এইমাত্র
  • কোটা আন্দোলনে গিয়ে নাশকতার মামলায় কারাগারে দুই শিক্ষার্থী
  • পরিস্থিতি বুঝে মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ করা হয়েছে: প্রতিমন্ত্রী পলক
  • জয়পুরহাটে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া
  • বাড্ডায় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া
  • মেসিকে ক্ষমা চাইতে বলায় ক্রীড়া কর্মকর্তা বরখাস্ত
  • ভারতীয় ভিসা সেন্টার ও মার্কিন দূতাবাস বন্ধ ঘোষণা
  • বিভিন্ন স্থানে মোবাইল ইন্টারনেটে ধীরগতি
  • যাত্রাবাড়ীতে পুলিশ-শিক্ষার্থী সংঘর্ষ, ২ পথচারী গুলিবিদ্ধ
  • বেরোবি শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন
  • কমপ্লিট শাটডাউনে রাজধানীতে গণপরিবহন সংকট, দুর্ভোগে মানুষ
  • আজ বৃহস্পতিবার, ৩ শ্রাবণ, ১৪৩১ | ১৮ জুলাই, ২০২৪
    দেশজুড়ে

    ঈদের রাতে জোড়া খুন: শ্রমিক নেতাসহ চারজনের ৪ দিনের রিমান্ড

    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক প্রকাশ: ২৪ জুন ২০২৪, ০২:৩৩ পিএম
    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক প্রকাশ: ২৪ জুন ২০২৪, ০২:৩৩ পিএম

    ঈদের রাতে জোড়া খুন: শ্রমিক নেতাসহ চারজনের ৪ দিনের রিমান্ড

    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক প্রকাশ: ২৪ জুন ২০২৪, ০২:৩৩ পিএম

    বগুড়ায় জোড়া হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃত প্রধান আসামি মোটর শ্রমিক ইউনিয়ন সম্পাদক সৈয়দ কবির আহম্মেদ মিঠুসহ চারজনের চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

    সোমবার দুপুরে বগুড়া অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সুপান্ত সাহা এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিলেন।

    রিমান্ডপ্রাপ্তরা হলেন- সৈয়দ কবির আহমেদ মিঠু (৫০), নিশিন্দারা খাঁপাড়া এলাকার আব্দুল গফুরের ছেলে শেখ রভ (২৬), একই এলাকার পুর্বপড়ার মৃত আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে নাঈম হোসেন (২৮) ও সুলতানগঞ্জ আলী সোনার লেনের ইসমাঈল হোসেনের ছেলে আজবিন রিফাত (১৯)।

    জানা যায়, ঈদের রাতে (১৭ জুন) পূর্ব পরিকল্পনা মতে শহরের নিশিন্দারা এলাকায় পরিচিত জনকে দিয়ে ফোন করে শেখ শরিফ ও রোম্মানকে বাড়ি থেকে ডেকে আনে। এরপর দুইজনকে সামান্য দূরত্বে দুই স্থানে গুলি ও কুপিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। এ ঘটনায় হোসেন শেখ নামে আরেক যুবক গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত অবস্থায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ওই সময় ঘটনাস্থল থেকে তিন রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করে পুলিশ।

    এ ঘটনায় মামলা করা হয়। ওই মামলায় প্রধান আসামি জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ কবির আহমেদ মিঠু, তার ছোট ভাই আওয়ামী লীগ নেতা সার্জিল আহমেদ টিপু, তৃতীয় বর্তমান কাউন্সিলর ও স্বেচ্ছাসেবক দলের বগুড়া শাখার সাবেক সভাপতি শাহ মেহেদী হাসান হিমু ও তাদের সহযোগী ১৩ জনের নামে ১৪-১৫ জন অজ্ঞাত আসামি করে সদর থানায় জোড়া হত্যা মামলা করেন নিহত শরিফের মা হেনা বেগম।

    মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহিনুজ্জামান জানান, শরিফ ও রোম্মান হত্যার প্রধান আসামিসহ গ্রেফতারকৃত চারজনের বিরুদ্ধে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করা হয়েছিল। সোমবার আবেদন শুনানি শেষে চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। জোড়া হত্যা মামলার অন্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

    এইচএ

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…