এইমাত্র
  • ২৮ ঘণ্টায়ও উদ্ধার হয়নি হাওরে নিখোঁজ পর্যটক
  • ভাইয়ের গায়ে পানি মারায় সৎ মায়ের হাতে প্রাণ গেল শিশুর
  • ‘মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা মাঠে নামলে কোটাবিরোধীরা টিকতে পারবে না’
  • বৈষম্য দূর করার জন্যেই কোটার প্রয়োজন: তথ্য প্রতিমন্ত্রী
  • এ সপ্তাহে রাজধানীতে বাড়তে পারে যানজট: ডিএমপি
  • কুমিল্লায় ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত করলো দুর্বৃত্তরা
  • ‘মূল সড়কে ব্যাটারিচালিত রিকশা চালানো যাবে না’
  • বাসা থেকে দেড় কোটি টাকা চুরি, ৪ দিন পর জানা গেল মেয়েই চোর
  • ট্রাম্পের ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামের নিষেধাজ্ঞা সরছে
  • নিজ সন্তানকে নদীতে ফেলে হত্যা: ১৩ বছর পর বাবা গ্রেফতার
  • আজ শনিবার, ২৯ আষাঢ়, ১৪৩১ | ১৩ জুলাই, ২০২৪
    দেশজুড়ে

    বিরামপুরে পরিত্যক্ত ভবন মাদকসেবীদের আখড়া !

    মো. নূর ইসলাম, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি প্রকাশ: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১০:২৮ এএম
    মো. নূর ইসলাম, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি প্রকাশ: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১০:২৮ এএম

    বিরামপুরে পরিত্যক্ত ভবন মাদকসেবীদের আখড়া !

    মো. নূর ইসলাম, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি প্রকাশ: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১০:২৮ এএম

    দিনাজপুর বিরামপুর উপজেলার খাঁনপুর ইউনিয়ন পরিষদের পুরানো ইউপি ভবন ও কমিউনিটি ক্লিনিকের আবাসিক ভবন দীর্ঘদিন ধরে অব্যবহৃত। জীর্ণশীর্ণ ভবন দুটির চারপাশে ঝোপঝাড় তৈরি হয়ে ভুতুড়ে পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে মাদকসেবী ও কারবারিদের নিরাপদ বিচরণ কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে পুরোনো ভবন দু'টি।

    স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, এখানে মাদকসেবীদের যাতায়াত নিয়মিত। সম্প্রতি জুয়াড়ি ও মাদসেবীদের আনাগোনাও লক্ষ করা গেছে। ভবন দু'টি পুনরায় চালু করার দাবি জানিয়েছেন অনেকেই।

    সরেজমিন পুরানো খাঁনপুর ইউনিয়ন পরিষদের ভবনে গিয়ে দেখা যায়, ভবনের প্রতিটি দরজা জানালাসহ ভবনটি ধসে পড়া আশ্কা রয়েছে । বাহিরে আবর্জনার স্তূপ। দীর্ঘদিন ধরে পরিষ্কার করা হচ্ছে না এটা সুস্পষ্ট। কয়েক জন যুবক ভবনের ছাদে নিশ্চিন্তে মাদক সেবন করছে। স্তূপ,অযন্তে অবহেলায় পড়ে রয়েছে ভবন দু'টি।

    স্থানীয় এক দোকানি বলেন, ‘সন্ধ্যার পর মাদকসেবীরা ভবনটির ভেতর মাদকদ্রব্য সেবন করে। ভবনটি গ্রাম ও বাজার এলাকার পাশে হওয়ায় মাদকসেবীরা সন্ধ্যা থেকে এখানে অবস্থান শুরু করে।

    খাঁনপুরের বাসিন্দা ফসিউর রহমান বলেন, পুরানো এই ইউপি ভবন ও কমিউনিটি ক্লিনিকের আবাসিক ভবন দু'টি স্থানীয় মাদকসেবী ও বখাটেদের আড্ডার একটি নিরাপদ জায়গা তৈরি করা হয়েছে। সারা রাতই এখানে মাদকসেবীরা নেশা করে। যদিও এটি ইউনিয়ন পরিষদ হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে না, তবে অন্য কোনো কাজে ব্যবহার করুক তবুও এভাবে ফেলে রাখা ঠিক না।

    সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন শাহা বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের নতুন ভবন হয়ে পুরোনো ভবনটি আশেপাশের কয়েকটি ওয়ার্ডের চাল বিতরণ করেন বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যরা। এছাড়া ভবনটি আর অন্য কোনো কাজে ব্যবহার করা হয় না। অযত্নে-অবহেলায় দীর্ঘদিন ধরে এভাবে পড়ে আছে। এখন মাদকসেবী, জুয়াড়িদের আনাগোনাসহ নানা অসামাজিক কার্যকলাপ হচ্ছে। কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করেও সমাধান পাইনি। এর সংস্কার ও পুনরায় ভবন দু'টি অন্য কোনো কাজের জন্য চালু করার জোর দাবি জানাচ্ছি।’

    ট্যাগ :

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…