এইমাত্র
  • আজ দে‌শের স‌র্বোচ্চ তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায়
  • বাংলাদেশি পর্যটকদের ৩ দিন ভারত ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা
  • চার বিভাগে হিট অ্যালার্ট জারি আবহাওয়া অফিসের
  • খারকিভে চলছে ‘কঠিন লড়াই’: জেলেনস্কি
  • সবুজবাগে নির্মাণাধীন ভবনের মাচা ভেঙে নিহত ৩ শ্রমিক
  • আবারো চুয়াডাঙ্গায় তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি ছুঁই ছুঁই
  • চুয়াডাঙ্গায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত
  • সিরাজগঞ্জে কভার্ডভ্যানে মিলল ২১৬ কেজি গাঁজা, গ্রেপ্তার ২
  • টাঙ্গাইলের ১৬ সরকারি অফিসে ওড়ে না জাতীয় পতাকা
  • ১০ হাজারের বেশি বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাজ্য
  • আজ শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ১৮ মে, ২০২৪
    আন্তর্জাতিক

    লাফিয়ে বাড়ছে সংখ্যা, লিবিয়ায় ২০ হাজার মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১১:১৬ এএম
    আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১১:১৬ এএম

    লাফিয়ে বাড়ছে সংখ্যা, লিবিয়ায় ২০ হাজার মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১১:১৬ এএম

    লাফিয়ে বাড়ছে সংখ্যা । লিবিয়ায় ২০ হাজার মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা করছে দেশটির দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা। নিখোঁজ রয়েছে কয়েক হাজার মানুষ। কঙ্কালসার শহরের আনাচে-কানাচে মৃতদেহের স্তূপ। কাদামাটির নীচে, সমুদ্র সৈকতে শয়ে শয়ে দেহ পড়ে। সময় যত গড়াচ্ছে, ততই শহরের আকাশ-বাতাস যেন লাশের পচা গন্ধে ভরে উঠছে।

    সৌদি আরবের এক সংবাদমাধ্যম ‘আল আরবিয়া’-কে বন্দরশহর ডারনার মেয়র জানিয়েছেন, বাঁধ ভেঙে যাওয়ার কারণে সেই জলে ভেসে গিয়ে ১৮-২০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

    ভয়ঙ্কর ঝড় ‘ড্যানিয়েল’-এর জেরে ডারনা শহরের দু’টি বাঁধ ভেঙে গিয়েছিল। মেয়র জানিয়েছেন, যে সময় বাঁধ ভেঙে গিয়েছিল, সেই সময় গোটা শহর ঘুমে আচ্ছেন্ন। ফলে কারও পক্ষেই টের পাওয়া সম্ভব ছিল না বাইরে ভয়ানক বিপর্যয় ঘটে গিয়েছে। আর সেই বিপর্যয় গিলে ফেলতে চলেছে গোটা শহরকে।

    ডারনাতে এক লক্ষ লোকের বাস। গত রবিবার ঝড় ‘ড্যানিয়েল’ বিপুল শক্তি নিয়ে আছড়ে পড়েছিল বন্দর শহরটির উপর। রাতরাতি পুরো শহরের ছবি বদলে যায়। কেউ যেন জলের ঝাপটায় গোটা শহরকে মাটিতে মিশিয়ে দিয়েছিল।

    এখন আর কোথাও জল নেই। কঙ্কালসার শহরের আনাচে-কানাচে শুধুই মৃতদেহের স্তূপ। কাদামাটির নীচে, সমুদ্র সৈকতে শয়ে শয়ে দেহ পড়ে। সময় যত গড়াচ্ছে, ততই শহরের আকাশ-বাতাস যেন লাশের পচা গন্ধে ভরে উঠছে। বিবিসি-র এক প্রতিবেদন অনুযায়ী,দেহগুলি খোলা অবস্থায় পড়ে থাকায় সংক্রমণের আশঙ্কা দেখা দিচ্ছে। এই পরিস্থিতি থেকে দ্রুত উদ্ধার করতে আন্তর্জাতিক সহায়তা চেয়েছে লিবিয়া সরকার। এখন আর জল নেই শহরের কোথাও। শুধু ইট, পাথর আর কাদায় ঢাকা রাস্তাঘাট। মিশর, তুরস্ক এবং কাতার থেকে উদ্ধারকারী দল পৌঁছেছে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে।

    বিবিসি-কে শহরের এক বাসিন্দা উসামা আল হুসাদি জানিয়েছেন, তাঁর পরিবারের মোট ৫০ জন সদস্য এই দুর্যোগে নিখোঁজ। যাঁরা বেঁচে গিয়েছেন, তাঁরা এখন স্বজনদের খুঁজে বেড়াচ্ছেন। সেই দুর্যোগের পর তিন দিন কেটে গেলেও এখনও দেহ উদ্ধার হয়ে চলেছে। এই সংখ্যা কোথায় গিয়ে থামবে, তার ঠিক নেই বলে জানিয়েছেন ডারনা শহরের মেয়র।

    ট্যাগ :

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…