশ: ২৫ মে ২০২৩, ০৪:২৮ পিএম

    গাজীপুরে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট শেষ, ফলের অপেক্ষা

    সময়ের কণ্ঠস্বর টিম প্রকাশ: ২৫ মে ২০২৩, ০৪:২৮ পিএম

    কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই শেষ হয়েছে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ভোটগ্রহণ।

    বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিকেল ৪টায় শেষ হয় ভোটগ্রহণ। এখন চলছে ভোট গণনা।

    আজ সকাল থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হলেও বিচ্ছিন্ন দুই-একটি ঘটনা ছাড়া কোনো ধরনের অপ্রীতিকর কোনো ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। নির্বাচন নিয়ে বেশ তৎপর ছিল নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আগারগাঁওয়ের নির্বাচন অফিসে বসে সিসি ক্যামেরায় ভোট পর্যবেক্ষণ করা হয়। ভোটকেন্দ্রের গোপন কক্ষে বেআইনিভাবে প্রবেশের অভিযোগে দুজনকে আটক করে পুলিশ।

    এদিকে, সকালের দিকে ভোটার সংখ্যা কম থাকলেও সময় বাড়ার বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার বাড়তে থাকে। তবে, ইভিএমে ভোট নিতে কিছুটা ধীরগতি ছিল বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

    আয়তনের দিক দিয়ে দেশের সবচেয়ে বড় সিটি করপোরেশন গাজীপুর। এই সিটিতে লড়ছেন মেয়র পদে আট প্রার্থী, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২৪৩ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৭৮ জন, অর্থাৎ মোট ৩২৯ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

    গাজীপুর সিটিতে মেয়র পদে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে আওয়ামী লীগের আজমত উল্লা খান এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী জায়েদা খাতুনের মধ্যে। দুজনের জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। তাদের মতোই ভোটের পরিবেশ ভালো বলে জানান আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহনূর ইসলাম রনি।

    গাজীপুর সিটির ভোটের পরিবেশ নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন তিন মেয়র প্রার্থী আজমত উল্লা খান, শাহনূর ইসলাম রনি এবং জায়েদা খাতুন।

    সকালে টঙ্গীর দারুস সালাম মাদরাসা কেন্দ্রে ভোট দেন আওয়ামী লীগ মেয়র প্রার্থী আজমত উল্লা খান। এ সময় তিনি বলেন, অংশগ্রহণমূলক, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হচ্ছে। জয়ের ব্যাপারে আশাবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, নতুন আশা নিয়ে ভোটাররা সকাল থেকে অপেক্ষা করছে ভোট দিতে। আমি আশা করি আজকের জয় একটি দুর্নীতিমুক্ত সিটি করপোরেশন গড়ার প্রত্যয় নিয়ে জনগণ নিজেই জয়ী হবে। আমি সব সময় জনগণের সঙ্গে ছিলাম।

    একই কথা জানিয়ছেন স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী জায়েদা খাতুনও। সকাল ১০টায় কানাইয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোট দিয়ে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, এখন পর্যন্তু ভোটের পরিবেশ সুষ্ঠু আছে। কিছু কিছু জায়গায় আমাদের এজেন্টকে বের করে দেয়া হয়েছে, ইনশাআল্লাহ সত্যের বিজয় হবে।

    এদিকে সকাল ৯টায় শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতাল কেন্দ্রে ভোট দেন আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহনূর ইসলাম রনি। তিনিও জানান, নির্বাচনি পরিবেশ শান্তিপূর্ণ আছে। রনি আরও বলেন, কেন্দ্রের ভেতরের পরিবেশ ভালো। এই কেন্দ্রে তার পোলিং এজেন্ট আছে। মোটামুটি ভোটার উপস্থিতি আছে।

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…