এইমাত্র
  • এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ শুরু আগামীকাল
  • ওমরাহ ভিসার মেয়াদে যে পরিবর্তন আনল সৌদি আরব
  • ইরান-ইসরায়েল মধ্যকার উত্তেজনায় সৌদির অবস্থান কী?
  • নরসিংদীতে প্রকাশ্যে ইউপি সদস্যকে গুলি ও জবাই করে হত্যা
  • বড় মেয়েকে নিয়ে গোপনে বাংলাদেশ ছাড়লেন সেই জাপানি মা
  • দ্বাদশ জাতীয় সংসদের দ্বিতীয় অধিবেশন বসছে ২ মে
  • ইরানের হামলার পর যে চার মুসলিম দেশকে যুক্তরাষ্ট্রের বার্তা
  • পহেলা বৈশাখকে অস্বীকারকারীরা দেশের ইতিহাসকেই অস্বীকার করে: কাদের
  • ইরানে কখন হামলা করবে জানাল ইসরায়েল
  • ৫ দিন পর বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানি শুরু
  • আজ সোমবার, ২ বৈশাখ, ১৪৩১ | ১৫ এপ্রিল, ২০২৪
    দেশজুড়ে

    পাহাড় কেটে ভবন নির্মাণ কউকের, ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

    শাহীন মাহমুদ রাসেল, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, কক্সবাজার প্রকাশ: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:৩৫ পিএম
    শাহীন মাহমুদ রাসেল, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, কক্সবাজার প্রকাশ: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:৩৫ পিএম

    পাহাড় কেটে ভবন নির্মাণ কউকের, ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

    শাহীন মাহমুদ রাসেল, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, কক্সবাজার প্রকাশ: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:৩৫ পিএম

    কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের আবাসিক ফ্ল্যাট উন্নয়ন প্রকল্প-১ এলাকায় পাহাড় কর্তনের ঘটনায় ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর।

    কক্সবাজার সদর থানায় পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজার কার্যালয়ের সিনিয়র কেমিস্ট মো. আবদুছ ছালাম বাদি হয়ে এ মামলাটি দায়ের করেন বলে নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার সদর থানার ওসি রকিবুজ্জামান।

    তিনি জানান, গত ২১ ফেব্রুয়ারি ৪ জনের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটি নথিভ‚ক্ত করে করা হয়েছে। বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন, ১৯৯৫ (সংশোধিত-২০১০) এর ৪ (২), ৬(খ) ও ১২ ধারা লংঘন করে একই আইনের ১৫(১) টেবিলের ১, ৫ ও ১২ ক্রমিকে বর্ণিত দন্ড নথিভ‚ক্ত মামলাটি পরিবেশ অধিপ্তর নিজস্বভাবে তদন্ত করবেন।

    প্রাপ্ত মামলার এজাহারে অভিযুক্ত ৪ জন হলেন, প্রকল্পের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান দি ইঞ্জিনিয়ারস এন্ড আর্কিটেকচার লিমিটেডের প্রকৌশলী শেখ মোস্তাহিদুর রহমান, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সাইট ইনচার্জ ইমরান পাঠান, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের আবাসিক ফ্ল্যাট উন্নয়ন প্রকল্প পরিচালক ও কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রধান নির্বাহী।

    এজাহারে শেষে উল্লেখ করা ২ জনের নাম লেখা হয়নি যদিও কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রকল্পটির পরিচালক হিসেবে মোহাম্মদ রিশাদ উন নবী রয়েছেন। তবে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষে প্রধান নির্বাহী বলে কোন পদবী নেই। বিষয়টি নিয়ে মামলার বাদি ও পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজার কার্যালয়ের সিনিয়র কেমিস্ট মো. আবদুছ ছালামের কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

    মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, কক্সবাজার সদর পৌরসভার ১২ নম্বর ওয়াডের কলাতলী বাইপাস রোডের পশ্চিমে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (কউক) এর ফ্ল্যাট উন্নয়ন প্রকল্প-১ এলাকার অভ্যন্তরে পাহাড় কর্তনের অভিযোগের স্থান সরেজমিন পরিদর্শন করা হয়। পরিদর্শনকালে স্ক্যাভেটর চালক মোতাহার হোসেন জানিয়েছে ১ সপ্তাহ ধরে এই পাহাড় কাটা হচ্ছে। যেখানে কর্তন করা পাহাড়টি আনুমানিক পরিমান দৈর্ঘ্য ৮০ ফুট, প্রস্ত ২০ ফুট এবং উচ্চতা ৩০ ফুট। যা ৪৮ হাজার ঘনফুট।

    এর আগে ১৮ ফেব্রুয়ারি কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের পাহাড় কাটা সংলগ্ন সংবাদ প্রকাশের পর পৃথক এই নোটিশ দুইটি প্রদান করা হল। গত ১৯ ফেব্রæয়ারি কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান বরাবরে নোটিশ দিয়েছেন পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজার কার্যালয়ের পরিচালক ফরিদ আহমেদ। একই সঙ্গে এই পাহাড় কাটা বন্ধ সহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তিন মন্ত্রণালয়ের সচিব সহ ৯ জনকে নোটিশ প্রদান করেছে পরিবেশ আইনবিদ সমিতি (বেলা)।

    বেলার আইনজীবী জাকিয়া সুলতানা মঙ্গলবার ডাক যোগে নোটিশটি প্রদান করেন। এ নোটিশটি দেয়া হয়েছে, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, ভ‚মি মন্ত্রণালয়ের সচিব, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব, চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার, পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান, কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজার কার্যালয়ের পরিচালক বরাবরে।

    এমআর

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…