এইমাত্র
  • চলতি আইপিএলে দ্রুততম শতক হাঁকালেন হেড
  • ‘রাজকুমার’র সফলতায় ভক্তদের শুভেচ্ছা শাকিবের
  • রাত ১টার মধ্যে যে সব এলাকায় ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝড়
  • এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ শুরু আগামীকাল
  • ওমরাহ ভিসার মেয়াদে যে পরিবর্তন আনল সৌদি আরব
  • ইরান-ইসরায়েল মধ্যকার উত্তেজনায় সৌদির অবস্থান কী?
  • নরসিংদীতে প্রকাশ্যে ইউপি সদস্যকে গুলি ও জবাই করে হত্যা
  • বড় মেয়েকে নিয়ে গোপনে বাংলাদেশ ছাড়লেন সেই জাপানি মা
  • দ্বাদশ জাতীয় সংসদের দ্বিতীয় অধিবেশন বসছে ২ মে
  • ইরানের হামলার পর যে চার মুসলিম দেশকে যুক্তরাষ্ট্রের বার্তা
  • আজ সোমবার, ২ বৈশাখ, ১৪৩১ | ১৫ এপ্রিল, ২০২৪
    আন্তর্জাতিক

    পিটিআই প্রধানের পদ থেকে সরানো হলো গোহরকে

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:৩৮ পিএম
    আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:৩৮ পিএম

    পিটিআই প্রধানের পদ থেকে সরানো হলো গোহরকে

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:৩৮ পিএম

    পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) এর চেয়ারম্যান পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলো ব্যারিস্টার গোহর আলী খানকে। শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) এমনটাই দাবি করেছেন পিটিআইয়ের আরেক নেতা শের আফজাল মারওয়াত। খবর পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম জিও নিউজের।

    পিটিআইয়ের পরবর্তী চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ব্যারিস্টার আলী জাফরের নাম ঘোষণা করার একদিন পর গোহরকে সরানোর এ ঘোষণা এলো। আগামী ৩ মার্চ দলের অভ্যন্তরীণ নির্বাচন হওয়ার কথা।

    পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন (ইসিপি) ও সুপ্রিম কোর্ট পিটিআইয়ের অভ্যন্তরীণ নির্বাচনকে বেআইনি ঘোষণা করে। দলীয় প্রতীক ক্রিকেট ব্যাটও কেড়ে নেয়। এরপর প্রায় এক মাসের বেশি সময় ধরে দলের শীর্ষ পদটি শূন্য ছিল।

    জিও নিউজকে মারওয়াত বলেন, অযোগ্যতা ও দুর্বল পারফরম্যান্সই গোহরকে চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণের প্রধান কারণ। তিনি একজন ভদ্রলোক কিন্তু তার কাজ সন্তোষজনক ছিল না।

    পিটিআই নেতা বলেন, গোহর কর্মীদের প্রত্যাশা পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছেন। পার্টি অফিস চালাতে হলে সব সময় সক্রিয় থাকতে হয়, কিন্তু তিনি তা করতে পারেননি।

    নির্বাচনের ফলাফলের পরে, দলীয় নেতৃত্বের দৃষ্টিভঙ্গি প্রশংসনীয় ছিল না। নির্বাচনের পরে শক্ত হাতে দলের নেতৃত্ব দেওয়া উচিত ছিল, কিন্তু তিনি তাতে ব্যর্থ হন বলেও মন্তব্য করেছেন মারওয়াত।

    পিটিআইয়ের মুখপাত্র রওফ হাসান, চেয়ারম্যান, কেন্দ্রীয় ও প্রাদেশিক পর্যায়ের নেতা ঠিক করতে ৫ ফেব্রুয়ারি আন্তঃদলীয় নির্বাচনের ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু পরে তা স্থগিত করা হয়।

    নতুন নির্বাচনি সূচি অনুযায়ী,আন্তঃদলীয় নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ইচ্ছুক প্রার্থীরা ২৩ ও ২৪ ফেব্রুয়ারি মনোনয়নপত্র জমা দিবেন, ২৫ ফেব্রুয়ারি যাচাই-বাছাই করা হবে।

    এফএস

    ট্যাগ :

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…