এইমাত্র
  • কোটা আন্দোলনে গিয়ে নাশকতার মামলায় কারাগারে দুই শিক্ষার্থী
  • পরিস্থিতি বুঝে মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ করা হয়েছে: প্রতিমন্ত্রী পলক
  • জয়পুরহাটে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া
  • বাড্ডায় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া
  • মেসিকে ক্ষমা চাইতে বলায় ক্রীড়া কর্মকর্তা বরখাস্ত
  • ভারতীয় ভিসা সেন্টার ও মার্কিন দূতাবাস বন্ধ ঘোষণা
  • বিভিন্ন স্থানে মোবাইল ইন্টারনেটে ধীরগতি
  • যাত্রাবাড়ীতে পুলিশ-শিক্ষার্থী সংঘর্ষ, ২ পথচারী গুলিবিদ্ধ
  • বেরোবি শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন
  • কমপ্লিট শাটডাউনে রাজধানীতে গণপরিবহন সংকট, দুর্ভোগে মানুষ
  • আজ বৃহস্পতিবার, ৩ শ্রাবণ, ১৪৩১ | ১৮ জুলাই, ২০২৪
    বিনোদন

    মারা গেছেন সংগীতশিল্পী ঊষা উত্থুপের স্বামী

    বিনোদন ডেস্ক প্রকাশ: ৯ জুলাই ২০২৪, ০৪:৩৩ পিএম
    বিনোদন ডেস্ক প্রকাশ: ৯ জুলাই ২০২৪, ০৪:৩৩ পিএম

    মারা গেছেন সংগীতশিল্পী ঊষা উত্থুপের স্বামী

    বিনোদন ডেস্ক প্রকাশ: ৯ জুলাই ২০২৪, ০৪:৩৩ পিএম

    ভারতের পপ আইকন এবং নিজের এক আলাদা কন্ঠস্বরের জন্য জনপ্রিয় গায়িকা ঊষা উত্থুপের স্বামী জনি চাকো উত্থুপ মারা গেছেন। সোমবার (৮ জুলাই) কলকাতায় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর।

    ভারতীয় গণমাধ্যমে তথ্য অনুযায়ী, সোমবার সকালেও ঊষা এবং তার স্বামী জনি একসঙ্গে বসে চা খেয়েছিলেন। একসঙ্গে কিছুক্ষণ টিভিও দেখেন তারা। এরপর ঊষা অফিসে গেলে, তার কিছু সময় পরই আচমকা হৃদরোগে আক্রান্ত হন তার স্বামী। সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে জনিকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

    জনি চাকোর শারীরিক কোনো অসুস্থতা ছিল না। প্রতি দিন সকালে একসঙ্গে বসে চা খেতেন এই দম্পতি। গতকালও তার ব্যতিক্রম হয়নি। চা, প্রাতরাশ খেয়ে খানিক গল্পও করেন তারা। তারপরই সব শেষ। পেশাজীবনে চাকো ‘টি এস্টেট’-এর কর্মী ছিলেন।

    ঊষা ও জনির পরিবারের অধিকাংশ সদস্য বসবাস করেন দক্ষিণ ভারতে। মঙ্গলবার (৯ জুলাই) সকালে তাদের কলকাতায় পৌঁছানোর কথা রয়েছে। বিকালে কলকাতার কেওড়াতলা মহাশ্মশানে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

    জনি চাকো ঊষার দ্বিতীয় স্বামী। প্রথম স্বামী রামুর সঙ্গে বিবাহিত থাকা অবস্থায় ঊষার জীবনে আসেন চাকো। ঊষা তার ভালোবাসার কথা সরাসরি জানান প্রথম স্বামী রামুকে। এরপর নিজের পরিবার, প্রথম স্বামীর পরিবার, সমাজের সব বাধা উপেক্ষা করে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন ঊষা-জনি চাকো।

    সংগীতশিল্পী ঊষা উত্থুপকে আবিষ্কার করেন পরিচালক দেব আনন্দ। ১৯৭১ সালে ‘হরে রাম হরে কৃষ্ণা’ সিনেমায় গান গাওয়ার সুযোগ করে দেন। এরপর অসংখ্য বলিউড সিনেমার গানে প্লেব্যাক করেছেন ঊষা। কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ পেয়েছেন পদ্মশ্রী (২০১১), পদ্মবিভূষণ (২০২৪), ফিল্মফেয়ার (২০১১) প্রভৃতি পুরস্কার।

    এবি

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…