এইমাত্র
  • রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আরসার ৪ সদস্য আটক, অস্ত্র-গোলাবারুদ উদ্ধার
  • ঢাকায় মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নিহত ৩
  • পিটিআই প্রধানের পদ থেকে সরানো হলো গোহরকে
  • আর কোনো রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেয়ার সুযোগ নেই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  • রাশিয়ার ওপর আরও ৫০০ নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রের
  • কাদের-চুন্নুকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে, বাদ দেয়া হয়নি: রওশন
  • অবৈধ মজুতদাররা শেখ হাসিনাকে উৎখাত করতে চায়: খাদ্যমন্ত্রী
  • ৩ মার্চ কলকাতা মাতাবেন নগর বাউল জেমস
  • স্কুলে মোবাইল নিষিদ্ধ করলো ব্রিটিশ সরকার
  • ওআইসি সম্মেলন যোগ দিতে তুরস্কে গেলেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী
  • আজ শনিবার, ১০ ফাল্গুন, ১৪৩০ | ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
    দেশজুড়ে

    ভোট দিয়ে জীবনের আরেকটি ঋন শোধ করলাম

    আব্দুল মান্নান, নওগাঁ প্রতিনিধি প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৭:০৩ পিএম
    আব্দুল মান্নান, নওগাঁ প্রতিনিধি প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৭:০৩ পিএম

    ভোট দিয়ে জীবনের আরেকটি ঋন শোধ করলাম

    আব্দুল মান্নান, নওগাঁ প্রতিনিধি প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৭:০৩ পিএম

    ধামুইরহাট উপজেলার মালিপাড়া গ্রামের মুনিকা হাজদা, বয়সের ভারে নুইয়ে পড়েছেন। চলাফেরা করতে হয় অন্যের সহোযোগীতায়, তবুও এসেছেন ভোট কেন্দ্রে ভোট দিতে। ভোটার আইডি অনুযায়ী তার বয়স ৮৫ বছর। গত চার বছর ধরে বিছানায় তিনি। ঠিকমত উঠা চলাফেরা করতে পারেন না। চলাফেরা করতে হয় অন্যের কাঁধে ভর করে।

    সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারী) নওগাঁ-২ আসনের জাতীয় নির্বাচনের দিন নাতনি কল্পনা বাসকের কাঁধে ভর করে ধামুইরহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এসেছেন তার ভোট দিতে। ভোট প্রদান শেষ করে আবার দুই নাতনির কাঁধে ভর করে ভ্যান গাড়িতে উঠছেন তিনি।

    এসময় তার সাথে কথা হলে তিনি বলেন, স্বাধীতনার পর থেকে প্রত্যেকটি ভোট দিয়ে আসছেন তিনি। বয়সের ভারে গত চার বছর ধরে সোজা হয়ে চলা ফেরা করতে পারেন না তিনি। এসময় কান্না জড়িত কন্ঠে তিনি আরো বলেন- জীবনের একটি ঋন শোধ করলাম, হয়ত এটাই আমার জীবনের শেষ ভোট। তবে বেঁচে থাকলে আবার ভোট দিব। জীবনে কখনো কোন ভোট মিস করেনি সে, ভোট দিতে পারায় আনান্দিত তিনি।

    মুনিকা হাজদার নাতনি কল্পনা বাসক বলেন, আমার দাদি গত চার বছর ধরে নিজে চলাফেরা করতে পারেনা। বাড়িতে আমি, বাবা, ভাই-বোনের সহযোগীতায় চলাফেরা করেন তিনি। দাদি কখনো কোন ভোট মিস করেনি। প্রত্যেকটা ভোট দেয়। ভোটের কয়েকদিন আগে থেকে অনুরোধ করেন তাকে ভোট কেন্দ্রে নিয়ে যেতে। তাই একটি ভ্যানগাড়ি ভাড়া করে দাদিকে নিয়ে আসছি ভোট দিতে। ভোট দিতে পারায় দাদি অনেক আনান্দিত।

    এমআর

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…