এইমাত্র
  • ‘রাফসান দ্য ছোট ভাই’-এর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা
  • হঠাৎ বৃষ্টিতে ভোগান্তি চরমে, ভাড়া নেওয়া হচ্ছে দিগুণ
  • খাগড়াছড়িতে কৃষি গবেষণা কেন্দ্র থেকে শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার
  • রংপুরে মেট্রোপলিটন পুলিশ ও র‍্যাবের সাব কন্ট্রোল রুম উদ্বোধন
  • বাংলাসহ ৫০ ভাষায় অনুবাদ হবে হজের খুতবা
  • ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে নেই যানজট, নির্বিঘ্নে আসছে কোরবানির পশু
  • কুয়াকাটা ৬৫ দিনের অবরোধে জেলেদের মধ্যে সচেতনতা মূলক ক্যাম্পেইন
  • ১৫২ কোটি টাকার মামলা: কমিশনার ওয়াহিদাকে বিদেশ যাত্রায় নিষেধাজ্ঞা
  • শনিবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ নাকি খোলা, সিদ্ধান্ত ঈদের পর
  • আওয়ামী লীগ নেতা মিন্টু ৮ দিনের রিমান্ডে
  • আজ বৃহস্পতিবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ১৩ জুন, ২০২৪
    তথ্য-প্রযুক্তি

    এবার হাইড্রোজেনে চলবে গাড়ি, তৈরি করেছে টয়োটা

    তথ্য-প্রযুক্তি ডেস্ক প্রকাশ: ১০ জুন ২০২৪, ০২:৫২ পিএম
    তথ্য-প্রযুক্তি ডেস্ক প্রকাশ: ১০ জুন ২০২৪, ০২:৫২ পিএম

    এবার হাইড্রোজেনে চলবে গাড়ি, তৈরি করেছে টয়োটা

    তথ্য-প্রযুক্তি ডেস্ক প্রকাশ: ১০ জুন ২০২৪, ০২:৫২ পিএম

    দীর্ঘদিন ধরে দূষণ রোধে পেট্রলচালিত গাড়ি বন্ধ করার কর্মপরিকল্পনার ঘোষণা দিয়েছে উন্নত বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। এরই সঙ্গে সঙ্গে বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরিতেই বেশি মনোযোগ দিয়েছে গাড়িনির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো। এক্ষেত্রে জাপানের গাড়িনির্মাতা প্রতিষ্ঠান টয়োটা মোটর করপোরেশন চলছে কিছুটা ভিন্ন পথে। প্রতিষ্ঠানটি হাইড্রোজেনচালিত গাড়ি তৈরি করছে। খবর রয়টার্স।

    জাপানের গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টয়োটা এরই মধ্যে যুক্তরাজ্যের ডার্বিতে নিজেদের কারখানায় পরীক্ষামূলকভাবে হাইড্রোজেন ফুয়েল সেল–নির্ভর টয়োটা হিলাক্স পিক-আপ মডেলের ১০টি গাড়ি তৈরি করেছে। বর্তমানে গাড়িগুলোর নিরাপত্তা, কর্মক্ষমতা, কার্যকারিতা ও স্থায়িত্ব পরীক্ষা করা হচ্ছে।

    টয়োটার তথ্যমতে, হাইড্রোজেন ফুয়েল সেল নিয়ে টয়োটা ২০ বছরের বেশি সময় ধরে গবেষণা করছে। হাইড্রোজেন ফুয়েল সেলের মাধ্যমে টয়োটা হিলাক্স টানা ৬০০ কিলোমিটার পর্যন্ত পথ চলতে পারে। বর্তমানে হাইড্রোজেনে চলা পাঁচটি গাড়ি রাস্তায় চলাচল করছে। আর বাকি পাঁচটি গাড়ি আসন্ন ২০২৪ প্যারিস অলিম্পিক ও প্যারালিম্পিক গেমসে প্রদর্শন করা হবে।

    টয়োটা হিলাক্স পিক-আপ মডেলের গাড়িটিতে হাইড্রোজেন তিনটি উচ্চ চাপের জ্বালানি ট্যাংকে সংরক্ষণ করা হয়েছে। প্রতিটি ট্যাংকে ২ দশমিক ৬ কেজি হিসেবে মোট ৭ দশমিক ৮ কেজি হাইড্রোজেন ব্যবহার করা যায়। হাইড্রোজেন সেল ওজনে হালকা হওয়ার কারণে কম জ্বালানি খরচে বেশি পথ পাড়ি দেওয়ার পাশাপাশি বেশি পণ্যও পরিবহন করা যাবে। যুক্তরাজ্য সরকার হাইড্রোজেন ফুয়েল সেল–নির্ভর গাড়ি তৈরিতে টয়োটাকে আর্থিকভাবে সহযোগিতা করছে।

    জ্বালানি সাশ্রয়ী হাইড্রোজেন ফুয়েল সেল–নির্ভর গাড়ির ভবিষ্যতে চমক তৈরি করবে বলে জানিয়েছেন বিশ্লেষকেরা। ২০৩০ সালের মধ্যে ইউরোপ বিশ্বের সবচেয়ে বড় হাইড্রোজেন ফুয়েল সেল–নির্ভর গাড়ির বাজার হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

    সূত্র: টয়োটা

    এবি

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…