এইমাত্র
  • রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আরসার ৪ সদস্য আটক, অস্ত্র-গোলাবারুদ উদ্ধার
  • ঢাকায় মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নিহত ৩
  • পিটিআই প্রধানের পদ থেকে সরানো হলো গোহরকে
  • আর কোনো রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেয়ার সুযোগ নেই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  • রাশিয়ার ওপর আরও ৫০০ নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রের
  • কাদের-চুন্নুকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে, বাদ দেয়া হয়নি: রওশন
  • অবৈধ মজুতদাররা শেখ হাসিনাকে উৎখাত করতে চায়: খাদ্যমন্ত্রী
  • ৩ মার্চ কলকাতা মাতাবেন নগর বাউল জেমস
  • স্কুলে মোবাইল নিষিদ্ধ করলো ব্রিটিশ সরকার
  • ওআইসি সম্মেলন যোগ দিতে তুরস্কে গেলেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী
  • আজ শনিবার, ১০ ফাল্গুন, ১৪৩০ | ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
    শিক্ষাঙ্গন

    শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা দিলো ইবির অর্থনীতি বিভাগ

    যায়িদ বিন ফিরোজ, ইবি প্রতিনিধি প্রকাশ: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৫:১৯ পিএম
    যায়িদ বিন ফিরোজ, ইবি প্রতিনিধি প্রকাশ: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৫:১৯ পিএম

    শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা দিলো ইবির অর্থনীতি বিভাগ

    যায়িদ বিন ফিরোজ, ইবি প্রতিনিধি প্রকাশ: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৫:১৯ পিএম

    বিদায়ী শিক্ষার্থীদের ক্রেস্ট উপহারসহ সংবর্ধনা অনুষ্ঠান আয়োজনের মাধ্যমে (২০১৭-১৮) শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের বিদায় দিয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) অর্থনীতি বিভাগ।

    রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে অর্থনীতি ক্লাবের আয়োজনে এটি অনুষ্ঠিত হয়।

    অধ্যাপক ড. শাহেদ আহমেদের সভাপতিত্বে এসময় এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এ কে এম মতিনুর রহমান, বিভাগটির অধ্যাপক মোঃ আব্দুল মুঈদ, সভাপতি অধ্যাপক ড. কাজী মোস্তফা আরীফ, অর্থনীতি ক্লাবের ট্রেজারার মিথিলা তানজিল এবং সাধারণ সম্পাদক ইমরুল কায়েস।

    এসময় বিদায়ী শিক্ষার্থী কাওসার আলী বলেন, বিদায় বলতে আমরা মনে করি শেষ, কিন্তু আসলে এটি শেষ না। আমার কাছে বিদায় বলে মনে হয় নতুন করে শুরু করা। আজকের এই বিদায়ের বেলায় আমাদের আনন্দের থেকে বেদনা বেশী হচ্ছে। কেননা কালকে থেকেই আমরা নতুন সূচনা শুরু করবো। অনেকে অনেক দিকে নিজেদের চাকরির ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবতে শুরু করবে। এই বিদায় বেলায় আমি ৩০তম ব্যাচের সবার জন্য দোয়া চাচ্ছি।

    অধ্যাপক মোঃ আব্দুল মুঈদ বলেন, এই বিদায় অনুষ্ঠান একাডেমিক কার্যক্রমেরই একটি অংশ। ৫-৬ বছর একজন শিক্ষার্থী ক্যাম্পাসে পার করার পর যদি সাদামাটা বিদায় দেয়া হয় তবে ক্যাম্পাস সম্পর্কে তার তাগিদ কমে যাবে। তারা যেনো চলে যাওয়ার পর অনুভব করে যেখান থেকে আসলাম মায়া মমতা, স্নেহ পেয়ে আসছি। আমাদের আলটিমেট গোল হলো এলমনাই শক্তিশালী করা। তাই আমাদের এই জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজন।

    অর্থনীতি ক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক ড. শাহেদ আহমেদ বলেন, আমরা সত্যিই খুব আনন্দিত এবং উৎফুল্লিত যে অর্থনীতি ৩০তম ব্যাচের এতো সুন্দর একটি আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিদায় দিতে পারছি। আমাদের এই ব্যাচ বিশ্ববিদ্যালয়ের নানা কার্যক্রমে নিজেদের যোগ্যতা বজায় রেখে আজকের এই বিদায় নিয়ে চলে যাচ্ছে। অর্থনীতি বিভাগের ইতিহাসে এই প্রথম এতো বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিদায় দিতে পেরে আমরা অর্থনীতি ক্লাব সত্যিই গর্বিত।

    তিনি আরও বলেন, ছাত্র-শিক্ষকের যে বন্ধন এইটা জন্ম থেকে জন্মান্তরের বন্ধন। এই বন্ধনের সমাপ্ত হয় মৃত্যুর মধ্য দিয়ে। তাই আমি মনে করি আমাদের বরণ করার জন্য যেভাবে এগিয়ে আসি ঠিক তেমনিভাবে বিদায় বেলায়ও স্মরণীয় করে রাখার মতো আয়োজন করা উচিত। সেই চিন্তাধারা থেকেই আমাদের আজকের এই আয়োজন।

    এআই

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…